এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > চাকরি দেবার নামে লক্ষ লক্ষ টাকার প্রতারণা চক্রের হাদিস, গ্রেপ্তার পান্ডারা

চাকরি দেবার নামে লক্ষ লক্ষ টাকার প্রতারণা চক্রের হাদিস, গ্রেপ্তার পান্ডারা



সরকারি চাকরি দেওয়ার লোভ দেখিয়ে বেকারদের থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছিল একটি দুষ্কৃতী চক্র। এমনকি অনেককে বিনা মাগনায় খাটিয়েও নিয়েছিল তারা। কিন্তু মাইনের টাকা না আসতেই সন্দেহ শুরু। এরপরই ভুয়ো চাকরির প্রতিশ্রুতি দেওয়ার অভিযোগে ৩ দুষ্কৃতীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ধৃতদের ব্যাঙ্কশাল কোর্টে তোলা হলে বিচারক প্রত্যেকের ১৪ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন।
বন দপ্তরে চাকরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে বেকার যুবক-যুবতীদের থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতানোর অভিযোগে কদিন আগেই হেয়ার স্ট্রীট থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়। পরে ঘটনার তদন্তভার নিজেদের হাতে নেয় গোয়েন্দা বিভাগ। এরপরেই বৃহস্পতিবার এমনই একটি প্রতারনা চক্রের তিন পাণ্ডাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ধৃতদের বিরুদ্ধে জালিয়াতি, প্রতারনা-সহ একাধিক ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে। পুলিশে অভিযোগ

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

দায়ের করা ভুক্তভোগী এক প্রতারিত ব্যাক্তি জানিয়েছেন, তাঁর কাছ থেকে চাকরি দেওয়ার নামে পাঁচ লক্ষ টাকা নেওয়া হয়েছিল। এরপর ভুয়ো নিয়োগপত্র দিয়ে সুন্দরবনে কাজে যোগ দিতে বললেও পরে পাঠানো হয় মেদিনীপুরে। কিন্তু একমাস পেরিয়ে যাওয়ার পরও কোনো বেতন না মেলায় তিনি প্রতারকদের থেকে টাকা ফেরত চান। তখন তারা বলে, নিয়োগের কাগজ আটকে থাকাতেই বেতনে সমস্যা হচ্ছে। আর এরপরই এই ঘটনার খোজ নিয়ে সেই ব্যাক্তি জানতে পারেন তিনি প্রতারনার শিকার।
অভিযোগকারীর দাবি, মহাকরনের পেছনের এক অফিস থেকে কয়েক দফায় তাঁর কাছ থেকে এই টাকা নেওয়া হয়েছিল। এদিকে এই অভিযোগের পাওয়ার পরই বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি করে ৩ জনকে ধরলেও ঘটনায় মূল চক্রীর খোঁজে এখনও তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতদের বয়ান অনুযায়ী তারা ভুয়ো ডব্লুবিসিএস অফিসার হিসেবে সবার নথিপত্র জুগিয়ে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করত।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!