এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > গ্রেফতার অনুব্রতর ভাই, অস্বীকার অনুব্রতর, জোর টালমাটাল বোলপুরে

গ্রেফতার অনুব্রতর ভাই, অস্বীকার অনুব্রতর, জোর টালমাটাল বোলপুরে



এবার চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটলো অনুব্রত গড়ে। জানা যাচ্ছে সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া নিজেকে অনুব্রত মণ্ডলেরখুড়তুতো ভাই বলে দাবি করা সুমিত মণ্ডলকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আর এই নিয়ে সরব বিজেপির অভিযোগ প্রতিহিংসার রাজনীতি করছে তৃণমূল। যা নিয়ে এখন সরগরম রাজ্য রাজনীতি। যদিও পুলিশের দাবি, পুরনো একটি মামলার অভিযোগে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কিন্তু বিরোধী দলের দাবি, বিজেপিতে যোগদান করার পরেই কেন পুরনো মামলার কথা উঠে এলো এবং সুমিত রঞ্জনকে গ্রেফতার করা হলো?

2019 এর লোকসভা ভোটের পরেই বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের একনিষ্ঠ কর্মী অনুব্রত মণ্ডলের ভাই সুমিত রঞ্জন মন্ডল। এবার সেই সুমিত রঞ্জন মন্ডলকে বোলপুর শহরের চৌরাস্তা সংলগ্ন বাজার থেকে পুলিশ একটি মামলা সূত্রে বলপূর্বক গ্রেফতার করেছে।

সূত্রের খবর, সুমিত রঞ্জন মন্ডল অনুব্রত মন্ডলের নিজের ভাই নয়, খুড়তুতো ভাই। স্থানীয় সূত্র থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী জানা গেছে, সুমিত রঞ্জন মন্ডল পেশায় শিক্ষক। এবং তিনি বোলপুরের কালিকাপুরে থাকেন। এদিন তিনি এক অসুস্থ আত্মীয়কে দেখতে নিজের গাড়িতে কির্ণাহার যাচ্ছিলেন। হঠাৎই বোলপুর বাজারের কাছে বোলপুর থানার পুলিশ তাঁর গাড়ি আটকায়। এরপর সুমিতকে জোরজবরদস্তি গাড়ি থেকে টেনে-হিঁচড়ে বার করে পুলিশ নিজেদের গাড়িতে তুলে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ। এর কিছুক্ষণের মধ্যেই সুমিতের গ্রেপ্তারের খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে দাবানলের মত।

গাড়ি থেকে নামিয়ে যখন সুমিতকে পুলিশ গ্রেফতার করছে, তার একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। যদিও এই ভিডিওর সত্যতা প্রিয় বন্ধু মিডিয়া যাচাই করে দেখেনি। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ভিডিও পোস্ট হওয়ার সাথে সাথে প্রতিবাদে ফেটে পড়েন বিজেপি নেতারা। এই ভিডিওটি প্রথম পোস্ট করেন অনুপম হাজরা এবং তিনিই প্রথম প্রতিবাদ শুরু করেন। তার অভিযোগ জানান এই বলে, “বিনা কারণে, শুধুমাত্র বিজেপি করার অপরাধে সুমিতকে পুলিশ নির্মমভাবে গাড়ি থেকে নামিয়ে গ্রেফতার করেছে। এই ঘটনার আমি তীব্র নিন্দা করছি।”


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

গত 28 এ জুন অনুব্রতের ভাই সুমিত রঞ্জন মন্ডল বোলপুর রেল ময়দান মাঠে বিজেপিতে আনুষ্ঠানিক যোগদান করেন। বিজেপিতে যোগদান করার পরেই অনুব্রত মণ্ডল ঘোষণা করেন সুমিত রঞ্জন মন্ডলের সাথে তার পরিবারের কোন সম্পর্ক নেই। দলীয় সূত্রের খবর, বর্তমানে সুমিত রঞ্জন মন্ডল বিজেপি শিক্ষক সমিতির সদস্য হয়ে কাজ করছিলেন। সুমিতের গ্রেপ্তারির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, “পুলিশের কাজ শান্তি রক্ষা করা। সুমিত তো কোনো অশান্তির সৃষ্টি করেনি। তাহলে পুলিশ কেন জোর খাটিয়ে শ্রমিককে গ্রেফতার করল?”

এই গ্রেপ্তারির ঘটনায় জেলা পুলিশ সুপার শ্যামল সিংহ এ দিন জানিয়েছেন, “সুমিত মন্ডল আগের একটি মামলায় ‘ওয়ান্টেড’ ছিলেন। সেই কারণেই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে।” অন্যদিকে তৃণমূল নেতা অনুব্রত মণ্ডল এদিন জানান, “ও (সুমিত) আমার সম্পর্কে কেউ হয়না। ওর সম্পর্কে কিছু বলতে চাইনা!”

অন্যদিকে বিরোধীরা দাবি করেছে, সুমিত রঞ্জন মন্ডলকে শুধুমাত্র বিজেপি করার অপরাধেই পুলিশ এতদিন পরে পুরনো মামলার সূত্রে গ্রেফতার করল। এই ঘটনায় বিজেপি সদস্যরা তুমুল প্রতিবাদ জানায়। সমগ্র বোলপুর জুড়ে উত্তেজনা চরমে। আপাতত ঘটনার রেশ কোন দিকে গড়ায় সেদিকে নজর রাখবে রাজনৈতিক মহল। তবে এই ঘটনায় এখনো পর্যন্ত শাসক নেতৃত্বের তরফ থেকে কোনো বিবৃতি জারি করা হয়নি।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!