এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > বিজেপি > কিভাবে বিজেপিকে হারানো হয়েছে, ফাঁস করলেন শুভেন্দু!

কিভাবে বিজেপিকে হারানো হয়েছে, ফাঁস করলেন শুভেন্দু!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – সম্প্রতি গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়েছেন তিনি। আর বিজেপিতে যোগ দেওয়ার সাথে সাথেই একের পর এক সভা থেকে প্রাক্তন দল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে বোমা ফাটাতে দেখা যাচ্ছে সেই শুভেন্দু অধিকারীকে। বিভিন্ন সভা থেকে তৃণমূলকে কখনও “লিমিটেড কোম্পানি” আবার কখনও বা “তোলাবাজ ভাইপো হটাও” বলে মন্তব্য করছেন তিনি।

আর এই পরিস্থিতিতে ঝাড়গ্রামের সভা থেকে বিজেপিকে কিভাবে হারানো হয়েছিল, সেই ব্যাপারে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী। সূত্রের খবর, সোমবার বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর প্রথম ঝাড়গ্রামে গিয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। আর সেখানেই বক্তব্য রাখতে গিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসকে ব্যাপকভাবে অস্বস্তিতে ফেলে দেন তিনি।

এদিন শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ঝাড়গ্রাম ও পুরুলিয়া জেলা পরিষদে বিজেপি জয়লাভ করেছিল। রাতের অন্ধকারে পুলিশ নিয়ে গিয়ে গননায় হারানো হয়েছিল। আমি নিজে তার সাক্ষী। বস্তুত, এমনিতেই নির্বাচনে কারচুপি সহ একাধিক অভিযোগ ওঠে শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। কিন্তু এবার জার্সি বদল করার সাথে সাথেই শুভেন্দু অধিকারী যেভাবে বিজেপিকে জোর করে হারানো হয়েছে বলে দাবি করলেন, তাতে তৃণমূল ব্যাপকভাবে চাপে পড়ল বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

আগামী দিনে ঝাড়গ্রাম জেলার প্রতিটি বিধানসভা কেন্দ্রে বিজেপি জিতবে বলেও আত্মপ্রত্যয়ী মনোভাব পোষণ করতে দেখা যায় শুভেন্দু অধিকারীকে। তিনি বলেন, “ঝাড়গ্রাম জেলায় যে চারটা বিধানসভা আছে, সেখানে প্রত্যেকটাতে প্রায় 50 হাজারের বেশি ভোটে বিজেপি জয়লাভ করবে। আমি এসেছি মার্জিন বাড়ানোর জন্য। জেতার জন্য নয়। জেতার জন্য এরাই কাফি।”

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

স্বাভাবিকভাবেই নতুন দলে যোগ দেওয়ার সাথে সাথেই যেভাবে নিজের প্রাক্তন দলের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ করে সরব হচ্ছেন শুভেন্দু অধিকারী, তাতে রাজ্য রাজনীতিতে এখন শোরগোল ক্রমশ বাড়তে শুরু করেছে। পর্যবেক্ষকদের একাংশ বলছেন, জঙ্গলমহল সহ উত্তরবঙ্গের একাধিক জেলার পর্যবেক্ষক ছিলেন এই শুভেন্দু অধিকারী‌।

তৃণমূলের পক্ষ থেকে দলের অবস্থান ভালো করতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেই শুভেন্দু অধিকারীর উপর ভরসা করতে শুরু করেছিলেন। যার ফলস্বরুপ তিনি বিভিন্ন জেলায় দায়িত্ব নিয়ে সংগঠনকে চাঙ্গা করেছিলেন। কিন্তু এবার তৃণমূল কংগ্রেস থেকে বেরিয়ে বিজেপিতে যোগদান করার সাথে সাথেই ঝাড়গ্রাম এবং পুরুলিয়া জেলা পরিষদে বিজেপি জয়লাভ করেছিল বলে বিস্ফোরক দাবি করলেন রাজ্যের এই প্রাক্তন মন্ত্রী।

স্বাভাবিক ভাবেই এতদিন বিরোধীদের পক্ষ থেকে ভোট এবং গণনায় কারচুপি হয়েছে বলে তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছিল। আর শুভেন্দু অধিকারীর মন্তব্যের পর সেই অভিযোগ যে কিছুটা হলেও সত্যি, তা প্রমাণিত হয়ে গেল বলেই দাবি করছে বিজেপির ঘনিষ্ঠ মহল। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, শুভেন্দু অধিকারীর এই মন্তব্যে তৃণমূলের অস্বস্তি কতটা বৃদ্ধি পায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!