এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > জগদীপ ধনকরের দিল্লী চলোর পেছনে কি ৩৫৬ ধারার ইঙ্গিত মিলছে? জল্পনা ক্রমশ বাড়ছে

জগদীপ ধনকরের দিল্লী চলোর পেছনে কি ৩৫৬ ধারার ইঙ্গিত মিলছে? জল্পনা ক্রমশ বাড়ছে



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – দীর্ঘদিন যাবৎ রাজ্যপাল জগদীপ ধনকরের সঙ্গে রাজ্য প্রশাসনের সম্পর্কের অবনতি ঘটেছে। বিধানসভা নির্বাচনের পর ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে বিরোধী দলের সাথে সাথে সরব হয়েছেন রাজ্যপালও। বিভিন্ন সময় দেখা গেছে রাজ্যপাল আইন শৃঙ্খলার অবনতি নিয়ে প্রশাসনের দিকে আঙুল তুলেছেন। গত সোমবার রাজ্যের বিরোধী দলনেতাকে পাশে বসিয়ে সাংবাদিক বৈঠক করেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর এবং সেখানেই তিনি প্রশাসনের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ করেন। আর এবার রাজ্যকে কিছু না বলে সোজা দিল্লী পাড়ি দিলেন। আর তারপর থেকেই 356 ধারা নিয়ে আলোচনা বেড়েই চলেছে।

পাশাপাশি গতকাল সন্ধ্যায় রাজ্যপাল দিল্লি গিয়েছেন। তবে তিনি কি কারণে দিল্লি গিয়েছেন, তা নিয়ে সঠিক কোনো তথ্য জানা যায়নি। তবে রাজনৈতিক মহলের অনেকেই রাজ্যে 356 ধারা জারি নিয়ে আলোচনা চালাচ্ছেন। অন্যদিকে জানা গিয়েছে, তিন দিনের সফরে দিল্লি গিয়েছেন রাজপাল। আর সেখানেই তিনি আজকে দেখা করলেন কেন্দ্রীয় কয়লা ও পরিষদীয় মন্ত্রী প্রহ্লাদ যোশীর সঙ্গে। সূত্রের খবর, দুজনের মধ্যে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে জানা যাচ্ছে, রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর দিল্লীতে থাকাকালীন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন। একইসাথে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের সঙ্গেও তিনি দেখা করতে পারেন। আর সেখানেই জল্পনা তীব্র হচ্ছে 356 ধারা জারি নিয়ে। অন্যদিকে কেন্দ্রীয় কয়লা ও পরিষদীয় বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ যোশীর সঙ্গে দেখা করার পর রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর দিল্লি থেকে সোজাসুজি টুইট করে এ ব্যাপারে ইতিবাচক মন্তব্য করেছেন। অন্যদিকে রাজ্যপালের দিল্লি যাওয়া নিয়ে মুখ খুলেছেন রাজ্যের তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়।

তিনি অভিযোগ করেছেন, রাজ্যকে এড়িয়ে এভাবে রাজ্যপাল সরাসরি দিল্লির মন্ত্রীদের সঙ্গে কথা বলতে পারেননা। এই অভিযোগ তৃণমূল শিবিরের সবারই। আপাতত রাজ্যপালের দিল্লি যাওয়া পশ্চিমবঙ্গ প্রশাসনের জন্য নতুন কোন বিপদ ডেকে আনে কিনা, তা নিয়ে চর্চা তুঙ্গে। পাশাপাশি রাজনৈতিক মহলের অনেকেই মনে করছেন, রাজ্যপাল রাজ্যের ভোট পরবর্তী হিংসার ব্যাপারে কেন্দ্রীয় শিবিরে কথা বলতে পারেন। আর সেখানেই 356 ধারা জারি নিয়ে ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। আপাতত পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছেন রাজ্যের ওয়াকিবহাল মহল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!