এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > হেভিওয়েট বিরোধী নেতার সঙ্গে বৈঠকে প্রশান্ত কিশোর, বাড়ছে জল্পনা!

হেভিওয়েট বিরোধী নেতার সঙ্গে বৈঠকে প্রশান্ত কিশোর, বাড়ছে জল্পনা!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট –  2019 এর লোকসভা নির্বাচনের পর বাংলার শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের রাজনৈতিক পরামর্শদাতা হিসেবে নিয়োজিত হন তিনি। পরবর্তীতে বিজেপির প্রভাব বাংলায় বৃদ্ধি পাওয়া সত্ত্বেও, বিজেপি দুই অঙ্কের সংখ্যা পার করতে পারবে না বলে জানিয়ে দিয়েছিলেন প্রশান্ত কিশোর। শেষ পর্যন্ত তার সেই কথা বাস্তব রূপ নিয়েছে। তৃণমূল রাজনৈতিক পরামর্শদাতা হিসেবে যে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছিলেন প্রশান্ত কিশোর, অক্ষরে অক্ষরে পালন করেছেন তিনি। বাংলার বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশ হওয়ার পর দেখা গিয়েছে, প্রবল ম্যাজিক থাকা সত্ত্বেও, বাংলায় অটুট থেকেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ক্যারিশমা।

তৃতীয়বারের জন্য 213 টি আসন নিয়ে বাংলার ক্ষমতা দখল করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। অন্যদিকে 77 টি আসন দখল করে বিরোধী দলের জায়গা পেয়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি। আর এরপর থেকেই সর্বভারতীয় ক্ষেত্রে ক্রমশ গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে শুরু করেছে বাংলার শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। লোকসভা নির্বাচনের দিকে তাকিয়ে দলকে বিস্তারলাভ করাতে একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করতে দেখা যাচ্ছে ঘাসফুল শিবিরকে। তৃণমূলের পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে, আগামী দিনে লোকসভা নির্বাচনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হবেন বিরোধী দলের নির্ণায়ক শক্তি।

এক্ষেত্রে নরেন্দ্র মোদীকে সরাতে একমাত্র মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সক্ষম বলেও দাবি করতে দেখা যাচ্ছে বিভিন্ন বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতা-নেত্রীদের। আর এই পরিস্থিতিতে জল্পনা বাড়িয়ে দেশের অন্যতম বিজেপি বিরোধী নেতা হিসেবে পরিচিত শরদ পাওয়ারের সঙ্গে বৈঠক করতে দেখা গেল এতদিন তৃণমূলের রাজনৈতিক পরামর্শদাতার দায়িত্ব পালন করা তথা বিশিষ্ট ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশোরকে। স্বভাবতই শারদ পাওয়ারের সঙ্গে প্রশান্ত কিশোরের এই বৈঠককে কেন্দ্র করে জল্পনা বাড়তে শুরু করেছে। যার ফলে আশা তৈরি হয়েছে বাংলার শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেসের অন্দরে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত সপ্তাহে শরদ পাওয়ারের সঙ্গে একপ্রস্থ বৈঠক করেছেন প্রশান্ত কিশোর। আর এক সপ্তাহ কাটতে না কাটতেই আবার হেভিওয়েট বিজেপি বিরোধী নেতার সঙ্গে বৈঠক করতে দেখা গেল বিশিষ্ট ভোট কৌশলীকে। একাংশ বলছেন, প্রশান্ত কিশোর বিজেপি বিরোধী নেতা হিসেবে পরিচিত শরদ পাওয়ারের সঙ্গে বৈঠক করে বিরোধী মহাজোটকে চাঙ্গা করার চেষ্টা করতে চাইছেন। অর্থাৎ আগামী দিনে সমস্ত বিজেপি বিরোধী দলগুলো যাতে একত্রিত হয়ে কাজ করে এবং বিজেপির অস্বস্তি বাড়িয়ে দিতে পারে, তার জন্য এখন থেকেই প্রস্তুতি শুরু করে দিতে চাইছেন বিশিষ্ট এই নির্বাচনী রণনীতিকার।

এখনও পর্যন্ত তার সঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের সম্পর্ক রয়েছে। সেদিক থেকে তৃণমূল কংগ্রেস চাইছে, সর্বভারতীয় ক্ষেত্রে বিস্তার লাভ করতে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সামনে রেখে ভারতবর্ষের নির্ণায়ক শক্তি হওয়ার প্রাণপণ চেষ্টা শুরু করেছে ঘাসফুল শিবির। সেদিক থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দূত হিসেবে শরদ পাওয়ারের সঙ্গে দেখা করে কি আগামী দিনের জোট নিয়ে কথা বললেন প্রশান্ত কিশোর, তা নিয়েও রাজনৈতিক মহলে শুরু হয়েছে জল্পনা।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

কি নিয়ে এই বৈঠক? এদের এই প্রসঙ্গে এনসিপি নেতা নবাব মালিক বলেন, “এই বৈঠক 2024 এর লোকসভা নির্বাচনকে মাথায় রেখে। যেখানে প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদীকে চ্যালেঞ্জ জানানোর মত সর্বসম্মত একজনকে তুলে ধরার বিষয়টি গুরুত্ব পেয়েছে।” আর এনসিপি নেতার এই মন্তব্য থেকেই আরও জল্পনা তৈরি হয়েছে, তাহলে কি সর্বভারতীয় ক্ষেত্রে বিরোধী মহাজোটের সলতে পাকানোর কাজ শুরু হয়ে গেল? যেভাবে কিছুদিন আগে বাংলার নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে এবং সেখানে নরেন্দ্র মোদী এবং অমিত শাহের মত তাবড় তাবড় নেতারা প্রচারে আসা সত্ত্বেও, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রমাণ করে দিয়েছেন তার ক্যারিশমা, সেখানে বিরোধী মহাজোটের মুখ নিয়ে শরদ পাওয়ারছর সঙ্গে প্রশান্ত কিশোরের বৈঠক অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ।

তাহলে কি আগামী দিনে 2024 এর লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে বিজেপির অস্বস্তি বাড়িয়ে দিতে গঠন হতে চলেছে বিরোধী মহাজোট? আর সেই মহাজোটের নেতৃত্ব দিতে চলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়! দুই হেভিওয়েট রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের বৈঠকের পর এমন গুঞ্জন ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে। তবে জল্পনা যে পর্যায়েই পৌছক না কেন, বিজেপিকে চাপে রাখতে 2024 এর লক্ষ্য নিয়ে এখন থেকেই যে পথ চলা শুরু করে দিতে চাইছেন প্রশান্ত কিশোর এবং সেই কারণেই শারদ পাওয়ারের মত অভিজ্ঞ নেতার সঙ্গে যে তার এই বৈঠক, তা বলাই যায়। সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!