এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > কন্যাশ্রীতেও কাটমানির গল্প? মমতার স্বপ্নের প্রকল্প নিয়ে বিস্ফোরক অভিযোগে ঘুম উড়ছে তৃণমূলের

কন্যাশ্রীতেও কাটমানির গল্প? মমতার স্বপ্নের প্রকল্প নিয়ে বিস্ফোরক অভিযোগে ঘুম উড়ছে তৃণমূলের



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – পশ্চিমবঙ্গের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে বারবার কাটমানি, তোলাবাজির অভিযোগ করেছে রাজ্যের বিভিন্ন বিরোধীমহল। আবাস যোজনা থেকে শুরু করে বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পে কাটমানি নেবার অভিযোগ বারবার উঠেছে। তবে বারবার অভিযোগ করেও বিষয়টির তেমন সুরাহা হয়নি। এবারে, মুখ্যমন্ত্রীর সাধের প্রকল্প কন্যাশ্রীতেও কাটমানি নেবার গুরুতর অভিযোগ উঠে এল। অভিযোগ উঠেছে, মালদহ জেলার চাঁচলের জালালপুর হাই মাদ্রাসার জনৈক চতুর্থ শ্রেণীর কর্মী কন্যাশ্রী প্রকল্পের টাকা পাইয়ে দেবার নাম করে কাটমানি নিচ্ছেন। এ বিষয়ে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। যদিও ভিডিওটির সত্যতা যাচাই করা প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার পক্ষে সম্ভব হয়ে ওঠেনি।

ভাইরাল হয়ে পড়ে এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, কন্যাশ্রীর আবেদন পত্র পরীক্ষার নাম করে ছাত্রছাত্রীদের কাছ থেকে টাকা নিচ্ছেন মালদহের চাঁচলের জালালপুর হাই মাদ্রাসার এক চতুর্থ শ্রেণীর কর্মী। অভিযোগ উঠেছে, মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের নির্দেশে তিনি কন্যাশ্রীর টাকা পাইয়ে দেওয়ার নাম করে নিচ্ছেন এই কাটমানি। কখনো পড়ুয়াদের বাড়িতে গিয়ে কখনো বা মাদ্রাসায় বসেই এই টাকা নিচ্ছেন তিনি। এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েও কোনো লাভ হয়নি। বারবার এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েও বিফল হয়ে, শেষ পর্যন্ত গোপনে ছাত্রীর কাছ থেকে টাকা নেওয়ার ভিডিও তুলে তা সোশ্যাল মিডিয়াতে আপলোড করে দেয়া হয়। সেইসঙ্গে প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ জানিয়ে ঘটনার তদন্তের দাবি জানান হলো।

প্রসঙ্গত, কন্যাশ্রী প্রকল্পের সুবিধা পেতে কোনরকম টাকা দেওয়ার প্রয়োজন হয় না। কন্যাশ্রীতে রয়েছে ২টি শ্রেণী। ১৮ বছরের নিচে থাকা ছাত্রীদের কে-১। ১৮ বছরের উপরে থাকা ছাত্রীদের কে-২ শ্রেণীতে ধরা হয়। অভিযোগ উঠেছে এই মাদ্রাসায় কে-২ শ্রেণিতে রয়েছে ১৯৮ জন ছাত্রী, তাদের থেকেই কন্যাশ্রীর টাকা পাইয়ে দিতে কাটমানি নেওয়া হচ্ছে। জালালপুর হাই মাদ্রাসার এক শিক্ষার্থীর দাদা জানালেন যে, এই টাকা নেবার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানালে পরিষ্কারভাবে বলে দেওয়া হয়েছিল যে, পাঁচ হাজার টাকা দিলে তবেই একাউন্টে টাকা আসবে, না হলে আসবে না। সেইসঙ্গে বলা হয়েছিল টিআইসির নির্দেশে এই টাকা নেওয়া হচ্ছে। প্রশাসনকে তাঁরা সমস্ত বিষয়টি জানিয়েছেন।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এই অভিযোগ প্রসঙ্গে চাঁচলের মহকুমাশাসক সব্যসাচী রায় জানালেন যে, এই অভিযোগ পেয়েছেন। অভিযোগের তদন্তের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। বিডিওর কাছে রিপোর্ট এলেই এর বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। আবার জালালপুর মাদ্রাসার পরিচালন সমিতির সম্পাদক ও সেইসঙ্গে চাঁচল-২ ব্লক তৃণমূল সভাপতি হবিবুর রহমান এ প্রসঙ্গে জানালেন যে, এই ঘটনার কথা তিনি শুনেছেন। যদি এই অভিযোগ সত্য বলে প্রমাণিত হয়, তবে তার বিরুদ্ধে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

তবে এ প্রসঙ্গে জালালপুর মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক তোফাজ্জ্বল হোসেন জানান যে, এই অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা। কিছু ছাত্র অকারণ জল ঘোলা করার চেষ্টা চালাচ্ছে। এই ভিডিওটাও সম্পূর্ণ মিথ্যা। তবে মুখ্যমন্ত্রীর সাধের প্রকল্পে এভাবে কাটমানির অভিযোগ ওঠায় যথেষ্ট অস্বস্তিতে পড়েছে শাসক দল। শাসকদলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে কাটমানি, তোলাবাজির বহু অভিযোগ উঠেছে বিরোধীদের পক্ষ থেকে। কিন্তু কন্যাশ্রী প্রকল্পে এভাবে কাটমানি নেওয়ার অভিযোগ ওঠায় যথেষ্ট অস্বস্তিতে শাসক দল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!