এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > খোলা মঞ্চে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের অনুমতি, তবে রয়েছে একগুচ্ছ শর্ত, জেনে নিন

খোলা মঞ্চে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের অনুমতি, তবে রয়েছে একগুচ্ছ শর্ত, জেনে নিন



আপনাদের সুবিধার্থে খবরের শেষে বিধানসভা ২০২১ উপলক্ষে আমাদের করা সর্বশেষ সমীক্ষার প্রতিটির লিঙ্ক দেওয়া আছে।

আপনার মতামত জানান -

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – রাজ্য ও দেশজুড়ে করোনা সংক্রমনের কারণে লোক সমাগম বন্ধ রাখতে দীর্ঘ সময় ধরে বিভিন্ন রকম সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান বন্ধ রাখা হয়েছে। এর ফলে রোজগার হারিয়েছেন সংগীত, নাটক সহ বিভিন্ন শিল্পকলার সঙ্গে যুক্ত শিল্পীরা ও এই শিল্পের সঙ্গে সংযুক্ত বহু পেশার মানুষেরা। এবার, আনলক পর্বে খোলা মঞ্চে সংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের অনুমতি দেওয়া হল রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে। এর সঙ্গে সঙ্গেই সভা গৃহ বা অডিটোরিয়ামে ৫০ % দর্শক নিয়ে অনুষ্ঠান করার অনুমতি দেয়া হলো। মেলার আয়োজনের ক্ষেত্রেও দেয়া হলো ছাড়পত্র। কিন্তু, সর্বত্রই সামাজিক দূরত্ব বিধি মেনে চলার কঠোর শর্ত দেয়া হলো। তবে, দীর্ঘকাল ধরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান বন্ধ থাকার পর, এবার তার ছাড়পত্র মেলায় যথেষ্ট আনন্দিত শিল্পীমহল।

করোনা সংক্রমনের কারণে দীর্ঘ সময় ধরে রাজ্যে বন্ধ আছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন। আনলক পর্বে সিনেমা হল গুলো খোলার পর সংগীত, নাটক সহ বিভিন্ন শিল্পকলার সঙ্গে যুক্ত শিল্পীরা মুখ্যমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ জানিয়েছিলেন যে, এবার তাঁদেরকেও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করার অনুমতি দেয়া হোক রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে। করোনা সংক্রমণ ও লকডাউনের কারণে দীর্ঘ সময় ধরে বন্ধ আছে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। একারণেই উপার্জন হারিয়েছেন বিভিন্ন শিল্পী ও এই শিল্পের সঙ্গে জড়িত বিভিন্ন পেশার অসংখ্য মানুষ।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এবার শিল্পীদের ও এই শিল্পের সঙ্গে জড়িত বিভিন্ন পেশার মানুষের কথা ভেবেই রাজ্য সরকার করোনা সংক্রান্ত বিধি বা স্বাস্থ্যবিধি মেনে খোলা মঞ্চে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের অনুমতি দিলো। রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় জানালেন যে, যাত্রা, খোলা মঞ্চ, আবৃত্তি, লোক শিল্পী সহ শিল্পকলার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের উপার্জনের ব্যবস্থা করতেই করোনা সংক্রান্ত বিধি মেনে খোলা মঞ্চে অনুষ্ঠানের অনুমতি দেয়া হলো। এর মধ্যেই রাজ্যের সমস্ত জেলার জেলাশাসক ও পুলিশ সুপার ও কলকাতা সহ বিভিন্ন কমিশনারেটের পুলিশ কমিশনারদেরকে এ বিষয়টি জানানো হলো। রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় জানালেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার।

সংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করার অনুমতি দেওয়ায় স্বস্তির হাওয়া বয়ে গেল শিল্পী মহলে। কিন্তু রাজ্যে করোনার সংক্রমণ কিছুতেই রোধ করা যাচ্ছে না। সম্প্রতি রাজ্যের মোট করোনা সংক্রমণ প্রায় সাড়ে চার লক্ষের কাছাকাছি পৌঁছে গেছে। আনলক পর্বেও কিছুতেই কমছে না দৈনিক করোনা সংক্রমনের হার। গত ২৪ ঘণ্টায় পশ্চিমবঙ্গে ৩৬৩৯ জন নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় মৃত্যু ঘটেছে ৫৩ জনের। সম্প্রতি রাজ্যে করোনার সুস্থতার হার ৯২.৫৪ শতাংশ। তাই এই পরিস্থিতিতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের অনুমতি দেয়া হলেও, অনুষ্ঠানের দর্শক সমাগম কতটা ঘটবে? সে বিষয়ে সন্দেহ থেকেই যাচ্ছে।

একনজরে দেখে নিন আমাদের সর্বশেষ বিধানসভা ২০২১ ওপিনিয়ন পোল –

# মালদহ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# উত্তর দিনাজপুরে জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# জলপাইগুড়ি ও কালিম্পঙ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# আলিপুরদুয়ার ও দার্জিলিং জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# কুচবিহার জেলার ওপিনিয়ন পোল –

আপনার মতামত জানান -
আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!