এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > “কবিগুরুর কাছে বিশ্বভারতী ছিল সংস্কৃতির শীর্ষে যাওয়ার চেষ্টা” – প্রধানমন্ত্রী

“কবিগুরুর কাছে বিশ্বভারতী ছিল সংস্কৃতির শীর্ষে যাওয়ার চেষ্টা” – প্রধানমন্ত্রী



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – আজ ভার্চুয়াল ভাবে কবিগুরুর শিক্ষাঙ্গন বিশ্বভারতীর সমাবর্তনের অনুষ্ঠানে যোগদান করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। সমাবর্তনে মোট ২৫৩৫ জন শিক্ষার্থীকে ডিগ্রী প্রদান করা হবে। বিশ্বভারতীর আম্রকুঞ্জে সমাবর্তনের অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়েছে। যেখানে ভার্চুয়াল ভাবে যোগদান করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

ভার্চুয়াল ভাবে অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে বক্তব্য রাখলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। প্রধানমন্ত্রী জানালেন যে, বিশ্বভারতীর সমাবর্তন উৎসবে সশরীরে এসে যদি তিনি যোগদান করতে পারতেন, তবে ভালো হতো। দূর থেকেই বিশ্বভারতীর মাটিকে প্রণাম জানালেন প্রধানমন্ত্রী, বিশ্বভারতীর পড়ুয়াদের জানালেন শুভকামনা।প্রধানমন্ত্রী জানালেন, দেশের ঐক্যকে মজবুত করা প্রয়োজন। তিনি জানালেন কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর অখন্ড দেশের বার্তা দিয়েছিলেন।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

প্রধানমন্ত্রী জানান, গুরুদেব রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বিশ্বভারতীকে শুধুমাত্র বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবেই দেখেন নি, তাই বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম দিয়েছিলেন তিনি বিশ্বভারতী। তিনি জানান, কবিগুরুর কাছে বিশ্বভারতী ছিল সংস্কৃতির শীর্ষে যাবার চেষ্টা। দেশবাসীর নিজেদের দিকে তাকানোর সময় এসেছে। ভারতের বিবিধতার কথা বলেছেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। এখানেই কবিগুরু দেখতে পেয়েছেন বিশ্ব মানবকে। এভাবেই অখন্ড দেশ নিয়ে বিশেষ বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। প্রধানমন্ত্রী জানালেন, কবিগুরুর অখণ্ড দেশ নিয়ে বার্তা মনে রাখা প্রয়োজন।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!