এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > কেন্দ্রীয় বিজেপি মন্ত্রীর উপস্থিতিতে সিনে তারকাদের ঢল, টলিপাড়াতেও কি বিজেপির দাপট শুরু?

কেন্দ্রীয় বিজেপি মন্ত্রীর উপস্থিতিতে সিনে তারকাদের ঢল, টলিপাড়াতেও কি বিজেপির দাপট শুরু?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – একুশের বিধানসভা নির্বাচনের পরিপ্রেক্ষিতে এই মুহূর্তে আড়াআড়িভাবে বিভক্ত টলিপাড়া। কখনো রুদ্রনীল ঘোষকে দেখা যাচ্ছে গেরুয়া শিবিরে যোগদান করতে, কখনো আবার সৌরভ দাসকে দেখা যাচ্ছে ঘাসফুল শিবিরে। মোদ্দাকথা, দলবদলের হওয়ায় এই মুহূর্তে রাজনৈতিক মহলের সাথে সাথে টলিপাড়াতেও উঠেছে ব্যাপক ঝড়। সম্প্রতি প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় থেকে শুরু করে মিঠুন চক্রবর্তীর দরজায় কড়া নেড়েছে গেরুয়া শিবির। পাশাপাশি আজ অভিনেতা, পরিচালক ও প্রযোজক অরিন্দম শীলের সাথে দেখা করেন বিজেপি নেতা শঙ্কুদেব পন্ডা। তবে আজ নজর কেড়েছে অন্য একটি অনুষ্ঠান।

আজকে কলকাতার পাঁচতারা হোটেলে কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকরের ডাকে সাড়া দিয়ে টলিউড থেকে এক ঝাঁক অভিনেতা-অভিনেত্রীকে দেখা গেল গেরুয়া শিবিরের ছত্রছায়ায়। যা রাজনৈতিক মহলেও নতুন জল্পনার জন্ম দিয়েছে। সূত্রের খবর, সোমবার কেন্দ্রীয় ফিল্ম ডেভলপমেন্ট কর্পোরেশনের তরফ থেকে আয়োজিত অনুষ্ঠানে কার্যত গোটা টলিউডকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল শহরের এক পাঁচতারা হোটেলে। সেই আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে দেখা গিয়েছে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত থেকে আবির চট্টোপাধ্যায়, পাওলি দাম সহ একাধিক অভিনেতা-অভিনেত্রী এবং নামকরা টলি প্রযোজক-পরিচালকদের।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

পাশাপাশি যে সমস্ত তারকারা ইতিমধ্যেই গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়েছেন, তাঁরা তো ছিলেনই। যেমন- রুদ্র,হিরণ,যশসহ বাকিরা। তবে এদিন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর অনুষ্ঠানে তৃণমূল ঘনিষ্ঠ বহু তারকাদের উপস্থিত থাকতে দেখা যায়। আবার এমন অনেকেই ছিলেন যারা তৃণমূল বা বিজেপি কোন দলের ছত্রছায়াতেই নেই। তবে এদিনের অনুষ্ঠানে দেখা গিয়েছে শঙ্কুদেব পন্ডা, রূপা গঙ্গোপাধ্যায়, স্বপন দাশগুপ্ত, বাবুল সুপ্রিয়র মতন হেভিওয়েট বিজেপি নেতাদের। প্রসঙ্গত, গেরুয়া শিবির ইতিমধ্যেই দাবি করেছে টলিপাড়ায় তৃণমূলের আধিপত্য এখন আর নেই। যথারীতি গেরুয়া শিবিরের দাবিকে অনেকাংশে সত্যি করে এদিনের অনুষ্ঠানে দেখা গিয়েছে এক ঝাঁক টলিউড তারকাকে।

তবে এদিনের অনুষ্ঠানটির সাথে রাজনৈতিক কোনো যোগ নেই বলেই দাবি করেছেন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। শুধুমাত্র আগামী দিনে বাংলা চলচ্চিত্রকে কিভাবে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায়, তার জন্যই পাঁচতারা হোটেলে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর উপস্থিতিতে হয়ে গেল ঝাঁ-চকচকে অনুষ্ঠান। ওয়াকিবহাল মহলের মতে, যেভাবে টলি পাড়াতেও শুরু হয়েছে দলবদল কিংবা যোগদান পর্ব, সেদিকে তাকালে আজকের অনুষ্ঠান কিন্তু একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগে যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে।

 

আপনার মতামত জানান -

ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!