এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > হেভিওয়েট এই কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী কে? দুই প্রভাবশালীর লড়াইয়ে জট বাড়ছে শাসকশিবিরে!

হেভিওয়েট এই কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী কে? দুই প্রভাবশালীর লড়াইয়ে জট বাড়ছে শাসকশিবিরে!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – একুশের বিধানসভা নির্বাচন নিয়ে এই মুহূর্তে টানটান উত্তেজনা বাংলার বুকে। নির্বাচন কমিশন অবশ্য এখনও নির্বাচনের দিন ঘোষণা করেনি, কিন্তু তা সত্ত্বেও রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় একটু একটু করে দেওয়াল লিখন চোখে পড়ছে। যেমন ইতিমধ্যেই আমরা দেখেছি নন্দীগ্রামে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রার্থী হিসেবে দেওয়াল লিখন শুরু হয়ে গেছে। অন্যদিকে উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুর বিধানসভায় প্রার্থী হিসেবে এই মুহূর্তে রাজনৈতিক মহলে তীব্র চর্চা। কারণ ইসলামপুরের তৃণমূলের জেলা সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়াল ছিলেন এতদিনের বিধায়ক। লোকসভা নির্বাচনের সময় তিনি বিধায়ক পদ ছেড়ে সাংসদ পদের জন্য লড়াই করেন।

অন্যদিকে বিধায়ক পদ ছাড়ার পর সেখানে উপ নির্বাচনে তৃণমূলের টিকিটে জয়ী হন আব্দুল করিম চৌধুরী। অতএব একুশের বিধানসভার নির্বাচনে টিকিট কে পান, তার দিকেই এখন নজর রয়েছে সবার। কারণ ইসলামপুর বিধানসভার প্রায় প্রত্যেকেরই জানা কানাইয়ালাল এবং আব্দুল করিমের তীব্র রাজনৈতিক লড়াইয়ের। পাশাপাশি দলের নেতৃত্বের কাছেও এই খবর আছে। তাই দুজনের মধ্যে কাকে টিকিট দেওয়া হবে, তা নিয়ে কিন্তু বিড়ম্বনা সৃষ্টি হতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। অন্যদিকে ভোটের দিন ঘোষণা না হলেও প্রার্থী হিসেবে কিন্তু করিম চৌধুরী নিজেকেই সাব্যস্ত করছেন। ইতিমধ্যেই তিনি স্থানীয় সভায় নিজেকে প্রার্থী হিসেবে তুলে ধরেছেন।

পাশাপাশি কানাইয়া কিন্তু এখনো যথেষ্ট সাবধানী প্রার্থী নির্বাচন নিয়ে। তিনি বিশেষ মুখ খোলেননি কোথাও। তবে দুজনের প্রত্যেকেই মেনে নিয়েছেন দল যা সিদ্ধান্ত নেবে, সেটাই তাঁরা মেনে নেবেন। প্রসঙ্গত, 2016 সালে বিধানসভা নির্বাচনে ইসলামপুরে কানাইলাল আগরওয়াল কংগ্রেস প্রার্থী হিসেবে পেয়েছিলেন 65559 টি ভোট। সেসময় তৃণমূল প্রার্থী আব্দুল করিম চৌধুরী পেয়েছিলেন 57848 টি ভোট। এরপর দলবদল করে কানাইয়ালাল তৃণমূলে আসেন এবং 2019 সালের লোকসভা নির্বাচনে রায়গঞ্জ থেকে তৃণমূলের প্রার্থী হিসেবে লড়েন। যথারীতি সেসময় তিনি ইসলামপুরের বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দেন।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

পরবর্তীতে ইসলামপুর বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচনে জিতে আব্দুল করিম চৌধুরী বিধায়ক পদে আসেন। প্রসঙ্গত কানাইয়ালাল আগরওয়াল লোকসভা নির্বাচনে সামগ্রিকভাবে বিজেপি প্রার্থী দেবশ্রী চৌধুরীর কাছে হেরে গেলেও ইসলামপুর বিধানসভা কেন্দ্র থেকে প্রাপ্ত ভোটের নিরিখে বিজেপি প্রার্থীর থেকে অনেকটাই এগিয়ে ছিলেন তিনি। গত লোকসভা ভোটে কানাইয়ালাল সামগ্রিকভাবে হেরে গেলেও ইসলামপুর বিধানসভায় পেয়েছিলেন 60976 টি ভোট। পাশাপাশি বিজেপির দেবশ্রী চৌধুরী পেয়েছিলেন 56531 টি ভোট। পাশাপাশি উঠে আসছে অন্য তত্ত্বও। আব্দুল করিম চৌধুরী 10 বারের বিধায়ক। সুতরাং বিধায়ক হিসেবে লড়াই করার পূর্ব অভিজ্ঞতা তাঁর আছে।

আবার দলের নির্দেশেই কানাইলাল আগরওয়াল বিধায়ক পদ ছেড়ে দিলেও তিনি কিন্তু একসময়ের করিম চৌধুরীকে হারিয়েছেন। তাই প্রার্থী হিসেবে তাঁকে দূরে ঠেলে দেওয়া যায়না। সব মিলিয়ে ইসলামপুরের বিধানসভা কেন্দ্রে কে প্রার্থী হবেন তা নিয়ে এখন চলছে জমজমাট আলোচনা। পাশাপাশি এদের দুজনের মধ্যে যদি কোন একজনকে প্রার্থী টিকিট দেওয়া হয় তাহলে অন্যজন দলের মধ্যে বিদ্রোহ প্রকাশ করতেও পারেন, সে আশঙ্কাও উড়িয়ে দেওয়ার নয়। এছাড়া ইসলামপুর বিধানসভাতে দুজনেরই অনুগামী সংখ্যা যথেষ্ট। যথারীতি একজনকে টিকিট দিলে অন্যজনের অনুগামীরা বেঁকে বসতে পারেন। ফলস্বরূপ সুবিধা নিয়ে যেতে পারে বিজেপি প্রার্থী। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, এই সমস্ত কিছুরই হিসাব নিকাশ করা হচ্ছে বর্তমানে। আপাতত দলীয় নেতৃত্ব কি সিদ্ধান্ত নেন, সে দিকেই নজর সবার।

 

আপনার মতামত জানান -

ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!