এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > কালীপুজোর আগেই হাতে আসতে পারে বড়সড় ‘ক্ষমতা’! এখন থেকেই কোমড় বেঁধে প্রস্তুতি শুরু তৃণমূলে

কালীপুজোর আগেই হাতে আসতে পারে বড়সড় ‘ক্ষমতা’! এখন থেকেই কোমড় বেঁধে প্রস্তুতি শুরু তৃণমূলে



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – কালীপুজোর আগেই, আগামী ৮ ই নভেম্বরের মধ্যে শিলিগুড়ির ২২ টি গ্রাম পঞ্চায়েত ও ৪ টি পঞ্চায়েত সমিতির বর্তমান পরিচালন বোর্ডের মেয়াদ শেষ হতে চলেছে। তাই, কালী পুজোর আগেই শিলিগুড়িতে নতুন করে গ্রাম পঞ্চায়েত ও পঞ্চায়েত সমিতি পরিচালন বোর্ড গঠিত হতে চলেছে। অন্যদিকে শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদের বোর্ডের মেয়াদ শেষ হবে কালীপুজোর পর দিন। অর্থাৎ, ১৫ ই নভেম্বর। তাই শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদের বোর্ড গঠিত হবে কালী পূজার পর। এই পঞ্চায়েত গুলিতে নিজেদের ক্ষমতা ধরে রাখতে শিলিগুড়ি পুরসভার আদলে গ্রাম পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতি ও মহকুমা পরিষদে প্রশাসক বোর্ড গঠনের আর্জি জানিয়েছে শাসক দল তৃণমূল। যার ফলে রাজনৈতিক মহলে ব্যাপক জল্পনা শুরু হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ৫ বছর আগে, অর্থাৎ, গত ২০১৫ সালে শিলিগুড়ি মহকুমায় ত্রিস্তর পঞ্চায়েত নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। শিলিগুড়ি মহকুমায় মোট ২২ টি গ্রাম পঞ্চায়েত, ৪ টি পঞ্চায়েত সমিতি ও ১টি মহাকুমা পরিষদ আছে। ২০১৫ সালের অক্টোবর মাসে ত্রিস্তরীয় পঞ্চায়েত নির্বাচন হয়েছিল। সেই বছরের ৭ ই নভেম্বর গ্রাম পঞ্চায়েত ও ৯ ই নভেম্বর পঞ্চায়েত সমিতি গঠিত হয়েছিল। সেই দিনগুলিতে ত্রিস্তর বোর্ডের প্রথম মিটিং হয়েছিল। তাই চলতি মাসের ৬, ৮ তারিখে গ্রাম পঞ্চায়েত সমিতির পরিচালন বোর্ডের মেয়াদ শেষ হচ্ছে।

তবে শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদের বোর্ড গঠন করা হয়েছিল ২০১৫ সালের ১৬ ই নভেম্বর। বোর্ড গঠনের পর সেদিনেই পরিষদের প্রথম বোর্ড মিটিং অনুষ্ঠিত হয়েছিল। একারণে কালীপুজোর পর দিন অর্থাৎ ১৫ ই নভেম্বর শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদের বর্তমান বোর্ডের মেয়াদ শেষ হবে। সম্প্রতি দার্জিলিং জেলা প্রশাসন বোর্ড গঠন বিষয়ে পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দপ্তরকে রিপোর্ট দিয়েছে। প্রশাসন ও রাজনৈতিক মহল মনে করছে যে, কালীপুজোর আগে গ্রাম পঞ্চায়েত ও পঞ্চায়েত সমিতিতে নতুন বোর্ড গঠিত হবে। তবে, শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদ বোর্ড গঠিত হবে কালী পূজার পর।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এ প্রসঙ্গে শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদের অতিরিক্ত নির্বাহী আধিকারিক প্রেমকুমার বরদেওয়া জানালেন যে, সমস্ত বিষয়টি পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন দপ্তরকে বিস্তারিত ভাবে জানানো হয়েছে। তারা যা নির্দেশ দেবেন, তা মেনেই পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।
প্রসঙ্গত শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদ বাদ দিলে শিলিগুড়ি মোট গ্রাম পঞ্চায়েতের ২২ টির মধ্যে ১৬ টি গ্রাম পঞ্চায়েত এবং ৪ টির মধ্যে ৩ টি পঞ্চায়েত সমিতি তৃণমূলের দখলে আছে। পঞ্চায়েত ভোট না হওয়া পর্যন্ত এগুলিকে নিজেদের দখলে রেখে দিতে চায় তৃনমূল। একারণে, শিলিগুড়ি পুরসভার আদলে গ্রাম পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতি ও মহকুমা পরিষদে প্রশাসক বোর্ড গঠনের আর্জি জানিয়েছে তৃণমূল।

প্রসঙ্গত, পূর্বতন বোর্ডের সদস্যদের রেখে দিয়েই গত ১৬ ই মে শিলিগুড়ি পুরসভার নয়া প্রশাসনিক বোর্ড গঠন করা হয়েছিল। শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদের বিরোধী তৃণমূল দলনেতা কাজল ঘোষ জানালেন যে, গ্রাম পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতি, মহকুমা পরিষদের বোর্ডে যে যেখানে আছেন, তাদের সকলকে বহাল রেখে প্রশাসক বোর্ড গঠনের প্রস্তাব রাজ্য সরকারের কাছে পাঠানো হয়েছে। করোনা সংক্রমণ কালে পঞ্চায়েত পরিষেবাকে স্বাভাবিক রাখতে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণের আরজি জানানো হয়েছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!