এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > কাটমানির পর তৃণমূলকে ভ্যাকসিন চোর বললেন দিলীপ! জোর শোরগোল!

কাটমানির পর তৃণমূলকে ভ্যাকসিন চোর বললেন দিলীপ! জোর শোরগোল!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – সম্প্রতি করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিনের টিকাকরণ কর্মসূচি শুরু হয়েছে। শনিবার গোটা দেশ এবং রাজ্যজুড়ে টিকাকরণ কর্মসূচি শুরু হওয়ার সাথে সাথেই তৈরি হয়েছে বিতর্ক। অনেক জায়গাতেই তৃণমূলের অনেক জনপ্রতিনিধিদের প্রথম ধাপে করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন নেওয়ার অভিযোগ উঠতে দেখা গেছে। আর এই পরিস্থিতিতে বিজেপির পক্ষ থেকে সেই তৃণমূলের বিরুদ্ধে করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন লুটের অভিযোগ করা হয়েছে। আর শনিবার সেই ভ্যাকসিন প্রদানের শুরুর দিন এইরকম নানা ঘটনার সাক্ষী থাকলেও, রবিবার সেই বিষয়ে সরব হলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। যেখানে কাটমানির পর তৃণমূলের বিরুদ্ধে ভ্যাকসিন চুরির অভিযোগ তুললেন তিনি। যে ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে গোটা রাজ্য জুড়ে।

সূত্রের খবর, আজ চৌরঙ্গীর চা-চক্রে উপস্থিত হন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। আর সেখানেই করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করতে দেখা যায় তাকে। বিজেপির রাজ্য সভাপতি বলেন, “তৃণমূল নেতারা এতদিন কাটমানি নিত, টাকা নিত, এখন ভ্যাকসিন নিয়ে নিচ্ছে।” স্বাভাবিকভাবেই দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্যে নতুন করে চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে রাজ্য জুড়ে। অনেকে বলছেন, বিজেপির রাজ্য সভাপতির এই মন্তব্যে তৃণমূল কংগ্রেস অনেকটাই চাপে পড়ে গেল। এই গোটা ঘটনায় শাসক দল আগামী দিনে বিজেপির যে আরও ভয়াবহ তোপের মুখে পড়তে পারে, সেই ব্যাপারে নিশ্চিত বিশেষজ্ঞরা।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অনেকে বলছেন, নির্বাচনের সময় যত এগিয়ে আসছে, ততই শাসক-বিরোধী তরজা বৃদ্ধি পেতে দেখা যাচ্ছে। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে এতদিন তৃণমূলের বিরুদ্ধে কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ তুলতে দেখা যেত ভারতীয় জনতা পার্টিকে। কিন্তু এবার করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন বের হওয়ার সাথে সাথেই যেভাবে একাধিক জনপ্রতিনিধিকে প্রথমদিকে ভ্যাকসিন নিতে দেখা গেছে, তাতে সরব হয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি। যার ফলস্বরুপ কাটমানি নেওয়ার পর এবার তৃণমূল কংগ্রেস ভ্যাকসিন নিয়ে নিচ্ছে বলে বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন মেদিনীপুরের বিজেপি সাংসদ। স্বাভাবিক ভাবেই দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্যে শাসকদলের অস্বস্তি কতটা বৃদ্ধি পায়, তৃণমূলের পক্ষ থেকে পাল্টা কোনো প্রতিক্রিয়া দেওয়া হয় কিনা, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!