এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > প্রার্থী ঘোষণা হওয়ার আগেই জেলা সভাপতির নামে দেওয়াল লিখন – তীব্র বিতর্ক শুরু বিজেপিতে

প্রার্থী ঘোষণা হওয়ার আগেই জেলা সভাপতির নামে দেওয়াল লিখন – তীব্র বিতর্ক শুরু বিজেপিতে



একদিকে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রে বিদায়ী তৃণমূল সাংসদ অর্পিতা ঘোষকে প্রার্থী করায় জন্য যখন জেলা তৃণমূল সভাপতি বিপ্লব মিত্র বনাম অর্পিতা ঘোষের অনুগামীদের মধ্যে তীব্র দ্বন্দ্ব চলছে, ঠিক তখনই এবার সেইরকমই একপ্রকার বিতর্ক ছড়িয়ে পড়ল বিরোধী দল বিজেপির অন্দরমহলেও।

কেননা এখনও বিজেপির কোনরূপ প্রার্থী ঘোষণা না হলেও সেই প্রার্থী ঘোষণার আগেই বালুরঘাটে লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপির প্রার্থী হিসেবে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা বিজেপির সভাপতি শুভেন্দু সরকারের নামে দলেরই একাংশ দেওয়াল লিখন শুরু করে দেওয়ায় তৈরি হয়েছে তীব্র বিতর্ক।

সূত্রের খবর, শনিবার সকালে বালুরঘাটের নারায়নপুর এলাকায় একটি দেওয়ালে দেখা যায়, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী হিসেবে শুভেন্দু সরকারের নাম লিখে তাঁকে জয়যুক্ত করার আহ্বান জানানো হয়েছে বিজেপির তরফে।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

আর এখানেই উঠতে শুরু করেছে প্রশ্ন, বিজেপির মত একটা সর্বভারতীয় দলে যেখানে এখনও প্রার্থী প্রকাশ হয়নি, সেখানে কেন দলের একাংশ দলের তরফে কে পার্থী হচ্ছে বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রে তার ঘোষণা হওয়ার আগেই দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা বিজেপির সভাপতি শুভেন্দু সরকারের নাম বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রে বিজেপির প্রার্থী হিসেবে লিখে দিলেন?

এদিন এই ব্যাপারে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা বিজেপির সভাপতি শুভেন্দু সরকারকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “বিষয়টি আমার নজরেও এসেছে। কে এমন করেছে জানা নেই। হয়তো আমার নামে বদনাম করবার জন্যই চক্রান্ত করে কেউ এমনটা করেছে। গোটা বিষয়টা রাজ্য নেতৃত্বকে জানানো হয়েছে। এরকম বিষয় কোনোভাবেই বরদাস্ত করা হবে না।” অন্যদিকে এই ব্যাপারে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা বিজেপির সাধারণ সম্পাদক মানস সরকার বলেন, “দলের কেউ এখনো পর্যন্ত কারোর নাম লেখার সাহস পায়নি।এটা দলের শৃঙ্খলাভঙ্গেরই নামান্তর। কোনোভাবেই এমন ঘটনা বরদাস্ত করা হবে না।”

রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, যেখানে উত্তরবঙ্গের মধ্যে এই বালুরঘাট লোকসভা আসনটি বিজেপির কাছে অত্যন্ত সেফ সিট হিসেবে পরিচিত এবং যেখানে জোরদার লড়াই দেওয়ার কথা ভাবছে গেরুয়া শিবির, সেখানে প্রার্থী ঘোষণা হওয়ার আগেই বিজেপির জেলা সভাপতি শুভেন্দু সরকারের নাম বালুরঘাট লোকসভা কেন্দ্রের দলীয় প্রার্থী হিসেবে লিখে দেওয়ায় বিজেপির একাংশের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ তৈরি হয়েছে। ফলে এখন সেই ক্ষোভকে প্রশমন করে গেরুয়া শিবির কিভাবে এগোয় সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!