এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > নদীয়া-২৪ পরগনা > মহুয়া মৈত্রের দেখানো পথেই করিমপুরকে উন্নয়নের জোয়ারে ভাসাতে চান নতুন বিধায়ক বিমলেন্দু

মহুয়া মৈত্রের দেখানো পথেই করিমপুরকে উন্নয়নের জোয়ারে ভাসাতে চান নতুন বিধায়ক বিমলেন্দু



দীর্ঘ 39 বছর পর, কোনো ডানপন্থী প্রার্থী হিসাবে গত 2016 সালে বামেদের শক্ত ঘাঁটি করিমপুরে জয়লাভ করেছিলেন তৃণমূলের মহুয়া মৈত্র। বিধায়িকা হওয়ার পর থেকেই এলাকার উন্নয়নে তাঁর ভূমিকা ছিল অপরিসীম। রাস্তাঘাট থেকে শুরু করে নিকাশি ব্যবস্থা, সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে গিয়ে নিজের ভোটবাক্সকে মজবুত করেছিলেন সেই মহুয়া মৈত্র। যার সুফল হাতেনাতে পেয়েছেন তিনি। সদ্য সমাপ্ত 2019 এর লোকসভা নির্বাচনে করিমপুরের এই তৃণমূল বিধায়িকাকে কৃষ্ণনগর লোকসভা কেন্দ্রে দাঁড় করিয়ে দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

যেখানে বিপুল ভোটে জয়লাভ করে সাংসদ হয়ে সংসদে ঝড় তুলে সকলের মন জয় করে নিতে দেখা যায় তাকে। তবে তার ছেড়ে যাওয়া কেন্দ্র করিমপুরে সদ্য সমাপ্ত হয়েছে বিধানসভা উপনির্বাচন। যেখানে তৃণমূলের প্রার্থী করা হয় বিমলেন্দু সিংহ রায়কে। তবে বিমলেন্দুবাবুর জন্য নির্বাচনী রননীতি থেকে শুরু করে প্রচারের দায়িত্বে থাকেন এখানকার ভূতপূর্ব বিধায়িকা মহুয়া মৈত্র। যার ফলে অনায়াসেই জয়লাভ করেন সেই বিমলেন্দু সিংহ রায়। নির্বাচনী প্রচারে ঢালাও উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

আর জয় লাভ করে নতুন বিধায়ক হওয়ার সাথে সাথেই মহুয়া মৈত্রের অসম্পূর্ণ কাজ, সম্পূর্ণ করার আশ্বাস দিলেন বিমলেন্দুবাবু। সূত্রের খবর, এদিন উন্নয়ন প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে এই নবনির্বাচিত তৃণমূল বিধায়ক বলেন, “গত তিন বছরে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সহযোগিতায় আমাদের প্রাক্তন বিধায়ক নেত্রী মহুয়া মৈত্র করিমপুরের উন্নয়নের বন্যা বইয়ে দিয়েছে। সেই উন্নয়নের বন্যায় জলের মত বিজেপি ভেসে গিয়েছে। মহুয়া মৈত্র করিমপুরে যেসব প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, তার সব কাজই প্রায় শেষের মুখে।”

তিনি আরও বলেন, “এখন আমাকে নতুন করে ভাবতে হবে, কোন কোন বিষয় উন্নয়ন করলে এলাকার বাসিন্দারা তার সুফল ভোগ করবেন। মানুষের ভোট ঋন হিসেবে পেয়ে উন্নয়নের মাধ্যমে শোধ করার চেষ্টা করব।” জানা গেছে, পুরাতন বাসস্ট্যান্ডের সৌন্দর্যায়ন, ক্রীড়াপ্রেমীদের দাবি অনুযায়ী রেগুলেটেড মার্কেট, ফুটবল ময়দানের উন্নয়ন, ক্রিকেট স্টেডিয়াম নির্মাণসহ যে সমস্ত প্রতিশ্রুতি এবারের নির্বাচনে তৃণমূল প্রার্থী দিয়েছিলেন, তা পূরণ করার ওপর জোর দেবেন বিমলেন্দু সিংহ রায়।

তবে তৃণমূলের ভূতপূর্ব বিধায়িকা মহুয়া মৈত্রকে নিজের কথার মাঝখানে বারে বারেই কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছেন বর্তমান বিধায়ক বিমলেন্দুবাবু। প্রসঙ্গত, লোকসভা নির্বাচনে বাংলায় প্রবল গেরুয়া উত্থানের পরে – আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে টানটান উত্তেজনাপূর্ণ লড়াই হবে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। ফলে, সেই গেরুয়া ঝড় থামাতে তৃণমূল বেছে নিচ্ছে উন্নয়ন মন্ত্রকেই। সব মিলিয়ে জয়লাভ করে এখন উন্নয়নে জোর দিতে পূর্বসূরির উপরেই ভরসা করে এগিয়ে যেতে চাইছেন করিমপুরের নবনির্বাচিত তৃণমূল বিধায়ক।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!