এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > লকডাউনে নিয়ম ভেঙে এবার বড়সড় মুশকিলে পড়তে চলেছেন দিলীপ ঘোষ? হবে কঠোর আইনি পদক্ষেপ?

লকডাউনে নিয়ম ভেঙে এবার বড়সড় মুশকিলে পড়তে চলেছেন দিলীপ ঘোষ? হবে কঠোর আইনি পদক্ষেপ?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – রাজ্যজুড়ে করোনা পরিস্থিতি যখন ভয়ঙ্কর অবস্থা ধারণ করছে ক্রমশ, ঠিক সেইসময় এবার জমায়েত করার অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে। করোনা পরিস্থিতিতে প্রথম থেকে সংক্রমণ রোধ করতে বিভিন্ন করোনা বিধি-নিষেধ প্রচলিত করা হয়েছিল। যার মধ্যে অন্যতম হল, কোথাও কোনো জমায়েত না করা। কিন্তু হেমতাবাদের বিজেপি বিধায়ক দেবেন্দ্রনাথ রায়ের স্মরণসভায় সে নিয়ম পুরোপুরি ভাঙ্গা হয়েছে বলে দাবী রায়গঞ্জ থানার পুলিশের। আর সেই সূত্রেই এবার রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ সহ অন্যান্য নেতারা পড়তে চলেছেন আইনের ফাঁদে বলে জানা যাচ্ছে।

রায়গঞ্জ থানার পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, এবার দিলীপ ঘোষ সহ দলের অন্তত হাজার জনের বিরুদ্ধে মহামারী আইনে মামলা হতে চলেছে। রাজ্য সরকার আগেই নিয়ম করে দিয়েছিল, করোনা পরিস্থিতিতে যদি কেউ লকডাউনের নিয়ম ভাঙে, তাহলে তাঁর বিরুদ্ধে লাগু হবে ব্রিটিশ আমলের মহামারী আইন। সূত্রের খবর, এই মামলার তালিকায় রয়েছেন রায়গঞ্জের জেলা বিজেপি সভাপতি বিশ্বজিত মন্ডল, এমনকি বালুরঘাটের সংসদ সুকান্ত মজুমদারও।

জানা যাচ্ছে, পুলিশের অনুমতি ছাড়াই সোমবার হেমতাবাদের প্রয়াত বিজেপি বিধায়ক দেবেন্দ্রনাথ রায়ের স্মরণ সভায় হাজির হয়েছিলেন এক ঝাঁক বিজেপি নেতা কর্মী। হেমতাবাদে বিজেপি বিধায়ক দেবেন্দ্রনাথ রায়ের মৃত্যুর পর সোমবার প্রথম তাঁর স্মরণসভায় হাজির হলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। অন্যদিকে অভিযোগ উঠেছে, বিধায়কের স্মরণসভায় যথেষ্ট জনসমাগম হয়েছিল। শুধু তাই নয়, সামান্যতম স্বাস্থ্যবিধিও মেনে চলা হয়নি।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এমনকি অনেকেই মাস্ক ব্যবহার করেনি বলে জানা যাচ্ছে। ইতিমধ্যে রায়গঞ্জ থানার আইসি সুরোজ থাপা জেলা পুলিশ দপ্তরে দিলীপ ঘোষসহ উপস্থিত অনেকের বিরুদ্ধেই মহামারী আইনে অভিযোগ দায়ের করেন। জানা গিয়েছে, এবার সেই অভিযোগ খতিয়ে দেখে মামলা দায়ের করা হবে। অন্যদিকে রায়গঞ্জ জেলা পুলিশ জানিয়েছে, রায়গঞ্জ বিএড কলেজেও বিধায়ক দেবেন্দ্রনাথ রায়ের স্মরণসভা করার জন্য বিজেপি আবেদন করেছিল। কিন্তু যথারীতি তা খারিজ করে দেওয়া হয়েছে। নতুন করে আর কোনো অনুমতি দেওয়া হয়নি জমায়েত করার।

তাহলে প্রশ্ন উঠছে, কিভাবে সোমবার বিধায়কের স্মরণসভা সূত্রে এত বিপুল জনসমাগম হল! অন্যদিকে বিশেষজ্ঞদের মতে, করোনা পরিস্থিতিতে লকডাউন আইন ভাঙার সূত্রে এবার ভালোই আইনের মারপ্যাঁচে জড়িয়ে পড়তে চলেছেন রাজ্য বিজেপির হেভিওয়েট নেতারা। অন্যদিকে গেরুয়া শিবিরের দাবি, রাজ্য প্রশাসন প্রতিহিংসাপরায়ণ হয়ে এই পদক্ষেপ গ্রহণ করছে। অন্যদিকে রাজনৈতিক মহলে এই নিয়ে শুরু হয়েছে জোর চর্চা। তবে করোনা পরিস্থিতিতে বিজেপি ভার্সেস তৃণমূল লড়াই যে জমে উঠেছে, সে কথা এক বাক্যে স্বীকার করে নিচ্ছে রাজনৈতিক মহল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!