এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > জেলায় আসতে চলেছে বড়সড় ভাঙ্গন, আটকাতে মরিয়া হেভিওয়েট মন্ত্রী আবেদন রাখলেন শুভেন্দুর কাছে

জেলায় আসতে চলেছে বড়সড় ভাঙ্গন, আটকাতে মরিয়া হেভিওয়েট মন্ত্রী আবেদন রাখলেন শুভেন্দুর কাছে



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – রাজ্যে ধীরে ধীরে গুটিগুটি পায়ে আসতে শুরু করেছে বর্ষা। অতীত অভিজ্ঞতা খুব একটা ভালো নয়। উপকূলবর্তী জেলাগুলোর ব্যাপক ভাঙ্গন লক্ষ্য করা যায়। সদ্য ভয়াবহ দুর্যোগের সেরে ওঠার পর রাজ্যে যদি এবার বর্ষা শুরু হয় এবং ভাঙ্গন শুরু হয়, তাহলে তাকে কিভাবে মোকাবিলা করা যাবে, তা নিয়ে চিন্তায় রয়েছেন সকলেই। আর এই পরিস্থিতিতে সেই বর্ষার আগে পূর্ব বর্ধমান জেলার একাধিক জায়গায় ভাঙ্গন রোধ করতে রাজ্যের মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর কাছে আবেদন জানালেন রাজ্যের আরেক গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

সূত্রের খবর, শুক্রবার পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসনের সঙ্গে একটি ভিডিও কনফারেন্স করেন রাজ্যের সেচমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। আর সেখানেই জেলার সমুদ্রগড় এলাকায় জলুইডাঙার ভাঙন নিয়ে সেচমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানান স্বপন দেবনাথ।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বর্তমানে যে জায়গায় এসে ভাঙ্গন তৈরি হয়েছে, তার কুড়ি ফুট দূরে ব্যান্ডেল কাটোয়া রেল লাইন রয়েছে। বর্তমানে করোনা পরিস্থিতির জন্য রেল চলাচল কিছুটা হলেও বন্ধ রয়েছে। কিন্তু অনেক যাত্রী বোঝাই ট্রেন রেল লাইন দিয়ে পারাপার করে। তাই যদি একবার ভাঙ্গন শুরু হয়ে যায়, তাহলে পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। তাই এমতাবস্তায় শুক্রবার ভিডিও কনফারেন্সে এই গোটা বিষয়টি রাজ্যের মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর কাছে তুলে ধরেন স্বপন দেবনাথ।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এদিকে এদিনের ভিডিও কনফারেন্স শেষে জেলাশাসক বিজয় ভারতীকেও গোটা ব্যাপারটি জানান রাজ্যের এই হেভিওয়েট মন্ত্রী। এদিন এই প্রসঙ্গে স্বপন দেবনাথ বলেন, “রেললাইন সংস্কারের দায়িত্ব কেন্দ্রের। রেল কর্তৃপক্ষ ওই অংশটা সংস্কার করবে। তবুও আমাদের অংশটি সংস্কারের জন্য মন্ত্রীকে জানিয়েছি। আমাদের জেলায় কালনা ও কাটোয়ায় রয়েছ ভাগীরথী, অজয় নদ। বিস্তীর্ণ এলাকায় বর্ষার সময় ভাঙ্গন হয়। সেই বিষয়টি জানানো হয়েছে। বর্ষার আগে সংস্কার না হলে নিকাশি সমস্যা হবে। তাই আমাদের আগে থেকে সতর্ক থাকতে হবে। জলাশয়ে কচুরিপানা থাকলে মশার উপদ্রব বাড়ে। তাই খাল, জলাশয়গুলো সংস্কারের জন্য মন্ত্রীকে জানিয়েছি। সংস্কার হলে মাছের উৎপাদন ভালো হবে। অবিলম্বে সংস্কার করবেন বলে তিনি আমাকে জানিয়েছেন।”

অর্থাৎ সামনেই বর্ষায় যাতে মানুষের অসুবিধা না হয় এবং ভাঙ্গন কিছুটা হলেও আগে থেকে আটকানো যায়, তার জন্য এবার জেলার সমস্যার কথা রাজ্যের সেচমন্ত্রীর কাছে তুলে ধরলেন স্বপন দেবনাথ। এখন সেচ দপ্তরের পক্ষ থেকে বর্ষার আগে উদ্যোগ নিয়ে কতটা এই ভাঙ্গন পরিস্থিতির মোকাবিলা করা সম্ভব হয়, তার দিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!