এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > কেমন আছেন বাঙালির ফেলুদা? চিকিৎসকরা কি বলছেন জেনে নিন

কেমন আছেন বাঙালির ফেলুদা? চিকিৎসকরা কি বলছেন জেনে নিন



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – প্রায় মাস খানেক ধরেই কলকাতার বেলভিউ হাসপাতালে ভর্তি আছেন প্রবাদপ্রতিম অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। অভিনেতা ৮৫ বছরের পৌড়। শরীরে আছে ক্যান্সার ও শ্বাসকষ্টের মতো গুরুতর সমস্যা। এর উপরে করোনা হানা দিয়েছিল তাঁর শরীরে। সম্প্রতি তিনি করোনা মুক্ত হয়েছেন ঠিকই, কিন্তু একাধিক সমস্যায় জর্জরিত আছেন তিনি। তাঁকে আরোগ্য করে তুলতে সবরকম চেষ্টা চালিয়েও বিশেষ আশার আলো দেখতে পাচ্ছেন না হাসপাতালের চিকিৎসকেরা। চিকিৎসকদের মধ্যে অনেক সময়ই হতাশা কাজ করছে। বেশকিছু চিকিৎসক মনে করেছেন, যত বেশি সময় ধরে হাসপাতালে থাকবেন সৌমিত্র বাবু, ততই তাঁর সম্পূর্ণভাবে সুস্থ হয়ে ওঠার সম্ভাবনা কমে আসতে থাকবে। তবে হাল ছাড়ছেন না চিকিৎসকেরা। তাঁরা তাঁদের চেষ্টার কোনো ত্রুটি রাখছেন না।

দীর্ঘদিন ধরেই সংকটজনক অবস্থায় পড়ে আছেন বাঙালির ফেলুদা। অভিনেতার আরোগ্য কামনা করে ২৬ দিন ধরে তাঁর অনুগামীরা প্রার্থনা প্রার্থনা করছেন। ১৫ জন সদস্যের একটি বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের দল সব সময় চেষ্টা চালাচ্ছেন তাঁকে আরোগ্য করে তুলতে। অন্যদিকে বেলভিউ হাসপাতালে পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের অবস্থা এখনো সঙ্কটজনক। তবে আশার কথা এটাই যে, তাঁর হৃদযন্ত্র সঠিকভাবে কাজ করছে। অন্যদিকে ডায়ালিসিস করার পর তাঁর কিডনি দুটিও কাজ করতে শুরু করেছে। সেইসঙ্গে তাঁর শরীরে এন্টিবায়োটিক গুলোও কাজ করছে ঠিকমত। কিডনি কাজ করছে বলেই গতকাল শুক্রবার তৃতীয়বার ডায়ালিসিস করানোর কথা ছিল তাঁর, কিন্তু শেষ পর্যন্ত ডায়ালিসিস করানো হয়নি। আজ শনিবার নেফ্রোলজিস্টদের বোর্ড তাঁকে পুনরায় কবে ডায়ালিসিস করা হবে সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এদিকে আবার স্নায়বিক সমস্যায় জর্জরিত আছেন সৌমিত্র বাবু আজ থেকে এ বিষয়ে নতুন থেরাপি শুরু করতে চলেছেন চিকিৎসকেরা। এই নতুন থেরাপিতে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় কতটা সাড়া দেন, সেদিকে লক্ষ্য রাখবেন চিকিৎসকেরা। এ প্রসঙ্গে অভিনেতার চিকিৎসার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডের প্রধান চিকিৎসক অরিন্দম কর জানালেন, ” হাসপাতালের আইসিইউতে দীর্ঘদিন থাকা এবং চিকিত্সাজনিত হস্তক্ষেপ ওঁনার শরীরের উপর একটা কঠিন প্রতিক্রিয়া তৈরি করছে। সবরকম চেষ্টা সত্ত্বেও প্রত্যেকটা চলে যাওয়া দিনের সঙ্গে ওঁনার সুস্থ হয়ে ওঠবার চান্স কমে যাচ্ছে। আমরা আমাদের সেরাটা দেওয়ার চেষ্টা করছি। দেখা যাক। গত সোমবার থেকে ভেন্টিলেশন সাপোর্টে রয়েছেন সৌমিত্রবাবু। শনিবার থেকে আমরা নতুন স্ট্র্যাটেজি তৈরি করে ওঁনার স্নায়বিক সমস্যার উন্নতি ঘটানোর চেষ্টা করব। এনসেফ্যালোপ্যাথির সমস্যা কাটানোর জন্য আমরা চেষ্টা চালাচ্ছি।”

আজ সকালে অভিনেতাকে দেখতে হাসপাতালে এসেছিলেন তাঁর পরিবারের সদস্যরা। আজ নতুন করে তাঁর জ্বর আসেনি। হার্টরেটও ভালো আছে তাঁর, রক্তচাপও নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। কিন্তু গ্লাসগো কোমা স্কেল ১০ হয়ে গিয়েছে তাঁর। তবে কিডনি কাজ করতে শুরু করার ফলে ইউরিয়া ও ক্রিয়েটিনিন স্বাভাবিক রয়েছে তাঁর। সকলেই প্রার্থনা করছেন অভিনেতা দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠুন। যদিও, সে বিষয়ে কোনো আশার আলো দেখাতে পারছেন না হাসপাতালের চিকিৎসকেরা। তবে চিকিৎসকেরা তাঁদের সমস্ত পরিশ্রম ঢেলে দিচ্ছেন তাঁকে সুস্থ করে তুলতে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!