এখন পড়ছেন
হোম > বিশেষ খবর > সামনে এল সামনের তিন উপনির্বাচনের বিজেপির নীল-নকশা

সামনে এল সামনের তিন উপনির্বাচনের বিজেপির নীল-নকশা



একসময়ের তৃণমূল কংগ্রেসের ‘চানক্য’ বলে মনে করা হত, সেই মুকুল রায় জার্সি পাল্টে এখন গেরুয়া শিবিরে। আর তাই বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের মনের কথা, এবার লড়াইটা জমে গেল। দিল্লিতে বিজেপিতে যোগদানের পর কলকাতায় প্রথমবার পা রাখার পর যেভাবে মুকুল রায়কে বিজেপি কর্মী-সমর্থকেরা সংবর্ধনা দিয়ে সাদরে গ্রহণ করেছে তাতেই বোঝা যায়, তাঁর উপর প্রত্যাশাটা ঠিক কোন জায়গায় পৌঁছেছে। রাজ্যজুড়ে যে একটা বিজেপি হওয়া বইছে তা বকলমে মেনে নিচ্ছেন সবাই, কিন্তু লাখ টাকার প্রশ্ন হল, সেই হাওয়া কি ঝড় হয়ে মুকুল বাবুর দাবী মত পরিবর্তনের পরিবর্তন ঘটানোর মত জায়গায় পৌঁছাবে? আর এর সবথেকে বড় পরীক্ষা হতে চলেছে আগামী তিন উপনির্বাচনে। যদিও কোনো দিনক্ষণ ঘোষণা হয় নি, তবে অসমর্থিত সূত্রে প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, উলুবেড়িয়া লোকসভা এবং সবং ও নোয়াপাড়া বিধানসভার উপনির্বাচন আগামী জানুয়ারী মাসে হতে চলেছে।
আর কি হতে চলেছে এই নির্বাচনে বিজেপির মাস্টার প্ল্যান? কে হতে পারেন প্রার্থী? এনিয়ে বিভিন্ন প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে রাজনৈতিক মহলে। যা জানা যাচ্ছে, আপাতত এই নিয়ে ধীরে চাল নীতি নিয়েছে বিজেপি। প্রথমত এখনো নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা হয় নি। দ্বিতীয়ত বিজেপি এখন ব্যস্ত গুজরাট নির্বাচন নিয়ে। অসমর্থিত সূত্রে যা শোনা যাচ্ছে গুজরাট নির্বাচন মিটলেই বিজেপির ছাতার তলায় বেশ কিছু ‘হেভিওয়েটকে’ আনার প্রচেষ্টায় আছেন গেরুয়া শিবির। তাছাড়া শাসকদল কোথায় কাকে প্রার্থী করছেন দেখে এই নবাগত হেভিওয়েটদের কাউকে টিকিট দেওয়া হতে পারে। পরীক্ষিত রাজ্য নেতাদের আপাতত সংগঠন সামলাতেই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, সুতরাং তাঁদের কাউকে এই তিন নির্বাচনে প্রার্থী হতে দেখতে পাওয়া শক্ত। কিন্তু বিজেপি শিবির এই তিন উপনির্বাচনকে নিয়েই বেশ সিরিয়াস, সুতরাং প্রার্থী দেওয়ার ক্ষেত্রে যোগ্য, জেতার মত এবং হেভিওয়েট – এই তিন ফর্মুলা মেনেই এগোবে গেরুয়া শিবির বলে খবর।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!