এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > ইতিহাসের ৫ জন কুখ্যাত সিরিয়াল কিলার নারী , যাদের হিংস্রতা ‘মানবতা’ শব্দটিকে লজ্জা দেয়

ইতিহাসের ৫ জন কুখ্যাত সিরিয়াল কিলার নারী , যাদের হিংস্রতা ‘মানবতা’ শব্দটিকে লজ্জা দেয়



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – আমরা সাধারণত ‘ নারী’ বলতেই একটি কোমল মাতৃ বা জায়া রূপকে কল্পনা করে থাকি। ‘নারীত্ব’ —এই শব্দটির মধ্যে নিহিত আছে এক স্নেহের স্পর্শ। তাই যে কোন ভাষায় যা কিছু কঠিন বস্তু সেগুলোকে পুরুষ লিঙ্গে সম্ভাষণ করা হয়, আর যা কিন্তু নরম, কোমল, মনোরম, তা স্ত্রী লিঙ্গে ভূষিত হয়। তাই সূর্য যদি পুরুষ হয়, তো চাঁদ হলো স্ত্রী; দিন হলো পুরুষ, আর রাত্রি স্ত্রী লিঙ্গ। কিন্তু, মনুষ্য চরিত্র বেজায় জটিল, এতো সহজে কোনো ফরমূলায় বাঁধা যায় না। ইতিহাসে এমন অনেক নারী আছেন যাদের হিংস্রতা পূর্বের সব বাইনারী ফর্মুলাকে নস্যাৎ করে দেয়। আসুন, আপনাদের পরিচয় করিয়ে দিই সেই সব নারীদের সাথে যারা কুখ্যাত সিরিয়াল কিলার ছিলেন।

১. এর্জাবেথ বাথেরি ঃ-
তিনি হাঙ্গেরিতে জন্মগ্রহণ করেন ১৫৬০ সালে(আনুমানিক)। বলা হয়ে থাকে তিনি তার ৫৪ বছরের জীবনে প্রায় ৬০০ জোড়া মানুষকে খুন করেছেন। শুধু মাত্র খুন নয়, খুন করে তাদের রক্ত দিয়ে স্নান করতেন।

২. বেল গানেস ঃ-
১৮৫৯ সালে( আনুমানিক) নরওয়েতে এই নারীর জন্ম হয়। বলা হয়ে থাকে, সে তার জীবনে প্রায় ৪০ জনকে হত্যা করেছে। নিহতদের মধ্যে তার স্বামী, সন্তানও ছিল। সে সাধারণত টাকা কড়ি হাতাবার জন্য খুন করতো।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

৩. লিওনার্দা চিয়ানচিউলি ঃ-
তিনি ১৮৯৪ সালে ইতালিতে জন্মগ্রহণ করেন। তিনজনকে হত্যা করে তিনি কুখ্যাত সিরিয়াল কিলার হয়েছেন। তিনি খুনগুলি করেছিলেন তার ছেলের জন্য। তার ছেলে যখন বিশ্বযুদ্ধে যায় তখন ছেলের প্রাণ রক্ষা করতে তিনি তিনজন মধ্যবয়স্কাকে হত্যা করেন। তিনি মনে করেছিলেন, এতে তার সন্তানের প্রাণ বাঁচবে।

৪. আয়েলিন ক্যারল ঃ-
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। ১৯৮৯ থেকে ১৯৯০ সালের মধ্যে ৭ জনকে খুন করেছিলেন। বলা হয়ে থাকে, ওই ৭ জন তাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছনা করার চেষ্টা করেছিল। তার মৃত্যুদন্ড হয়। তার জীবন কাহিনী নিয়ে আমেরিকায় টিভি সিরিয়াল এবং সিনেমাও হয়েছে।

৫. হুয়ানা বারাথা ঃ-
এই নারীর জন্ম হয় ১৯৫৭ সালে মেক্সিকোতে। তিনি পেশায় কুস্তিগির ছিলেন। তিনি ঠান্ডা মাথায় নিজে হাতে ১১ জনকে হত্যা করেন এবং আরও ৪৯ জনের হত্যার পেছনে তার হাত আছে বলে মনে করা হয়। তিনি এখন জেলে বন্দী জীবন কাটাচ্ছেন।

এতেই শেষ নয়। তবে এই নামগুলি সত্যিই শিরদাঁড়ায় ঠান্ডা স্রোত বইয়ে দেয়।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!