এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > আর ১৫ দিন সময় পেলেই নিজে থেকে ভেঙে যেত কর্ণাটকের ‘অপবিত্র’ জোট: অমিত শাহ

আর ১৫ দিন সময় পেলেই নিজে থেকে ভেঙে যেত কর্ণাটকের ‘অপবিত্র’ জোট: অমিত শাহ



আর ১৫ দিন সময় পেলেই নিজে থেকে ভেঙে যেত কর্ণাটকের ‘অপবিত্র’ জোট: অমিত শাহ। বেঙ্গালুরুর ডলারস কলোনির তেতলা বাড়ি থেকে একাই প্রাতঃভ্রমণ এ বেরতে দেখা গেল কর্ণাটকের ক্ষণস্থায়ী প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুকানাকেরে সিদ্দালিঙ্গাপ্পা ইয়েদুরাপ্পাকে। দিল্লি থেকে বার্তা আসার পরই সসম্মানে নিজের পদ থেকে সরে দাঁড়ান তিনি। বিরোধীদের তোপ দিয়েও কর্ণাটকে সরকার গড়তে পারলেন না মোদী। কংগ্রেস ও জেডি (এস) জানিয়েছে বিজেপি বিরোধী নেতাদের টোপ দেওয়া হয়েছিল যা তাদের পতনের কারন হয়ে দাঁড়াল। সেক্ষেত্রে সরকার গড়া সম্ভব  না হওয়ার প্রসঙ্গে বিজেপি নেতা আমিত শাহ বলেন যে ১৫ দিন এর জায়গায় সময় কমিয়ে ৩ দিন করেছে সুপ্রিম কোর্ট। তাঁর কথায়, “পুরো সময়টা পেলে ঘুরে যেত ছবি টা।”।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

কংগ্রেস দাবি করে পুরো সময়টা পেলে বিজেপি বিধায়ক কিনে নিতে পারতো। অমিত শাহ এদিন একটি টিভি চ্যানেলের সাখ্যাৎকারে জানিয়েছেন, ‘তিন দিন ধরে কংগ্রেস বলে আসছে ঘোড়া কেনাবেচা হচ্ছে। সেটা হলে কী এই পরিণাম হয়? আর কংগ্রেস তো গোটা আস্তাবল কিনে ফেলেছে!” কিন্তু কি করে সময় ঘুরে যেত?এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ”ঘোড়া কেনা বাজে কথা। বন্দি বিধায়কেরা নিজেদের কেন্দ্রে যেতে পারলেই বুঝতেন কংগ্রেস ও জেডি (এস)-এর অপবিত্র জোট জনতা মেনে নিচ্ছেন না।” এক কংগ্রেস নেতা এই ঘটনার প্রসঙ্গে বিজেপিকে কটাক্ষ করে বলেছেন, ”কর্নাটকের ঘটনায় স্পষ্ট হল- এক, নরেন্দ্র মোদী অপ্রতিরোধ্য নন। দুই, অমিত শাহও আর চাণক্য নন। ইয়েদুরাপ্পারা ফোন করে বিধায়কদের কী ভাবে অর্থ ও পদের টোপ দিয়েছেন, তা রেকর্ডবন্দি হয়েছে।” ওই নেতার কথায়, বিধায়করা একজোট ছিলেন তাই বিজেপির কৌশল ভেস্তে গেছে এবং সেই কারণে হতাশা গ্রস্ত হয়েছেন অমিত শাহ।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!