এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > বিজেপি > খোদ দিলীপের গড়েই বড়সড় ধাক্কা খেল বিজেপি! প্রভাবশালী নেতা সহ ২ হাজার কর্মী যোগ দিলেন তৃণমূলে

খোদ দিলীপের গড়েই বড়সড় ধাক্কা খেল বিজেপি! প্রভাবশালী নেতা সহ ২ হাজার কর্মী যোগ দিলেন তৃণমূলে



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – পশ্চিমবঙ্গে আগামী ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচন উপলক্ষে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলগুলোর কর্মীদের মধ্যে শুরু হয়ে গেছে দলবদলের হিড়িক। বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের কর্মীরা অন্য দলের কর্মীদের দের যেন তেন প্রকারেণ নিজেদের দলে ভিড়িয়ে এনে নিজেদের দলের উদরপূর্তিতে সর্বদা ব্যস্ত।অন্য দল থেকে নিজেদের দলের কর্মী সদস্য ভাঙিয়ে আনার এই কাজে এখনো পর্যন্ত সর্বাধিক সফলতা পেয়েছে পশ্চিমবঙ্গের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। গত প্রায় দু সপ্তাহ ধরে একনাগারে হাজার হাজার বিজেপি কর্মীদের বিজেপি থেকে তৃণমূল ভাঙিয়ে আনতে সক্ষম হয় শাসকদল। অবশ্য কিছুদিন আগে এর বিপরীত চিত্রও দেখা যায়।

যখন দেখা যায়, কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠকের পর শক্তিশালী ও আত্মবিশ্বাস বিজেপি তৃণমূল ও অন্যান্য দলের অসংখ নেতাকর্মীদের নিজদল ভুক্ত করেছেন। কিন্তু এর মধ্যেই আবার বিজেপির জন্য ঘটে গেল এক বিরাট ঝটকা। বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের এলাকাতেই ২ জন প্রবাবশালী বিজেপি নেতা তাদের প্রায় ২০০০ জন অনুগামী সহ বিজেপি ত্যাগ করে যোগদান করলেন তৃণমূলে।

সংবাদ সূত্রে জানা গেছে, গতকাল শনিবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার খড়গপুর এক ব্লকের রুপনারায়নপুর তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে একটি বিশেষ রাজনৈতিক কর্মী সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছিল। আর এই সম্মেলন মঞ্চেই খড়্গপুরের এক ব্লকের বিজেপি শাসনাধীন হরিয়াতাড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান চন্ডী মুর্মু , বিজেপির খড়্গপুর এক ব্লকের মহিলা মোর্চা সভাপতি সুলেখা প্রধান ও বিজেপির জনৈক প্রভাবশালী নেতা অসীম কপাটের তাদের ২০০০ জন অনুগামী সহ যোগ দিলেন তৃণমূলে। রীতিমতো ঘটে করে, অনুষ্ঠানিকভাবে ভাবে চললো তাদের এই তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদানের পর্বটি। আর একসঙ্গে এতজনের যোগদানে বিরাট উচ্ছাস দেখা গেল তৃণমূল শিবিরের মধ্যে।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

গতকালের এই সম্মেলনে বিজেপি ছেড়ে আসা নবাগত তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীদের হাতে তৃণমূলের পতাকা তুলে দিলেন পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি অজিত মাইতি। তিনি ছাড়াও এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন খড়্গপুরের বিধায়ক দিনেন রায়, গুরুত্বপূর্ণ তৃণমূল কংগ্রেস নেতা নির্মল ঘোষ, গোপাল সাহা সহ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ নেতৃবৃন্দ। তৃণমূল কংগ্রেসের নবাগত দলীয় কর্মীদের দলীয় পতাকা তুলে দেওয়ার পর তাদের উদ্দেশ্যে জেলা সভাপতি অজিত মাইতি বলেছেন, ” আপনারা দলের হয়ে কাজ করুন,দলে আপনারা যোগ্য সম্মান পাবেন।”

এরপরই তৃণমূলের জেলা সভাপতি অজিত মাইতি বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষকে নিয়ে ব্যঙ্গ করে বলেছেন যে, বিজেপির এই ভাঙ্গনের পর থেকে থেকে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ আর ফ্রন্টফুটে নয় ব্যাকফুটে খেলবেন। বিজেপির রাজ্য সভাপতিকে ব্যক্তি আক্রমণ করতেও তিনি ছাড়েননি। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, ” মানুষ মিথ্যাবাদী দিলীপ ঘোষকে আর বিশ্বাস করে না। ”

এ প্রসঙ্গে তাকে আরো বলতে শোনা গেছে যে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজনৈতিক আদর্শে ও সেই সঙ্গে তাঁর সুনিপুন কর্ম কৃতিত্বে অনুপ্রাণিত হয়ে উন্নয়নের কান্ডারী হতেই বহু মানুষ বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করছেন।একদিনে দুজন প্রভাবশালী নেতা সহ ২০০০ জন বিজেপি সদস্যের বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান এর বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক উল্লসিত তৃণমূলের জেলা সভাপতির উক্তি, ” আগামী এক মাসে বিজেপি কে দূরবীন দিয়ে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় খুঁজতে হবে, তখন দীলিপবাবু কোথাও যাওয়ার রাস্তা খুঁজে পাবেন না।”

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!