এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > রাজ্য বিজেপিতে গুরুত্বপূর্ণ পদে একাধিক নেতা? জোর জল্পনা!

রাজ্য বিজেপিতে গুরুত্বপূর্ণ পদে একাধিক নেতা? জোর জল্পনা!



সম্প্রতি রাজ্য বিজেপিতে দ্বিতীয়বারের জন্য সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়েছেন দিলীপ ঘোষ। আর দিলীপ ঘোষ সভাপতি পদে দ্বিতীয়বারের জন্য নিযুক্ত হওয়ার পরেই তিনি তার রাজ্য কমিটির নতুন টিম তৈরি করবেন বলে জল্পনা ছড়িয়েছে। ইতিমধ্যেই রাজ্য কমিটির এই নতুন টিমে কারা কারা থাকবেন! তা নিয়ে তৈরি হয়েছে সংশয়।

কেননা বর্তমানে অনেক জেলার বিজেপির সভাপতি পদ পরিবর্তন এসেছে। সেক্ষেত্রে সেই সমস্ত জেলা সভাপতিদের এবার পুনর্বাসন দিতে চলেছে গেরুয়া শিবির। জানা যাচ্ছে, যে সমস্ত জেলায় সভাপতি পরিবর্তন হয়েছে, সেই সমস্ত সভাপতিদের এবার রাজ্য কমিটির গুরুত্বপূর্ণ জায়গা দিতে চলেছে ভারতীয় জনতা পার্টি।

সূত্রের খবর, এক্ষেত্রে 5 থেকে 7 জনের নাম গুরুত্বপূর্ণভাবে বিবেচনা করছে বিজেপি। যার মধ্যে রয়েছেন, হাওড়ার প্রাক্তন জেলা বিজেপির সভাপতি অনুপম মল্লিক, হুগলির সুবীর নাগ, নদীয়ার মহাদেব সরকার এবং দক্ষিণ দিনাজপুরের শুভেন্দু সরকার। বিশ্লেষকরা বলছেন, এতদিন এই সমস্ত ব্যক্তিরা যে জেলার দায়িত্বে ছিলেন, সেই সমস্ত জেলার দায়িত্ব অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণভাবে পালন করেছেন।


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

তাই সেদিক থেকে তারা সেই সমস্ত জেলার দায়িত্ব থেকে সরে যাওয়ার পর তাদের রাজ্য কমিটিতে এনে দলকে আরও ভালোভাবে পরিচালনা করতে চাইছে বঙ্গ বিজেপি। একাংশ বলছেন, লোকসভা নির্বাচনের পর অনেকেই তৃণমূল, বাম ও কংগ্রেস ছেড়ে ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগ দিয়েছেন। তবে অনেকে দলবদল করে বিজেপিতে গেলেও, সম্প্রতি সেই সমস্ত ব্যক্তিরা আবার বিজেপি ছাড়তে শুরু করেছেন।

ফলে তাদের বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে বিজেপির অন্দরে উঠতে শুরু করেছে। আর তাই বিশ্বাসযোগ্য সৈনিকদের রাজ্য কমিটিতে জায়গা দিতে চাইছে পদ্ম শিবির। জানা গেছে, যে সমস্ত ব্যক্তিদের রাজ্য কমিটিতে যাওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে, তারা বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ। ফলে দিলীপ ঘোষ নতুন কমিটিতে এই সমস্ত সৈনিকদের নিয়ে 2021 এ পরিবর্তন আনার দিকে এগিয়ে যেতে পারেন।

এদিন এই প্রসঙ্গে রাজ্য বিজেপির অন্যতম সাধারণ সম্পাদক রাজু বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “বিজেপি এভাবেই মাটি থেকে নেতা তুলে আনে। তাই বাংলার বিভিন্ন জেলায় তৃণমূলের সঙ্গে দাঁতে দাঁত চেপে লড়াই করা প্রাক্তন জেলা সভাপতিদের রাজ্য পার্টিতে গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব দেওয়ার জন্য চিন্তাভাবনা চলছে।” সব মিলিয়ে এখন প্রাক্তন জেলা সভাপতিদের রাজ্য কমিটিতে নিয়ে যাওয়ার চিন্তা-ভাবনা কতটা ফলপ্রসু হয়! সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!