এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > “হি’ন্দুত্ব মিথ্যের ভিত্তিতে তৈরি”, এবার বি’তর্কিত মন্তব্য করে সংবাদ শিরোনামে মিম প্রধান

“হি’ন্দুত্ব মিথ্যের ভিত্তিতে তৈরি”, এবার বি’তর্কিত মন্তব্য করে সংবাদ শিরোনামে মিম প্রধান



আপনাদের সুবিধার্থে খবরের শেষে বিধানসভা ২০২১ উপলক্ষে আমাদের করা সর্বশেষ সমীক্ষার প্রতিটির লিঙ্ক দেওয়া আছে।

আপনার মতামত জানান -

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – বিভিন্ন সময় মুসলিম ধর্মের বিভিন্ন ব্যক্তিকে হিন্দুত্ব নিয়ে বাঁকা কথা বলতে শোনা যায়। একই ভাবে এবার হিন্দুত্বকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করলেন আসাউদ্দিন ওয়াইসি। তিনি এদিন টুইট করে হিন্দুত্বকেই মিথ্যা বলে প্রমাণ করার চেষ্টা করেন। যা নিয়ে তীব্র আলোড়ন পড়ে গিয়েছে জাতীয় রাজনীতিতে। এদিন হিন্দুত্ব নিয়ে খোলাখুলি মনোভাব জানাতে গিয়ে অল ইন্ডিয়া মজলিস-এ-ইত্তেহাদুল মু’সলিমিনের প্রধান আসাউদ্দিন ওয়াইসি তথা AIMIM প্রধান নিজে টুইট করে দাবি করেছেন, হিন্দুত্ব একটি মিথ্যার ওপর ভিত্তি করে তৈরি হয়েছে। যেখানে শুধুমাত্র একটি সম্প্রদায়ের কাছেই রাজনৈতিক ক্ষমতা থাকছে।

যথারীতি বুঝতে বাকি নেই, এই টুইট কেন্দ্রীয় বিজেপি শক্তিকে উদ্দেশ্য করেই করা। এবং হিন্দুত্ব নিয়ে বাজে কথা বলায় ইতিমধ্যেই আসাউদ্দিন ওয়াইসির তুমুল সমালোচনা শুরু করেছে বিজেপি শিবির। কট্টর হিন্দুত্ববাদী নেতারা আসাউদ্দিন ওয়াইসির এই ধরনের টুইটে শুরু করেছেন তীব্র সমালোচনা। এদেশে থেকে হিন্দুত্ব নিয়ে তিনি কিভাবে বিরোধিতা প্রকাশ করলেন, তাই নিয়েও শুরু হয়ে গিয়েছে বিতর্ক। অনেক বিজেপি নেতা পাল্টা আসাউদ্দিন ওয়াইসিকে উল্লেখ করে বলেছেন, পাকিস্তানে গিয়ে মুসলিম সম্প্রদায়কে নিয়ে বরঞ্চ আসাউদ্দিন ওয়াইসি কিছু বলে দেখান। আসাউদ্দিন ওয়াইসি এদিন যে টুইটটি করেছেন সেখানে বলা হয়েছে, হিন্দুত্ববাদ নিয়ে বরাবরই একটি মিথ্যা প্রচার চালানো হয়েছে।


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

পাশাপাশি শুধুমাত্র একটি সম্প্রদায়ের হাতেই সমস্ত রাজনৈতিক ক্ষমতা কুক্ষিগত থাকছে। মুসলমানদের রাজনীতিতে অংশ নেওয়ার কোন অধিকার নেই। যদিও সংসদে এবং বিধানসভাতে মুসলমানদের উপস্থিতি থাকলেও তাঁদের কোনো ক্ষমতা দেওয়া হয়না। এ প্রসঙ্গে তিনি হিন্দুত্ববাদের পাশাপাশি সংঘের নেতাদেরও একহাত নিয়েছেন। তাঁর মতে, যদি আসাউদ্দিন একদিন না থাকেন, তাহলে রীতিমতো উৎসব পালন করবে হিন্দুত্ববাদী নেতারা। অন্যদিকে হিন্দুত্ববাদের এ ধরনের ব্যাখ্যা করায় খুব স্বাভাবিকভাবেই নিন্দার মুখে পড়েছেন আসাউদ্দিন। প্রশ্ন উঠেছে, হিন্দুত্ববাদ নিয়ে আসাউদ্দিন ওয়াইসি কতটা কি জানেন তাই নিয়ে। অনেকেই আবার তাঁকে পরামর্শ দিয়েছেন, হিন্দুত্ব নিয়ে কথা না বলে নিজের ধর্মের দিকে মন দিতে।

পাশাপাশি বিজেপি নেতারা মিম নেতার সমালোচনা করতে গিয়ে পাল্টা তাঁকে মুসলিম ধর্মের অনাচার প্রসঙ্গে বার্তা রাখার আহ্বান জানিয়েছে। সবমিলিয়ে মিম প্রধান কিন্তু এক প্রকার দেশের গেরুয়া শক্তির সঙ্গে সংঘাতে জড়িয়ে পড়লেন বলে মনে করা হচ্ছে। অন্যদিকে দেশের বিরোধীরা কিন্তু মিমকে একপ্রকার বিজেপির মুসলিম সংগঠন বলেই অভিহিত করে। ভোট কাটার জন্য যে তাঁরা বিরোধীদের কাছে ক্রমশ ভিলেন হয়ে গিয়েছে তা বিহার বিধানসভা নির্বাচনেই স্পষ্ট। প্রশ্ন উঠেছে, তাহলে কি আসাউদ্দিন ইচ্ছা করেই হিন্দুত্ববাদী নিয়ে এমন মন্তব্য করলেন, যেখানে গেরুয়া শিবিরের সঙ্গে তাঁর বিভেদ চোখে পড়ে! তিনি কি নিজের দলের সত্যতা নিয়ে বিচলিত? আর তাই এহেন বিতর্কিত মন্তব্য করলেন!

একনজরে দেখে নিন আমাদের সর্বশেষ বিধানসভা ২০২১ ওপিনিয়ন পোল –

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – দ্বিতীয় পর্ব – 

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – প্রথম পর্ব – 

# মালদহ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# উত্তর দিনাজপুরে জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# জলপাইগুড়ি ও কালিম্পঙ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# আলিপুরদুয়ার ও দার্জিলিং জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# কুচবিহার জেলার ওপিনিয়ন পোল –

আপনার মতামত জানান -
আপনার মতামত জানান -

ট্যাগড
Top
error: Content is protected !!