এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > “নির্বাচন কমিশন রাজ্যকে সুবিচার না দিলে কোথায় যাবে জনগণ?” – বিস্ফোরক মুখ্যমন্ত্রী

“নির্বাচন কমিশন রাজ্যকে সুবিচার না দিলে কোথায় যাবে জনগণ?” – বিস্ফোরক মুখ্যমন্ত্রী



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – আজ নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে আগামী বিধানসভা ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষিত হলো। ৮ দফায় হতে চলেছে আগামী বিধানসভা নির্বাচন। নির্বাচনের নির্ঘন্ট ঘোষণার পর আজ কালীঘাটে এক সাংবাদিক সম্মেলনে যোগদান করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ৮ দফায় ভোটগ্রহণের তীব্র প্রতিবাদ জানালেন মুখ্যমন্ত্রী। এর পেছনে বিজেপির হাত রয়েছে বলে অভিযোগ করলেন তিনি। তামিলনাড়ু, কেরলে এক দফায় ভোট হচ্ছে। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গে কেন ৮ দফায় ভোট করানো হচ্ছে? প্রশ্ন করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানালেন, প্রশ্ন উঠেছে বিহারে ২৪০ টি আসনে তিন দফায় নির্বাচন করা হয়েছে, অসমে নির্বাচন হতে চলেছে তিন দফায়, তামিলনাড়ুতে ২৩৪ টি আসনে ভোটগ্রহণ করা হচ্ছে একদিনেই, কেরল সিপিএম শাসনাধীন, সেখানেও এক দফায় ভোট হবে। কিন্তু বাংলায় ২৯৪ টি আসন, সেখানে কেন তবে ৮ দফায় ভোট হবে?এরপরই মুখ্যমন্ত্রী অভিযোগ করলেন যে, বিজেপি কথাতেই ৮ দফায় ভোট গ্রহণ করানো হচ্ছে।

তিনি প্রশ্ন করেছেন, কাকে সুবিধা করে দেবার জন্য ৮ দফায় নির্বাচন হতে চলেছে? তিনি জানালেন নির্বাচন কমিশন যদি রাজ্যকে সুবিচার না করে, তবে জনগণ কোথায় যাবে? তিনি জানালেন, বিজেপির নির্দেশেই এমন করা হয়েছে। এমনকি সম্পূর্ণ জেলায় একদিনে নির্বাচন হচ্ছে না। ২৭ শে মার্চ নির্বাচন হচ্ছে পুরুলিয়াতে। বাঁকুড়াকে ভাগ করা হয়েছে। পূর্ব মেদিনীপুরে পার্ট ওয়ান। দক্ষিণ ২৪ পরগনাতে তৃণমূল শক্তিশালী বলেই, সেখানে তিন দফায় ভোট করানো হবে। বাঁকুড়া করা হচ্ছে পার্ট টু।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

তিনি প্রশ্ন করেছেন, প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কথায় কি এটা করা হয়েছে? এরপর তিনি প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে চ্যালেঞ্জ করে জানালেন যে, এখানে ৩০ দিনের খেলা খেলবেন? তাতে তাঁদের যায় আসে না। হারিয়ে তাদের ভূত করে দেবেন। প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রতি তীব্র অভিযোগ করে তিনি জানালেন যে, তাঁরা জেলাকে ভাঙছেন, ভাই-ভাইকে ভাঙছেন, হিন্দু-মুসলিমকে ভাঙছেন, তাঁরা বাঙালি-রাজবংশী ভাঙছেন, তাঁরা সম্পূর্ণ দেশটাকেই ভাঙছেন। এরপর তাঁদের হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি জানালেন, ” বাংলার নিজের মেয়ে মমতা ব্যানার্জি বলছি, বাংলাকে আমি ভালো চিনি। জেলা থেকে বিধানসভা কেন্দ্র সব চিনি। বাংলাকে অশান্ত করার চেষ্টার জবাব দেবে জনতা। বহিরাগত গুন্ডারা বাংলা শাসন করবে না।”

নির্বাচন কমিশনের প্রতি মুখ্যমন্ত্রী জানালেন যে, বিজেপির চোখ দিয়ে বাংলাকে না দেখতে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যেন তাঁর ক্ষমতার অপব্যবহার না করেন, প্রধানমন্ত্রীর প্রতিও এমনই বার্তা দিলেন তিনি। বিজেপি নেতৃত্বের প্রতি তিনি জানালেন যে, যত নেতা আছে, তাঁদের নিয়ে আসতে। এতো ভয় তাঁকে নিয়ে। কেন্দ্রীয় সরকারের সব সংস্থাকে নিয়ে এই পরিকল্পনা তৈরি করা হয়েছে। তিনি জানান, নির্বাচনের পর পুরস্কার দিতে হবে। তাঁরা নির্বাচনে জয়লাভ করবেন। অন্যদিকে, ৮ দফা ভোট গ্রহণকে স্বাগত জানালেন শুভেন্দু অধিকারী। তিনি জানালেন যে, পশ্চিমবঙ্গে সন্ত্রাস চলছে। এবার পশ্চিমবঙ্গে সন্ত্রাসমুক্ত ভোট চাই। তাই নির্বাচন কমিশনের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানালেন তিনি।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!