এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > “ভারত ভগবানের দেশ হওয়ায় করোনায় কারও কারো কিছু হবে না” দাবি কৈলাশের! বাড়ছে বিতর্ক!

“ভারত ভগবানের দেশ হওয়ায় করোনায় কারও কারো কিছু হবে না” দাবি কৈলাশের! বাড়ছে বিতর্ক!



কখনও গরুর দুধের সোনা, আবার কখনও বা ভারতবর্ষকে ধর্মের দেশ বলে বারবার বিতর্কিত মন্তব্য করে খবরের শিরোনামে আসতে দেখা গেছে বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে। তার মন্তব্য নিয়ে সমালোচনা হয়েছে, নিন্দা হয়েছে। কিন্তু তা সত্ত্বেও দীলিপবাবু নিজের অবস্থান থেকে কখনও সরে আসেননি। ইতিমধ্যেই করোনাভাইরাস নিয়ে গোটা দেশ আতঙ্কে রয়েছে। সম্প্রতি এই ব্যাপারে আজব তত্ত্ব খাড়া করতে দেখা যায় বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে। যেখানে মায়ের প্রসাদ খেলে করোনা হবে না বলে জানিয়ে দেন তিনি।

পাশাপাশি করোনা একটি বড় ভাইরাস। তাই কাপড় দিয়ে মাক্স তৈরি করারও নিদান দেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। যা নিয়ে রীতিমতো সমালোচনার ঝড় ওঠে গোটা রাজ্যজুড়ে। এমনকি একটি সর্বভারতীয় রাজনৈতিক দলের প্রদেশ সভাপতি হয়ে কেন দীলিপবাবু এই ধরনের মন্তব্য করলেন, তা নিয়েও প্রশ্ন তুলতে শুরু করে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। তবে দিলীপ ঘোষের দেখানো পথেই যে হাঁটবেন বিজেপির সর্বভারতীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়, তা আঁচ করতে পারেননি কেউ।

 

সূত্রের খবর, এবার করোনা নিয়ে আজব তত্ব পেশ করলেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়। এদিন মধ্যপ্রদেশে করোনা আতঙ্ক দূর করবার জন্য হনুমান দেবের পুজো করেন এই বিজেপি নেতা। আর তার পরেই তিনি বলেন, “ভারত তেত্রিশ কোটি দেব দেবীর দেশ। এমন পবিত্র দেশে করোনা কিছুই করতে পারবে না।”

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সমাজ যখন এগিয়ে যাচ্ছে, যখন আতঙ্ক দূর করবার জন্য সকলের পরামর্শ দিচ্ছেন, ঠিক তখনই পুরানের উপর নির্ভর করে কেন মানুষকে শুধুমাত্র ধর্মপিপাসু করে রাখতে চাইছেন বিজেপি নেতারা! দিলীপ ঘোষের মতো বাংলার বিজেপি নেতা হয়ত বা এই ধরনের মন্তব্য করতে পারেন। কিন্তু করোনা নিয়ে কেন এমন আশ্চর্য মন্তব্য করলেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়! তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে জনসাধারনের মনে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!