এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > জ্যোতিপ্রিয়র দাবি উড়িয়ে দিয়ে পাল্টা দাবি দিলীপের, জেনে নিন!

জ্যোতিপ্রিয়র দাবি উড়িয়ে দিয়ে পাল্টা দাবি দিলীপের, জেনে নিন!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –বর্তমানে রাজ্য জুড়ে দলবদলের খেলা অব্যাহত। প্রায় প্রতিনিয়ত তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদানের হিড়িক পড়ে গেছে। বিভিন্ন হেভিওয়েট নেতা থেকে শুরু করে জনপ্রতিনিধিদের গেরুয়া শিবিরে নাম লেখানোর জল্পনা ক্রমশ বাড়তে শুরু করেছে। আর এই পরিস্থিতিতে সম্প্রতি আগামী মে মাসের আগে 6 থেকে 7 জন বিজেপি সাংসদ তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেবেন বলে দাবি করেন রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক।

স্বাভাবিকভাবেই একজন মন্ত্রীর এই ধরনের মন্তব্যে রীতিমত শোরগোল পড়ে যায় রাজ্য রাজনীতিতে। তবে এবার জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের এই মন্তব্যের জবাব দিতে দেখা গেল বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে। যেখানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে খুশি করার জন্যই এই ধরনের মন্তব্য করা হয়েছে বলে জানিয়ে দিলেন মেদিনীপুরের বিজেপি সাংসদ। স্বাভাবিকভাবেই তৃণমূল এবং বিজেপির দুই হেভিওয়েট নেতার মন্তব্য, পাল্টা মন্তব্যে এখন সরগরম হয়ে উঠেছে বঙ্গ রাজনীতি।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, 12 জানুয়ারি স্বামী বিবেকানন্দের জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে উত্তর 24 পরগনার হাবরায় একটি শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। আর সেখানেই উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল বিধায়ক তথা মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। আর সেই অনুষ্ঠান থেকেই একটি বিস্ফোরক মন্তব্য করতে দেখা যায় তাকে‌। তিনি বলেন, “আগামী মে মাসের মধ্যেই 6 থেকে 7 জন বিজেপি সাংসদ তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেবেন।” আর এর পরেই রীতিমতো শুরু হয়ে যায় জল্পনা। তাহলে কি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের এই মন্তব্য সত্যি? কিন্তু এবার রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রীর করা এই মন্তব্য এবং তা নিয়ে জল্পনাকে কার্যত নস্যাৎ করে দিলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষ।


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

তিনি বলেন, “কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় এবং জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের কথার কেউ কোনো গুরুত্ব দেন না। এসব বলে মমতা বন্দোপাধ্যায়ের মন রাখার চেষ্টা করছেন তিনি।” বিশ্লেষকরা বলছেন, যখন তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদানের হিড়িক পড়ে গেছে, যখন জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের এই মন্তব্য নিঃসন্দেহে অস্বস্তিতে ফেলে দিয়েছিল ভারতীয় জনতা পার্টিকে। কোন কোন সাংসদ তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিচ্ছেন, তা নিয়ে তৈরি হয়েছিল প্রশ্নচিহ্ন। আর এই পরিস্থিতিতে সেই জ্যোতিপ্রিয়বাবুর মন্তব্যকে কার্যত নস্যাৎ করে দিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে খুশি রাখার জন্যই এই মন্তব্য করা হয়েছে বলে দাবি করে পাল্টা শোরগোল তুলে দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেই দাবি বিশেষজ্ঞদের।

একাংশ বলছেন, বিধানসভা নির্বাচনের দিন যত এগিয়ে আসছে, ততই দলবদলের খেলা বাড়তে শুরু করেছে। শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যোগদান করার পর তৃণমূলের আরও অনেক হেভিওয়েট নেতা এবং জনপ্রতিনিধি গেরুয়া শিবিরে নাম লেখাবেন বলে জল্পনা তৈরি হয়েছে। আর এই পরিস্থিতিতে জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক যেভাবে বিজেপির 6 থেকে 7 জন সাংসদ তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করবেন বলে দাবি করেছিলেন, তাতে শোরগোল ক্রমশ বাড়তে শুরু করে।

তবে এদিন সেই জ্যোতিপ্রিয়বাবুর মন্তব্যের পাল্টা মন্তব্য করে দিলীপ ঘোষ বুঝিয়ে দিলেন, এগুলো সমস্তটাই ভিত্তিহীন। এক্ষেত্রে জ্যোতিপ্রিয়বাবু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে খুশি করতেই এই মন্তব্য করেছেন বলে দাবি করলেন মেদিনীপুরের বিজেপি সাংসদ। তবে রাজনীতিতে অসম্ভব বলে কিছু নেই। এক্ষেত্রে জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের দাবি সত্যি হয়, নাকি দিলীপ ঘোষ যে দাবি করেছেন, সেটাই বাস্তব হিসেবে দেখা দেয়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!