এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > ই-মনোনয়নের রায় বেরোতেই বীরভূমে ঝড় তুলতে শুরু করলেন লকেট চ্যাটার্জি

ই-মনোনয়নের রায় বেরোতেই বীরভূমে ঝড় তুলতে শুরু করলেন লকেট চ্যাটার্জি



ই-মনোনয়নের রায় বেরোতেই বীরভূমে ঝড় তুলতে শুরু করলেন লকেট চ্যাটার্জি। ই-মনোনয়নে সারা দিয়েই আদালত রায় দেয় আর তার পরেই মঙ্গলবার বীরভূমের রাজনগর ব্লকের মাধাইপুর গ্রামে গিয়ে লকেটদেবী বিজেপি মনোনীত প্রার্থীদের হয়ে প্রচার করলেন । সেখানে গিয়ে এক অদ্ভুত পরিস্থিতির মুখোমুখি হলেন তিনি। এলাকার সাধারণ মানুষ নির্বাচনের দিন সুষ্ঠভাবে নিজেদের ভোট দিতে পারবেন কি না জানতে চেয়ে প্রশ্ন করছেন , ”ঠিকমতো ভোটটা দিতে পারব তো?” এদিন গ্রামে মোর্চা নেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায় ভোটাদাতাদের বাড়ি বাড়ি দিয়ে প্রচারকার্য চালিয়েছেন বলে জানা গেছে। এলাকার স্থানীয় বাসিন্দাদের থেকে জানা গিয়েছে নির্বাচনের দিন এই গ্রামে অশান্তির আশঙ্কা রয়েছে।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এদিন মাধাইপুর গ্রামের চারটি পাড়া ঘোরেন লকেট চট্টোপাধ্যায়। প্রচারকার্যের শেষে এদিন লকেট চট্টোপাধ্যায় প্রাক নির্বাচনী পর্বে দলীয় প্রস্তুতি এবং সাধারণ মানুষের প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বললেন, ”আজ আমি গ্রাম ঘুরে দেখলাম ভারতীয় জনতা পার্টিকে মানুষ চাইছে। আজ আমাকে একজন বৃদ্ধা মহিলা আমাকে আশীর্বাদ করে বলেছেন। আমরা পদ্মে ভোট দেওয়ার জন্য প্রস্তুত আছি। চারিদিকে যে সন্ত্রাস চলেছে আগামিদিনে তার মোকাবিলা সাধারণ মানুষ রাস্তায় নেমে করবে। বীরভূমে সব জায়গায় যদি বিরোধীরা মনোনয়ন করতে পারত, তাহলে একটা গ্রাম পঞ্চায়েতও জিততে পারত না তৃণমূল।” এছাড়াও তৃণমূলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলকেও এদিন কটাক্ষ করতে ছাড়লেন না তিনি। এদিন বললেন , ”তিনি এবং তাঁর দলের কর্মীরা যে ভাবে মহিলাদের উপর অত্যাচার করেছেন, তাতে আজ যদি ওঁর নিরাপত্তা রক্ষীদের সরিয়ে নেওয়া হয় তাহলে মহিলারাই তাঁকে জব্দ করে দেবে।”

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!