এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > লকডাউনের মধ্যে বেশ কিছু ক্ষেত্রে শিথিলতা! কি কি বিষয় শিথিলতা! জেনে নিন!

লকডাউনের মধ্যে বেশ কিছু ক্ষেত্রে শিথিলতা! কি কি বিষয় শিথিলতা! জেনে নিন!



করোনা ভাইরাসকে আটকাতে ইতিমধ্যেই দেশজুড়ে 21 দিনের পর আবার টানা 19 দিনের লকডাউন করেছেন প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদি। তবে দীর্ঘদিন ধরে দেশ বন্ধ থাকায় দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি ভেঙে পড়বে বলে আশঙ্কা করছে বিভিন্ন মহল। আর এমতাবস্থায় দ্বিতীয় পর্যায়ে লকডাউন করার পরেই বেশ কিছু ক্ষেত্রে শীথিলতা আনা হবে বলে জানানো হয়েছে। যেখানে কেন্দ্রের পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল, কুড়ি এপ্রিল এই বিষয়ে স্পষ্ট নির্দেশিকা দিয়ে দেওয়া হবে। আর এবার কেন্দ্রের পক্ষ থেকে এই ছাড় দিয়ে দেওয়া হল। কিন্তু কি কি বিষয়ে ছাড় দিয়েছে কেন্দ্র?

জানা গেছে, ছাড় পাওয়া গেছে প্রাইভেট গাড়ির ক্ষেত্রে। তবে তা জরুরি প্রয়োজনে চারচাকা গাড়ির ক্ষেত্রে ড্রাইভার সহ তিনজন এবং দুই চাকার বাইকে একজন যাতায়াত করতে পারবেন বলে শর্তাধীন নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয়। অন্যদিকে শ্রমিকদের ক্ষেত্রেও বেশ কিছু ছাড় দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।

যেখানে নির্মাণ কাজের ক্ষেত্রে শ্রমিকদের ছাড় দেওয়া হয়েছে। তবে বাইরে থেকে কোনো শ্রমিক কোনো রাজ্যে আসতে পারবে না বলেও জানানো হয়েছে। এদিকে ট্রেন-বাস বিমান এই সমস্ত কিছু চালু না থাকলেও, ট্রেন এবং বিমানে পণ্য পরিবহন চালুর ব্যাপারে অনুমতি দিয়েছে কেন্দ্র। শুধু তাই নয়, আইটি সেক্টরে সঙ্গে যে সমস্ত কর্মচারীরা যুক্ত রয়েছেন, অফিসে 50% কর্মী কাজ করতে আসতে পারবেন। তবে এক্ষেত্রে তাদের সামাজিক দূরত্ব এবং মাস্ক পড়ে কাজ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এতদিন ই কমার্স সংস্থাগুলো পণ্য ডেলিভারি করতে পারছিল না।


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

কিন্তু এবার তাদের ডেলিভারিতে অনুমতি দিল কেন্দ্রীয় সরকার। তবে এক্ষেত্রে শুধুমাত্র অত্যাবশ্যকীয় পণ্য ডেলিভারির ব্যাপারেই তাদের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। তবে দ্বিতীয় পর্যায়ের লকডাউনে বেশ কিছু ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় সরকার ছাড় দিলেও, বয়স্ক এবং বাচ্চাদের ব্যাপারে তারা কিছুটা সচেতন। আর সেই কারণেই কেন্দ্রের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, সমস্ত কর্মচারীর বয়স ষাটের ওপরে এবং তাদের বাড়িতে বাচ্চা রয়েছেন, তারা যদি চান, তাহলে তারা ওয়ার্ক ফর হোম করতে পারেন।

এদিকে কেন্দ্রের পক্ষ থেকে বেশ কিছু ক্ষেত্রে শর্ত আরোপ করে শিথিলতা প্রয়োগ করা হলেও, দেশের যে সমস্ত জায়গা হটস্পট বলে চিহ্নিত করা হয়েছে, সেখানে কোনোরূপ শিথিলতা বরদাস্ত করা হবে না বলেও জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পরিস্থিতি আঁচ করে কেন্দ্রীয় সরকার দেশের অর্থনৈতিক মেরুদণ্ড যাতে ভেঙে না পড়ে, তার জন্য লকডাউনকে মান্যতা দিয়ে বেশ কিছু ক্ষেত্রে শিথিলতা অবলম্বন করলেন। এখন একদিকে লকডাউনকে মান্যতা এবং অন্যদিকে এই শর্তাধীন নিয়মকে মান্যতা দিয়ে মানুষ কতটা সমঝে চলেন, তার দিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!