এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > পৌরসভা নির্বাচনেও কি বাম-কংগ্রেস জোট! জেনে নিন বিস্তারিত

পৌরসভা নির্বাচনেও কি বাম-কংগ্রেস জোট! জেনে নিন বিস্তারিত



 

এখনও পর্যন্ত সেভাবে পৌরসভা নির্বাচনের দিনক্ষণ চূড়ান্ত হয়নি। কিন্তু নিজ নিজ আঙ্গিকে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে প্রতিটি রাজনৈতিক দল। আর এই পরিস্থিতিতে আসন সংরক্ষণের খসড়া তালিকা প্রকাশ হতে না হতেই, শিলিগুড়ি পৌরসভা নির্বাচন নিয়ে নিজেদের মধ্যে জোটের ব্যাপারে প্রস্তুতি শুরু করে দিল বামফ্রন্ট এবং কংগ্রেস।

সূত্রের খবর, বুধবার বিকেলে শিলিগুড়ির p.w.d. ইনস্পেকশন বাংলোয় কংগ্রেস এবং বামফ্রন্টের নেতা নেত্রীরা একটি বৈঠক করেন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন সিপিএমের রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য অশোক ভট্টাচার্য, দিলীপ সিং, শংকর ঘোষ। অন্যদিকে আরএসপির পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন রামভজন মাহাতো। একইভাবে কংগ্রেসের পক্ষ থেকে দলের প্রদেশ কমিটির কার্যকরী সভাপতি শঙ্কর মালাকার, শিলিগুড়ি পৌরসভার প্রাক্তন মেয়র গঙ্গোত্রী দত্ত, জেলা সাধারণ সম্পাদক জীবন মজুমদার এবং এআইসিসির সদস্য উদয় দুবে। আর সেই বৈঠকেই ভবিষ্যতের পৌরসভা নির্বাচন নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে জোটের ব্যাপারে বিস্তারিত আলোচনা হয়। জানা গেছে, দুই পক্ষই এই জোটের ব্যাপারে আশাবাদী।

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের একাংশ বলছেন, একদিকে তৃণমূল এবং অন্যদিকে বিজেপিকে কুপোকাত করতে বাম এবং কংগ্রেস শিলিগুড়ি পৌরসভা নির্বাচনের অনেক আগে থেকেই তাদের মধ্যেকার জোটের ব্যাপারটিকে চূড়ান্ত করে নিতে চাইছে। যার ফলে প্রার্থী ঠিক করে পরবর্তীতে তৃণমূল এবং বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াই দিয়ে ক্ষমতা দখল করতে চাইছে তারা।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে প্রদেশ কংগ্রেসের কার্যনির্বাহী সভাপতি তথা কংগ্রেস বিধায়ক শঙ্কর মালাকার বলেন, “বর্তমানে এই শহরে আমাদের ভোট 7 শতাংশের আশপাশে রয়েছে। বামপন্থীদেরও তাই। এই অবস্থায় শহরে একখভাবে লড়াই করে কোনো পক্ষেরই সুবিধা হবে না। তাই এবার পৌরসভায় সিপিএমের সঙ্গে জোট করেই লড়াই করা হবে। এই ব্যাপারে কিছু আলোচনা করা হয়েছে। পৌরসভার আসন সংরক্ষণের খসড়া তালিকা প্রকাশ হওয়ার পর আসন ভাগ নিয়ে আলোচনা হবে।” অন্যদিকে এই ব্যাপারে সিপিএমের রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য অশোক ভট্টাচার্য বলেন, “নির্বাচনী লড়াইয়ের প্রস্তুতি নিয়ে নানা আলোচনা করা হয়েছে।”

তবে আসন সংরক্ষণ যদি পদ্ধতি মেনে না করা হয়, তাহলে তারা বৃহত্তর আন্দোলনে যাবেন বলে জানিয়ে দিয়েছেন কংগ্রেসের শঙ্কর মালাকার। আর পৌরসভা নির্বাচনের অনেক আগে থেকেই বাম এবং কংগ্রেস উভয় নেতৃত্বদের একসাথে বৈঠক ঘিরে এখন শিলিগুড়ি শহরে ক্রমশ উত্তেজনার পারদ বাড়তে শুরু করেছে। গোটা পরিস্থিতি এখন কোন দিকে মোড় নেয়, বাম-কংগ্রেস জোটের ব্যাপারে এবং আসন সংরক্ষণ নিয়ে এই দুই দলের অভিমুখ ঠিক কি হয়! সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!