এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > কেন্দ্রের বিরুদ্ধে আজ অভিনব প্রতিবাদে মমতা, স্কুটি করে যাবেন নবান্নে!

কেন্দ্রের বিরুদ্ধে আজ অভিনব প্রতিবাদে মমতা, স্কুটি করে যাবেন নবান্নে!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – নির্বাচনের সময় যত এগিয়ে আসছে, ততই বিজেপির ওপর চাপ বাড়াতে শুরু করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। রাজ্যের ক্ষমতা যখন তৃণমূলের হাত থেকে নিজেদের দখলে নিতে নানা ব্লু প্রিন্ট সাজাতে শুরু করেছে গেরুয়া শিবির, তখন পাল্টা কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে নানা জনবিরোধী নীতি বিষয় তুলে ধরে কটাক্ষ করতে শুরু করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এবার বিজেপিকে চাপে ফেলে দিতে পেট্রোল, ডিজেল এবং রান্নার গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে অভিনব উদ্যোগ নিতে চলেছেন তৃণমূল নেত্রী তথা পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী।

সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার এই মূল্যবৃদ্ধির জেরে ইলেকট্রিক স্কুটিতে করে নবান্নে যাবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। স্বাভাবিকভাবেই তার এই ধরনের উদ্যোগ এখন রীতিমত নজরকাড়া বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের কাছে।বলা বাহুল্য, বর্তমানে প্রতিনিয়ত রাজ্যে আসতে শুরু করেছেন বিজেপির কেন্দ্রীয় স্তরের হাইপ্রোফাইল নেতারা। সম্প্রতি রাজ্যে এসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তৃণমূল সরকারের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনায় অস্বস্তি বেড়েছে ঘাসফুল শিবিরের। বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিজেপির পক্ষ থেকে এই ধরনের কটাক্ষ বিড়ম্বনা বাড়িয়ে দিচ্ছে তৃণমূলের। আর এই পরিস্থিতিতে সেই বিজেপিকে পাল্টা চাপে রাখতে মূল্যবৃদ্ধির ঘটনায় নিজের প্রতিবাদ জানানোর জন্য ইলেকট্রিক স্কুটিতে করে নবান্নে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকালে হাজরা থেকে ইলেকট্রিক স্কুটিতে করে নবান্নে যাবেন মুখ্যমন্ত্রী। যেখানে চালকের আসনে থাকবেন রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

পর্যবেক্ষকদের অনেকে বলছেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই পদ্ধতি প্রয়োগ করে আদতে বিজেপিকে চাপে ফেলতে চাইছেন। তিনি বার্তা দিতে চাইছেন যে, মূল্যবৃদ্ধির এই সংকটকালে মানুষ খুব একটা নিরাপদ অবস্থানে নেই এবং তার জন্য যে বিজেপি সরকার প্রবলভাবে দায়ী, তা বুঝিয়ে দিতে চাইছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আর তাই আজ নবান্নে যাওয়ার সময় ইলেকট্রিক স্কুটিতে করে এগিয়ে মূল্যবৃদ্ধির ঘটনার প্রতিবাদ করতে দেখা যাবে বাংলার প্রশাসনিক প্রধানকে। যা বাংলার বিরোধী দল ভারতীয় জনতা পার্টি তথা কেন্দ্রের শাসকদল গেরুয়া শিবিরের অস্বস্তি কিছুটা হলেও বাড়াবে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!