এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > লোকসভা নির্বাচনের আগে বড় হাসি মমতার মুখে, পাশে পেলেন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদকে

লোকসভা নির্বাচনের আগে বড় হাসি মমতার মুখে, পাশে পেলেন নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদকে



দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিমন্ডলে সরকার বিরোধীজোটের যে গুরুত্বপূর্ণ অবস্থান রয়েছে সে কথা মেনে নিলেন খোদ নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন। আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে প্রাজ্ঞ এই অর্থনীতিবিদ নিজের মতামত জানিয়ে বললেন, ” আজকে আর লড়াইটা নরেন্দ্র মোদী আর রাহুল গান্ধীর মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। আজকের লড়াইটা সারা ভারতের, এই লড়াই সমগ্র ভারতবাসীর।” এদিন দিল্লীতে তাঁর বই প্রকাশ অনুষ্ঠাণে উপস্থিত হয়ে তিনি বললেন, “বর্তমান সময়ে ঐক্যবদ্ধ বিরোধীদের প্রয়োজন হয়ে পড়েছে। আজ আর কোনও এক বা দুজনের মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। এখন দেশের স্বার্থে মহাজোট গড়ার সময় এসেছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

” প্রসঙ্গতঃ এর আগেও নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ বিজেপি সরকার ও নরেন্দ্র মোদীর সমালোচনায় মুখর হয়েছিলেন। এদিনও দেশে বর্তমান পরিস্থিতির নিরিখে বর্তমান সরকারকে সমালোচনা করতে কোনো কসুর করলেন না তিনি। শুধু তাই নয় তিনি এদিন ধর্মীয় বিভাজন নিয়েও তাঁর মূল্যবাণ মতামত দেন।তাঁর মতে স্বাধীনতার লড়াইয়ে কেউ হিন্দু পরিচয় নিয়ে ভাবিত ছিলেন না। কিন্তু আজ সেসব বদলে গিয়েছে। ভুল পথে পা বাড়িয়ে ক্রমশ তলিয়ে যাচ্ছে দেশ। ২০১৪ সাল থেকে এই প্রবণতা খুব বেশি করে লক্ষ্য করা গিয়েছে। অর্থাৎ নরেন্দ্র মোদীর শাসন কালকেই তিনি মুলতঃ দায়ী করেছেন। তিনি বলেন, ভারত বর্তমানে এই উপমহাদেশের মধ্যে দ্বিতীয় নিকৃষ্টতম স্থানে অবস্থান করছে। একই সাথে তিনি আরও বললেন যে, ২০১৪ সাল থেকে যা হচ্ছে, সবটাই ভুল হচ্ছে। গতিশীল অর্থনীতির দিকে ঝাঁপাতে গিয়ে যে পথ বেছেছে তা একেবারেই ভুল পথ। সেই কারণেই পিছিয়ে পড়তে পড়তে একেবারে নিচে নেমে গিয়েছে দ্রুত অর্থনীতির দেশ হিসেবে। এই মুহর্তে ভারতের অবস্থান পাকিস্তানের উপরে। আর ভারতের উপরে রয়েছে শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ, নেপাল, ভুটান- সবাই।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!