এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > সুস্থ-স্বাভাবিক বৈবাহিক জীবনে যৌনতার গুরুত্ব অপরিসীম, না জেনে অনেক বড় বিপদ ডাকছেন না তো?

সুস্থ-স্বাভাবিক বৈবাহিক জীবনে যৌনতার গুরুত্ব অপরিসীম, না জেনে অনেক বড় বিপদ ডাকছেন না তো?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট- একটি সুস্থ স্বাভাবিক বৈবাহিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে যে যে জিনিসগুলি অত্যন্ত প্রয়োজনীয় হয়ে পড়ে, সেগুলির মধ্যে স্বামী স্ত্রীর শারীরিক সম্পর্ক বা সেক্সলাইফ একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সে কথা মেনে নেবেন নিশ্চয়ই অনেকেই। তবে বৈবাহিক সম্পর্ক বলতে যেমন শুধুমাত্র সেক্সুয়াল লাইফকে বোঝায় না তেমনই যৌনতা বা সেক্স বৈবাহিক সম্পর্ককে ধরে রাখতে অনেক বেশি কার্যকরী হয় সেকথাও কিন্তু অস্বীকার করা যায় না।

বস্তুত এ দুটি বিবাহের ক্ষেত্রে একে অপরের পরিপূরক বলেই মনে করা হয়। বাকি সমস্ত জিনিসের মত তাই এক্ষেত্রে দুটি বিষয়ে বিশেষ খেয়াল রাখা প্রয়োজন বলেই মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। এর মধ্যে প্রথমেই যার কথা আসে সেটি হল অহেতুক কোনো কারণে যদি আপনার সঙ্গী শারীরিক সম্পর্কে আপনার সঙ্গে লিপ্ত হতে না চান, সেই বিষয়। আর অন্যটি হল শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন বা সেক্সচুয়াল লাইফের উপকারিতা।

তবে প্রথমেই আসা যাক শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের ক্ষেত্রে সাধারণত কি কি সমস্যার কথা জানা যায়। সেক্ষেত্রে প্রথমেই যে কথাটি উঠে আসে সেটি হল, অনেকের মধ্যে সেক্সুয়াল পারফরম্যান্স সম্পর্কিত একটি ভয় বা অ্যাংজাইটি থাকে।

আর এর থেকেই মিলনের সময় বিছানায় সঙ্গীকে যৌন পরিতৃপ্তি দেওয়ার ক্ষেত্রে আত্মবিশ্বাসের অভাব দেখা যায়। তবে এর একমাত্র উপায় হিসেবে তাই সঙ্গীর সঙ্গে কোনওরকম যৌন সম্পর্কে লিপ্ত না হওয়াকেই একমাত্র সমাধান ধরে নেন অনেকেই। তবে এক্ষেত্রে কিন্তু যদি আপনার বা আপনার সঙ্গীর সেই ধরনের কোনো সমস্যা হয়, তবে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া যেতে পারে বলেই মনে করেন অনেকে।

অন্যদিকে অনেক ক্ষেত্রেই আবার বিবাহিত দম্পতির মধ্যে মানসিক দুরত্ব এতটাই বেশি থাকে যে তাঁরা একে অপরের সঙ্গে শারীরিক মিলনে কোনওরকম আগ্রহ দেখান না। ফলে সেই প্রভাব তাঁদের সাংসারিক জীবনে পড়ে বলেও মনে করা হয়। তাই সেক্ষেত্রে সঙ্গীর সঙ্গে মনের কথা বলাটা যে কতটা প্রয়োজন, সেই কথাও জানা যায়।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে, অনেকের আবার সেক্স নিয়ে নানা ফোবিয়া থাকে। ফলে তাঁদের নিজেদের এবং সঙ্গীর সেক্স লাইফ একেবারেই পছন্দের হয় না। বস্তুত, এই সব কারণের জন্যই অনেক সময় সেক্স লাইফ নিয়ে সমস্যা দেখা যায়। কিন্তু আপনি কি জানেন সেক্স আমাদের জীবন থেকে কত কিছু দূরে সরিয়ে রাখতে পারে! না জানলে আসুন জেনে নেওয়া যাক।

প্রথমত সেক্স মানুষের জীবনে স্ট্রেস দূর করতে কাজ করে। এক কথায় বলতে গেলে স্ট্রেস এখন মানুষের স্বাভাবিক জীবনের নিত্য সঙ্গী হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই কিছু জীবনে থাক আর না থাক স্ট্রেস কিন্তু মানুষের নিত্য দিনের সঙ্গী। আরে স্ট্রেসের কারণেই বর্তমানে মানুষের মধ্যে নানা রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা যায়।

তবে সেক্স এর ফলে যেহেতু স্ট্রেস থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব তাই চিকিৎসকরা নিয়মিত সেক্স করার কথা বলে থাকেন অনেক ক্ষেত্রেই। শুধু তাই নয়, সেক্স যে একটি দারুন এক্সারসাইজ, সে কথা মেনে নিয়েছেন অনেকেই। সে ক্ষেত্রে শরীরের ব্যথা-বেদনা দূর করতে তো বটেই এমনকি বাড়তি মেদ ঝরাতেও কাজ করে এটি।

তাই জিমে গিয়ে অতিরিক্ত পরিমাণ ক্যালোরি নষ্ট না করে, বিছানার সঙ্গীর সঙ্গেই সেই কাজটি চুপিসারে সেরে ফেলতে পারেন আপনি। সেইসঙ্গে এর ফলে দিন দিন আপনার ত্বকের ঔজ্জ্বল্য বেড়ে যাবে চমকপ্রদভাবেও। অন্যদিকে সমীক্ষায় দেখা গেছে, যারা নিয়মিত শারীরিক মিলন করেন তাদের ক্ষেত্রে মনোপজ অনেক দেরিতে হয়।

ফলত মেয়েদের সাধারণত যে হরমোনাল সমস্যাগুলি লক্ষ্য করা যায়, সেগুলি থেকে অনেকাংশেই মুক্তি পাওয়া সম্ভব হয়। এছাড়া থাইরয়েড, পিসিওডি, সুগার বা হার্টের সমস্যা থেকেও মুক্তি পাওয়া যায় এক নিমেষে। তাই নিজের জীবনকে রোমান্টিক করতে এবং সেইসঙ্গে সুস্থ রাখতেও এটি যে কার্যকরী আপনিও জীবনে প্রয়োগ করে দেখতে পারেন। কি বলা যায় হয়তো সুফল পেয়ে যেতে পারেন।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!