এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > আবার কি কলকাতার বুকে দেখা যাবে ইস্টবেঙ্গল বনাম ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড প্রদর্শনী ম্যাচ?

আবার কি কলকাতার বুকে দেখা যাবে ইস্টবেঙ্গল বনাম ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড প্রদর্শনী ম্যাচ?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট- বাংলা ও বাঙালির সঙ্গে ফুটবলের অবিচ্ছেদ্য সম্পর্ক আর তাই মোহনবাগান এবং ইস্টবেঙ্গলের জন্য বাঙালির উন্মাদনা চিরকালের তবে যদি হয় সেই পছন্দের ক্লাবটির জন্মশতবর্ষের উৎসব তাহলে তো কথাই নেই সম্প্রতি ইস্ট বেঙ্গল নিজের শতবর্ষের জন্মদিন উপলক্ষে পালন করল সেই শুভ খন এই ক্লাবটি ইতিহাস সম্পর্কে বলতে গেলে বলা যায়, ১৯৪০ সালের আগস্টে আত্মপ্রকাশ করা এই ক্লাবটি ১৯২২ সালে ইন্ডিয়ান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সাথে যুক্ত ছিল। ১৯৪২ সালে এটি প্রথম লিগের শিরোপা জিতেছিল এবং ১৯৯৬ সালে জাতীয় ফুটবল লীগের প্রতিষ্ঠাতা সদস্যও ছিল। ক্লাবটি তিনবার এই লিগ শিরোপা জিতেছে। এছাড়া তারা আটটি ফেডারেশন কাপ, তিনটি সুপার কাপ, একটি আইএফএ শিল্ড শিরোনাম এবং ডুরান্ড কাপ শিরোপা জিতেছে।

আর সেই ক্লাবেরই কিনা জন্মদিন! তাও আবার শতবর্ষ। তাহলেই ভাবুন, ব্যাপারটা কতটা উচ্ছাসের। সারাদিন অযচ্ছর শুভেচ্ছা বার্তার সঙ্গে এদিন মুখর হয়ে ছিল। তবে সেই আনন্দকে আরও এক ধাপ বাড়িয়ে এদিন শুভেচ্ছা বার্তা এসেছে সাত সমুদ্র ওপার থেকে। শুভেচ্ছাবার্তাটি পাঠিয়েছেন বিশ্ব ফুটবলের সবচেয়ে বড় ক্লাবগুলির মধ্যে অন্যতম ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড ইস্টবেঙ্গলকে তারা শতবর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়েছে। শুধু তাই নয়, এত কাণ্ডের পর আইএসএলে খেলার প্রাথমিক প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার জন্য আগাম অভিনন্দনও জানিয়েছেন তারা।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

আসলে ব্যাপারটা হল, আগে ইস্টবেঙ্গল এবং ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের মধ্যে একটি প্রি-সিজন ম্যাচ হওয়ার কথা ছিল। সেই কথা প্রায় পাকা হয়ে গিয়েছিল। সেই মত ইংল্যান্ডের ক্লাবটির প্রতিনিধিরা কলকাতায় এসে ইস্টবেঙ্গল কর্তাদের সঙ্গে কথাও বলে গিয়েছিলেন। কিন্তু করোনার জন্য তা আর শেষমেশ সফল হয়নি। তবে শুভেচ্ছা বার্তা পাওয়ার পর সেই ম্যাচ নিয়েই জল্পনা আবারও খবরে এনে দিয়েছে। ফলে মহামারীর আগে হওয়া ম্যাচটির যে ভবিষ্যতেও অনুষ্ঠিত হওয়ার একটা সম্ভাবনা রয়েছে, সেই কথাই কিন্তু প্রকাশ পেয়েছে। অন্যদিকে, ক্লাবটির এক কর্তার শুধু তাই নয়, সেই চিঠির বক্তব্য দেখেও কিন্তু উল্টো দিকের ক্লাবটির তরফের যে খেলা নিয়ে তারাও বেশ আগ্রহী, সেকথা কিন্তু অস্বীকার করে নেওয়া যায় না।

কারণ তাদের চিঠির বিষয়বস্তু যা, তার সারমর্ম করলে দাঁড়ায়, তারা ইস্টবেঙ্গল ক্লাব এবং ক্লাবের লক্ষ লক্ষ সমর্থককে শতবর্ষের শুভেচ্ছা জানাতেই এই চিঠি লিখছে। ক্লাবের ঐতিহ্য এবং ইতিহাস সম্পর্কে তারা প্রত্যেকেই জানেন। আর সম্প্রতি কলকাতায় সাইট ভিজিটের সময় তাদের ক্লাবের প্রতিনিধিদের ইস্টবেঙ্গলের সদ্যস্যারা যেভাবে স্বাগত জানিয়েছিলেন, সেজন্যও তাঁরা ধন্যবাদ জানিয়েছেন। এছাড়া আইএসএল নিয়েও লাল-হলুদকে তারা আগাম অভিনন্দন জানিয়েছে। সেই প্রসঙ্গে তাদের ব্যক্তব্য ইস্টবেঙ্গল এবছর আইএসএলে খেলার চেষ্টা করছে জেনে তারা খুবই খুশি আগামী দিনের জন্য তাদের আগাম অনেক শুভেচ্ছা রইল। তাহলেই বুঝে দেখুন ইনভেস্টর পাওয়া থেকে শুরু করে লিগে যোগদানের খবর, আর এরপর এমন একটা শুভেচ্ছা বার্তা, সব মিলিয়ে ইস্টবেঙ্গলের সময়টা বেশ ভালই যাচ্ছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!