এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > কলকাতার রাজপথে আক্রান্ত গেরুয়া শিবিরের হেভিওয়েট নেতারা, অভিযোগের তীর তৃণমূলের দিকে

কলকাতার রাজপথে আক্রান্ত গেরুয়া শিবিরের হেভিওয়েট নেতারা, অভিযোগের তীর তৃণমূলের দিকে



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – একুশের নির্বাচনের ঢাকে কাঠি পড়তেই শুরু হয়ে গেছে জোরদার তৎপরতা রাজনৈতিক শিবিরগুলোতে। ইতিমধ্যেই তৃণমূল-বিজেপি সহ অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলি নেমে পড়েছে প্রচারে। জোরদার প্রচার চলছে রাজ্যজুড়ে। আর তার সঙ্গে বাড়ছে উত্তেজনা। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গা থেকে তৃণমূল-বিজেপির রাজনৈতিক সংঘর্ষের খবর আসছে। আর এবার কলকাতার বুকে এমন একটি ঘটনা ঘটল যা নিয়ে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ল রাজনৈতিক মহলে। আজ গেরুয়া শিবিরের মিছিলে হেভিওয়েট বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী, অর্জুন সিং এর দিকে ধেয়ে এল ঝাঁটা, জুতো।

খুব স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনার পিছনে তৃণমূলী ষড়যন্ত্রের অভিযোগ জানিয়েছে গেরুয়া শিবির। সূত্রের খবর, বিজেপির মিছিল ঘিরে রীতিমতো রণক্ষেত্র হয়ে উঠেছে কলকাতার আমহার্স্ট স্ট্রিট। এদিন হৃষিকেশ পার্ক থেকে লেবুতলা পার্ক পর্যন্ত গেরুয়া শিবিরের একটি মিছিলের আয়োজন করা হয়। সেই মিছিলের পুরোভাগে ছিলেন তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতারা। বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং, বাবুল সুপ্রিয় ছাড়াও শুভেন্দু অধিকারী, রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতন হেভিওয়েট নেতারা এই মিছিলে শামিল হন। যথারীতি গেরুয়া শিবিরের স্লোগান জয় শ্রীরাম ধ্বনি শোনা যায় মিছিলের মধ্য থেকে। আর তারপরেই গেরুয়া শিবিরের রোড শো এগিয়ে যাওয়ার সাথে সাথে হঠাৎ করেই সামনে থাকা নেতাদের দিকে উড়ে আসে ঝাঁটা, জুতো।

বিজেপি নেতাদের গাড়িতেও আক্রমণ করা হয়েছে বলে শোনা যাচ্ছে। খুব স্বাভাবিকভাবেই গেরুয়া শিবির থেকে এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে প্রকাশ করা হয়েছে তীব্র ক্ষোভমিশ্রিত প্রতিক্রিয়া। অভিযোগের তীর মূলত তৃণমূলের দিকে। বলা হচ্ছে, ইচ্ছাকৃতভাবে তৃণমূল কর্মীরা এই অশান্তির সৃষ্টি করেছে। পাশাপাশি পুলিশের দিকেও অভিযোগের আঙুল তুলেছেন বিজেপি নেতারা। তাঁরা জানিয়েছেন, আমহার্স্ট স্ট্রিট থানার ঢিলছোঁড়া দূরত্বে এই ঘটনা ঘটলেও পুলিশ প্রশাসন চরম নিষ্ক্রিয়তা দেখিয়েছে।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

মিছিল ঘিরে তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষ এলাকাজুড়ে ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামাল দিতে লাঠিচার্জ করে বলে খবর। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, সময়ের সাথে সাথে ক্রমাগত তীব্র হচ্ছে তৃণমূল বিজেপির লড়াই। রাজনৈতিক মঞ্চ থেকে সেই লড়াই রাজনৈতিক সংঘর্ষের আকারে নেমে এসেছে রাজ্যের প্রতিটি জেলায়। ইতিমধ্যেই রাজ্যজুড়ে বিজেপির পরিবর্তন যাত্রা ঘিরে অপ্রীতিকর পরিস্থিতি তৈরি হচ্ছে বলে খবর। মিনাখাঁ ও উত্তর 24 পরগনায় কাঁচরাপাড়ায় ইতিমধ্যেই অশান্তি ছড়িয়েছে। বিজেপি নেতা কর্মীরা আক্রান্ত হচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

আর এবার খাস কলকাতার বুকে যেভাবে বিজেপি নেতৃত্ব হামলার মুখে পড়ল, তা যে আগামী দিনে তৃণমূল বিজেপির তরজাকে আরও কয়েকগুণ বাড়িয়ে দেবে সে ব্যাপারে কোন সন্দেহ নেই। রাজনৈতিক মহলের মতে, একুশের বিধানসভার নির্বাচন সময়ের সাথে সাথে অত্যন্ত স্পর্শ কাতর হয়ে উঠছে। যার ফলস্বরূপ রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় ক্রমাগত রাজনৈতিক সংঘর্ষের খবর সামনে আসছে। তবে খাস কলকাতার বুকে বিজেপির হেভিওয়েট নেতারা যেভাবে আক্রান্ত হলেন, তা এযাবতকালের অন্যতম উল্লেখযোগ্য ঘটনা বলে পরিগণিত হতে চলেছে।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!