এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > একের পর এক হেভিওয়েট নেতা করোনা আক্রান্ত, রাজনৈতিক “ভাবনায়” বদলের পথে বহু আতঙ্কিত নেতাই!

একের পর এক হেভিওয়েট নেতা করোনা আক্রান্ত, রাজনৈতিক “ভাবনায়” বদলের পথে বহু আতঙ্কিত নেতাই!



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – করোনা ভাইরাস যেন সম্পূর্ণরূপে ঘিরে ফেলেছে বাংলার রাজনৈতিক অলিন্দকে। সাধারণ মানুষদের আক্রান্ত করার পর এবার রাজনীতিবিদদের আক্রমণ করতে শুরু করেছে ভয়াবহ এই ভাইরাস। ইতিমধ্যেই করো না ভাইরাসের আক্রমণে প্রয়াত হয়েছেন রাজ্য তৃণমূল বিধায়ক তমোনাশ ঘোষ। এই ভাইরাস থেকে রক্ষা পাওয়ার একটাই উপায় সেটা হল সামাজিক দূরত্ব পালন করা।

কিন্তু জনপ্রতিনিধিরা কি করে সামাজিক দূরত্ব পালন করবেন! ভয়াবহ সংকটে তাদের প্রতি মুহূর্তে মানুষের পাশে থাকতে হচ্ছে। আর সেই মানুষের কাজ করতে গিয়ে নানা সময়ে সংক্রমিত মানুষদের সঙ্গে সংস্পর্শে এসে শাসক-বিরোধী অনেক জনপ্রতিনিধি এখন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন। বামেদের অশোক ভট্টাচার্য থেকে শুরু করে মুকুল সেনগুপ্ত, তৃণমূলের নির্মল ঘোষ থেকে শুরু করে সুজিত বসু, অন্যদিকে বিজেপি রাজু বিশ্বাস প্রায় প্রত্যেকেই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত।

তৃনমূলের তমোনাশ ঘোষ এই করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর পর আরও চিন্তা বেড়েছে বাংলার রাজনীতিবিদদের। আর এই অবস্থায় মানুষের সঙ্গে জনসংযোগের ক্ষেত্রেও বেশ কিছুটা সচেতনতা পালন করতে হচ্ছে বাংলার রাজনৈতিক নেতা-নেত্রীদের। আগের মতই তারা কি এখন মানুষের সঙ্গে সংস্পর্শে আসছেন, নাকি করোনা ভাইরাসের কারণে বেশ কিছুটা সর্তকতা অবলম্বন করছেন তারা?

 

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

 

এদিন এই প্রসঙ্গে তৃণমূলের সুব্রত মুখোপাধ্যায়, কংগ্রেসের প্রদীপ ভট্টাচার্য এবং বামফ্রন্টের বিশ্বনাথ চৌধুরী বলেন, “দীর্ঘ ত্রিশ চল্লিশ বছর ধরে রাজনীতির যে ধারায় আমরা অভ্যস্ত, এখন তা বদলাতে হচ্ছে। করমর্দনের পাট চুকিয়ে দূর থেকেই হাতজোড় করে নমস্কার সারতে হচ্ছে। দলীয় কর্মীদের কাছে টেনে গায়ে মাথায় হাত বুলিয়ে ভালো-মন্দের খোঁজ নেওয়াটাই এতদিন মূল বিষয় ছিল। কিন্তু এখন পরিস্থিতির জন্য সেই সমস্ত কিছু দূরে রাখতে হচ্ছে।”

অর্থাৎ প্রবীণ রাজনীতিবিদরা এতদিন যেভাবে রাজনীতি করেছেন, করোনা ভাইরাস যে তার সমস্ত কিছু বদলে দিচ্ছে, তা তাদের কথা থেকেই একপ্রকার উঠে এসেছে। আর আর তার কারণে যে তারা অনেকটাই এই পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে নিতে অসুবিধা বোধ করছেন, তাও প্রকাশ করতে ভোলেননি এই সমস্ত নেতারা। কিন্তু সাথে সাথে তারা এটাও বলেছেন যে, বর্তমান পরিস্থিতির সঙ্গে খাপ খাইয়ে নেওয়া ছাড়া কোনো উপায় নেই। কারণ সবার আগে জীবন। তাই করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য সামাজিক দূরত্ব পালন করে এভাবেই জনসংযোগ সেরে নেওয়া অভ্যাস করছেন বাংলার হেভিওয়েট রাজনীতিবিদরা।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!