এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > হেভিওয়েট তৃণমূলী সহ ৪ বিরোধী MP-র বিরুদ্ধে দুর্ব্যবহারের অভিযোগে ব্যবস্থা নেবেন উপরাষ্ট্রপতি?

হেভিওয়েট তৃণমূলী সহ ৪ বিরোধী MP-র বিরুদ্ধে দুর্ব্যবহারের অভিযোগে ব্যবস্থা নেবেন উপরাষ্ট্রপতি?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – আজ রবিবার সকাল থেকেই কৃষি বিল নিয়ে রাজ্যসভায় বিভিন্ন দলের সাংসদদের মধ্যে তুমুল হট্টগোল দেখা দিল। এই বিলদুটিকে বিরোধীরা সংসদের সিলেক্ট কমিটিতে কমিটিতে পাঠানোর দাবি জানায়। তাঁদের বিরোধিতা ও তুমুল হট্টগোলের ফলে রাজ্য সভার অধিবেশন বসতে বসতে দুপুর ১ টা বেজে যায়। এ কারণে এই বিলের বিষয়ে কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমরের জবাব আগামিকাল সোমবার পর্যন্ত স্থগিত রাখার দাবি করে বিরোধীরা। কিন্তু রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশ নারায়ান সিংহ তাদের দাবি সম্পূর্ণ খারিজ করে দেন। এই ঘটনায় বিরোধীরা পুনরায় বিক্ষোভ দেখতে আরম্ভ করে।

সংবাদ সংস্থা এএনআই এর সূত্র অনুযায়ী, আজ রাজ্যসভায় বাকবিতণ্ডা চলাকালীন ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশ নারায়ণ সিং এর পেডিয়ামের মাইক কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন কংগ্রেস সাংসদ রিপুন বোরা, তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন, আপ সাংসদ সঞ্জয় সিং, ডিএমকে সাংসদ ত্রিরুচি শিবা। এই সাংসদেরা তাঁর বিরুদ্ধে ক্রমাগত স্লোগান দিতে থাকেন। অভিযোগ উঠেছে এসময় রুলবুক, কাগজপত্রও তাঁরা ছিড়েছেন।

তবে, এ প্রসঙ্গে বিরোধীরা জানিয়েছেন যে, রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশ নারায়ান সিংহকে রুলবুক দেখাবার চেষ্টা করেছিলেন তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন। কিন্তু তাঁকে বাধা দেন রাজ্যসভার মার্শাল। সেই সময় ১০ মিনিটের জন্য অধিবেশন মুলতবি রাখা হয়েছিল। পরে অধিবেশন শুরু হলে, ধ্বনিভোটে পাস্ হয় বিলগুলি। এরপর কংগ্রেস, তৃণমূল তৃণমূল, বাম, ডিএমকে সাংসদেরা ধর্নায় বসেন রাজ্যসভায়। লোকসভা অধিবেশন শুরুর পূর্ব পর্যন্ত চলে তাদের ধর্ণা।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

রাজ্যসভায় বিরোধীদের এই বাকবিতণ্ডা প্রসঙ্গে রাজ্যসভার কংগ্রেসি সাংসদ আহমেদ প্যাটেল বলেছেন, ” ওঁর (রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান) গণতান্ত্রিক ঐতিহ্য রক্ষা করা উচিত। কিন্তু তার পরিবর্তে আজ ওঁনার যে হাবভাব ছিল, তাতে গণতান্ত্রিক ঐতিহ্য ও প্রক্রিয়া ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তাই তাঁর বিরুদ্ধে আমরা অনাস্থা প্রস্তাব আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ”

এ প্রসঙ্গে সংবাদ সংস্থা এএনআই পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, কংগ্রেস, তৃণমূল, সপা, আরজেডি, বাম, টিআরএস ও মুসলিম লিগের সদস্যরা সদ্য নির্বাচিত রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান হরিবংশ নারায়ণ সিং এর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব এসেছে। তারা একত্রিত হয়ে অনাস্থা প্রস্তাবে স্বাক্ষরও করেছে।

অন্যদিকে তাদের এই আচরণে যথেষ্ট ক্ষুব্ধ রাজ্যসভার চেয়ারম্যান বেঙ্কাইয়া নাইডু। তাই তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণের পরিকল্পনা করছেন তিনি। তিনি রাজ্যসভার ডেপুটি স্পিকারের সঙ্গে দুর্ব্যবহারের অভিযোগ এনেছেন কংগ্রেস, তৃণমূল সহ বেশ কিছু বিরোধী সাংসদের বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে রাজ্যসভার চেয়ারম্যান তথা উপরাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নাইডুর বাসভবনে এক বিশেষ বৈঠকের আয়োজন করেছেন রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান, সংসদীয় বিষয়কমন্ত্রী প্রহ্লাদ জোশী, রাজ্যসভার ডেপুটি নেতা পীযূষ গোয়েল।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!