এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কোলকাতা পুরসভার ঠিকাদার ও টেন্ডার চক্র ভাঙতে বড়সড় পদক্ষেপ শাসকদলের

কোলকাতা পুরসভার ঠিকাদার ও টেন্ডার চক্র ভাঙতে বড়সড় পদক্ষেপ শাসকদলের



গত কয়েক মাসে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ন প্রকল্পের কাজে কোলকাতা পুরসভার তরফে উদ্যোগ নেওয়া হলেও সেই কাজের টেন্ডার করতে গিয়ে প্রবল সমস্যায় পড়েছেন পুর প্রশাসনের কর্তাব্যাক্তিরা। সূত্রের খবর, প্রথম দফায় কমপক্ষে তিনটি টেন্ডার জমা পড়ার কথা থাকলেও বেশিরভাগ ক্ষেত্রে সেই টেন্ডার জমা না পড়ায় পুরসভা নিয়মানুযায়ী সেই টেন্ডার বাতিল করতে বাধ্য হচ্ছে। পাশাপাশি দ্বিতীয় দফায় টেন্ডার ডাকা হলে ঠিকাদার সংস্থার অঙ্গুলিহেলনে তাতে একজন মাত্র অংশ নেওয়ায় বাধ্য হয়ে তিনি যা দর চাইছেন সেই দরেই বরাত দিতে হচ্ছে। আর এতেই চরম সমস্যায় পড়েছেন পুর প্রশাসনিক আধিকারিকেরা। আর তাই এই সমস্যা মেটাতে আগামী 11 জুলাই বুধবার পুরভবনে সমস্ত ঠিকাদার সংস্থাকে নিয়ে একটি বৈঠকে বসছেন পুর কমিশনার খলিল আহমেদ।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

সূত্রের খবর, এজন্য রাজ্য সরকারের পূর্ত, পুর ও নগরোন্নয়ন, সেচ, পঞ্চায়েত সহ বিভিন্ন দপ্তরের প্রধান সচিবদের পুরসভার তরফ থেকে দেওয়া এক একটি চিঠিতে বলা হয়েছে, এই দপ্তরের নথিভুক্ত ঠিকাদারেরা যেন বৈঠকে যোগ দেন। রাজ্য উদ্যোগী হলে পৌরসভার পক্ষে কাজ করতে সমস্যা হবে না বলেও জানানো হয়েছে। অন্যদিকে চিঠি দেওয়ার কথা স্বীকার করলেও এব্যাপারে পুর কমিশনার বাড়তি কিছু না বললেও পুরসভার অনেকেই মনে করছেন যে পুর ইতিহাসে এ ধরনের বৈঠক প্রথমবার। ওবে এই বৈঠকের ক্ষেত্রে অনেক ধোঁয়াশাও সৃষ্টি হয়েছে। পৌরসভার একাংশ আধিকারিকদের মতে, নিজেদের মধ্যে যেভাবে যোগসাজশ করছে এই ঠিকাদারি সংস্থাগুলি এবং রাজনৈতিক দাদাদের মধ্যস্ততায় প্রায় প্রত্যেক ঠিকাদার সংস্থার পকেটে টাকা ঢুকছে। তাই নিজৈদেল ভাগের টাকা থেকে বঞ্চিত হয়ে তাঁরা কি আদৌ এই বৈঠকে যোগ দেবেন? তবে এসমস্ত কিছুর জন্যই অপেক্ষা করতে হবে আগামী 11 ই জুলাই পর্যন্ত।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!