এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > কংগ্রেস > হাত শুন্য দাক্ষিণাত্যে, তীব্র উদ্বেগে দেশের প্রাচীনতম দলটি

হাত শুন্য দাক্ষিণাত্যে, তীব্র উদ্বেগে দেশের প্রাচীনতম দলটি



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – উত্তর থেকে দক্ষিনে একসময় তীব্র আধিপত্য ছিল কংগ্রেসের। তবে, সারাদেশেই সম্প্রতি সার্বিকভাবে দুর্বল হয়ে পড়েছে ভারতের প্রাচীনতম রাজনৈতিক দলটি। উত্তর ভারতের বেশকিছু রাজ্যে কংগ্রেসের আধিপত্য থাকলেও, দক্ষিণ ভারতে শিবরাত্রির সলতে হয়ে ছিল পন্ডিচেরি বিধানসভা। যেখানে ছিল কংগ্রেসের জোট সরকার। গতকাল আস্থাভোটে পরাজয়ের পর দক্ষিণ ভারত থেকে একেবারে ধুয়ে-মুছে সাফ কংগ্রেস।

গতকাল সোমবার আস্থাভোটে পরাজয় ঘটল পন্ডিচেরির প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী নারায়ণ স্বামীর। প্রসঙ্গত, গত রবিবার কংগ্রেস বিধায়ক কে লক্ষ্মীনারায়ণ, দ্রমুক বিধায়ক ভেঙ্কটেশনের ইস্তফা দেওয়ার পর কংগ্রেস-দ্রমুক জোটের বিধায়ক সংখ্যা প্রয়োজনীয় বিধায়ক সংখ্যার চেয়ে কমে গিয়েছিল। বিরোধীদের দাবিতে ডাকা হয় আস্থাভোটে। আস্থাভোটে পরাজয়ের পর উপ রাজ্যপালের কাছে গিয়ে ইস্তফা পত্র জমা দিয়েছেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী নারায়ণস্বামী।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

পন্ডিচেরিতে কংগ্রেসের জোট সরকারের পতনের পর দক্ষিণ ভারতে সম্প্রতি একটি রাজ্যেও আর কংগ্রেস সরকার রইলো না। গত ২০১৯ সালে কর্নাটকে আস্থাভোটে পরাজয় ঘটেছিল কংগ্রেসের। এবার পন্ডিচেরিতেও আস্থাভোটে পরাজয় ঘটল কংগ্রেসের। একসময় কংগ্রেসের শক্তিশালি গড় বলে পরিচিত ছিল দক্ষিণ ভারত। এবার সেই দক্ষিণ ভারতই কংগ্রেস শুন্য। যা দলের কাছে অত্যন্ত উদ্বেগজনক।

প্রসঙ্গত, গত ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির কাছে পরাজয়ের পর থেকে কংগ্রেস যথেষ্টভাবে দুর্বল হয়ে পড়েছে। যদিও বেশ কিছু রাজ্যে কংগ্রেস শাসন ফিরে এসেছে। তবে, সার্বিক বিচারে কংগ্রেসের অবস্থা আশাপ্রদ নয়। দেশের সর্বমোট পাঁচটি রাজ্য কংগ্রেসের একক বা জোট সরকার ক্ষমতায় আছে। এই রাজ্যগুলো হলো পাঞ্জাব, রাজস্থান, ছত্তিশগড়, মহারাষ্ট্র, ঝাড়খন্ড।

বিজেপির বাড়বাড়ন্তের কাছে কংগ্রেস অনেকাংশেই দুর্বল হয়ে পড়ছে। মধ্যপ্রদেশে কংগ্রেস ক্ষমতায় ফিরলেও, দুবছর পরেই কংগ্রেস সরকারের পতন ঘটে। জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া সহ বেশকিছু কংগ্রেস বিধায়ক যোগদান করেন বিজেপিতে। কর্ণাটক রাজ্যের বেশকিছু বিধায়কের কংগ্রেস ছেড়ে দিলে কংগ্রেস জোট সরকারের পতন ঘটে। কয়েকমাস আগে রাজস্থানেও কংগ্রেস বিপাকে পড়েছিল, তবে পরিস্থিতি শেষ পর্যন্ত সামাল দিতে পেরেছে।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!