এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > লক্ষ্য লোকসভা – সামনে এল বিজেপির নীলনকশা, বিশেষ নজরে ৫ রাজ্যের ২০৮ আসন

লক্ষ্য লোকসভা – সামনে এল বিজেপির নীলনকশা, বিশেষ নজরে ৫ রাজ্যের ২০৮ আসন



২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচন গেরুয়া শিবিরের কাছে ছিল স্বপ্ন-দেখানোর নির্বাচন, কিন্তু ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচন হতে চলেছে সেই স্বপ্ন কতটা তারা পূরণ করতে পেরেছে তার হিসেব মেলানোর নির্বাচন হিসাবে। তার থেকেও বড় কথা এই নির্বাচনে বিজেপি-বিরোধী প্রায় সব দলই এক ছাতার তলায় আসতে চলেছে, চেষ্টা চলছে একের বিরুদ্ধে এক প্রার্থী দেওয়ার। ফলে লড়াইটা হতে চলেছে অতীব কঠিন।

এরই মাঝে আরো চিন্তা বাড়িয়ে – ক্রমশ বাড়ছে শরিকি অসন্তোষ। একে একে জোট ছেড়ে যাচ্ছে বা যাওয়ার হুমকি দিচ্ছে বহু পুরোনো শরিকই। বলায় বাহুল্য জোট ছেড়ে বেরোলে এইসব পুরোনো ‘বন্ধুরা’ গিয়ে ভিড়বে বিরোধী শিবিরেই। আর তাই এই কঠিন নির্বাচনে জিতে টানা দ্বিতীয়বারের জন্য প্রধানমন্ত্রীর কুর্শিতে বসতে এখন থেকেই ঘুঁটি সাজাতে শুরু করে দিলেন নরেন্দ্র মোদী। সম্প্রতি মোদী-শাহ জুটি দিল্লিতে দেশের সমস্ত বিজেপি মুখ্যমন্ত্রী-উপমুখ্যমন্ত্রীদের নিয়ে এক মহা-বৈঠক করেন।

সেই বৈঠক থেকেই আগামী লোকসভা নির্বাচনের প্রাথমিক রূপরেখা সামনে এল। নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহ নাকি স্পষ্ট জানতে চান বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলিতে বর্তমানে কি অবস্থা বা সম্মিলিত জোটের বিরুদ্ধে একের বিরুদ্ধে এক লড়াইয়েও কতগুলি আসন জেতার আশা করছেন তাঁরা। এমনকি তা লিখিতভাবেও জমা দিতে বলা হয়েছে। এই মহাবৈঠকে শুধুমাত্র মোদী-শাহ জুটিই নয়, ছিলেন অরুণ জেটলি, রাজনাথ সিং, নীতিন গড়কড়ির মত অন্যান্য শীর্ষনেতারাও। আর বৈঠকের শেষে তাই ঠিক হয়েছে – গতবার যে পথ ধরে সাফল্য এসেছিল, এবারও সেইগুলিকে আগলে রাখতে হবে। সাফল্যের সরণিকে ভুলে গেলে চলবে না।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

আর তাই সূত্রের খবর – গেরুয়া শিবিরের বিশেষ নজরে এবার ৫ রাজ্যের ২০৮ টি আসন। উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, গুজরাত ও মহারাষ্ট্র থেকে ২০১৪ সালে বিজেপি ২০৮ টি আসনের মধ্যে ১৯২ টি আসনে জয়লাভ করে, এরমধ্যে রাজস্থান ও গুজরাতে ছিল ‘ক্লিন সুইপ’। এবারের কঠিন পরিস্থিতিতে আগেরবারের যেটা ১৯২ টি আসন ধরে রাখা মুশকিল মেনে নিয়েও – তার জট কাছাকাছি পৌঁছানো যায় সেই ‘টার্গেট’ স্থির করা হয়েছে। গেরুয়া শিবিরের শীর্ষনেতৃত্ত্ব মনে করছে – এই কাজটি করা গেলেই ক্ষমতায় ফেরার কাজ অনেক সহজ হয়ে যাবে।

তবে কাজটি নিঃসন্দেহে কঠিন মেনে নিচ্ছেন গেরুয়া শিবিরের নেতারাই। কেননা মহারাষ্ট্রে ইতিমধ্যেই জোট ভেঙে গেছে শিবসেনার সঙ্গে। অন্যদিকে গুজরাটে বিধানসভা নির্বাচনে কড়া টক্কর দিয়েছে কংগ্রেস। রাজস্থান ও মধ্যপ্রদেশে লোকসভার আগেই বিধানসভা নির্বাচন, সেখানেও একটা ‘প্রতিষ্ঠান-বিরোধিতা’ হাওয়া আছে। তার উপরে, উত্তরপ্রদেশে দীর্ঘদিনের বৈরিতা ভুলে বিজেপিকে আটকাতে মিলে গেছেন মায়াবতী-অখিলেশ। তাই ২০১৪-এর মত ‘কেক-ওয়াক’ কিছুতেই হবে না ৫ রাজ্যের এই ২০৮ আসন। কিন্তু সেই কঠিন অঙ্ক মেলাতেই এখন থেকে রণকৌশল সাজিয়ে মিশন-২০১৯ শুরু করে দিলেন নরেন্দ্র মোদী-অমিত শাহ জুটি।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!