এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > গ্রেপ্তারির পর আদালতের নির্দেশে চাপ আরও বাড়ল অর্ণব গোস্বামীর? দেশজুড়ে ক্রমশ বাড়ছে শোরগোল

গ্রেপ্তারির পর আদালতের নির্দেশে চাপ আরও বাড়ল অর্ণব গোস্বামীর? দেশজুড়ে ক্রমশ বাড়ছে শোরগোল



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট- বছর দুয়েকের আগে রিপাবলিক টিভির সম্পাদক অর্ণব গোস্বামীর বিরুদ্ধে ৫ কোটি ৪০ লক্ষ টাকা ঋণ নিয়ে শোধ না করা এবং আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগ উঠেছিল। বস্তুত, ২০১৮ সালে মুম্বইয়ের এক ইন্টেরিয়র ডিজাইনার এবং তাঁর মায়ের আত্মহত্যা করার কথা জানা যায়।

এরপর পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছিল, তাঁদের সুইসাইড নোটে নাকি অর্ণব গোস্বামী ৫ কোটি ৪০ লক্ষ টাকা শোধ না করায় তারা আর্থিক অনটনে পড়ে এবং সেকারণেই তারা আত্মহত্যা করছে বলে দাবি করা হয়েছিল। যার ওপর ভিত্তি করে ওই ইন্টেরিয়র ডিজাইনারের ছেলে অর্ণবের বিরুদ্ধে ঋণখেলাপি এবং আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল বলে জানা গেছে।

তবে গতবছর প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশ এই মামলাটি বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেও, সম্প্রতি নতুন সরকার আসার পর তা আবার চালু করা হয় বলেই জানা জয়। আর সেই মামলাতেই সিআইডি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিল মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ। যার প্রেক্ষিতেই গতকাল সকালে কোনও আগাম নোটিস ছাড়াই অর্ণবের বাড়িতে হানা দিতে দেখা গিয়েছিল মুম্বই পুলিশের একটি দলকে।

যেখানে সিআইডি এবং মুম্বই পুলিশের ১০-১২ জন আধিকারিক অর্ণবের বাড়িতে গিয়েছিল বলে জানা যায়। তবে বাকি অন্তত ৪০-৪৫ জন পুলিশ আধিকারিককে তাঁর বাড়ির বাইরে অপেক্ষা করতে দেখা যায়। এরপর কিছুক্ষণ পর অর্ণব বাবুকে কার্যত একপ্রকার টানতে টানতেই থানায় নিয়ে যেতে দেখা যায় পুলিশকে।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

আর এই ঘটনায় রিপাবলিক টিভির তরফে বলা হয়, অর্ণবকে একপ্রকার জোর করেই টেনে-হিঁচড়ে নিয়ে থানায় যাওয়া হয়েছে। শুধু তাই নয়, তাঁর শ্বশুর, শাশুড়ি, স্ত্রী এবং ছেলেকেও পুলিশ হেনস্তা করেছে বলেও দাবি করেছেন তাঁরা। তবে এরপরই দেশজুড়ে মুম্বই পুলিশের ভুমিকা নিয়ে বিক্ষোভ শুরু করে বিজেপি।

গতকাল দিল্লি-মুম্বই-সহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তে একেবারে বিজেপির পতাকা নিয়ে বিক্ষোভ দেখাতে দেখা যায় অসংখ্য মানুষকে। একজন সাংবাদিকের সমর্থনে কোনও এক রাজনৈতিক দলের বিক্ষোভের এই ঘটনা নিয়ে চোখ কপালে ওঠে অনেক মানুষেরই। অন্যদিকে অর্ণবের গ্রেপ্তারির জন্য মুম্বই পুলিশকে ধন্যবাদ দিতে দেখা গেছে প্রয়াত ইন্টেরিয়র ডিজাইনার অনভয় মালিকের স্ত্রী অক্ষতা মালিককে।

অর্ণবের গ্রেপ্তারিতে তিনি বলেন, তিনি জানেন না ২০১৮ থেকে এতদিন কোনও পদক্ষেপ করা হল না কেন। তিনি তাঁর স্বামীকে শাশুড়িকে হারিয়েছেন। সেইসঙ্গে এই মামলা দায়ের করার পর থেকে অনেক কিছু সহ্য করতে হয়েছে তাঁকে। বহু হুমকি দিয়ে ভয় দেখানোর চেষ্টা করা হয়েছে তাঁকে। এমনকী মামলার ক্লোজার রিপোর্টে সই করার জন্য পর্যন্ত তাঁকে চাপ দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

অন্যদিকে, গতকাল গ্রেপ্তারির পর অর্ণবকে আলিবাগের ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে পেশ করে তাঁর মেডিক্যাল পরীক্ষা করা হয়। পুলিশের দাবি, অর্ণব প্রভাবশালী ব্যক্তি, তাই তদন্ত প্রভাবিত হতে পারে সেই যুক্তিতে ১৪ দিন তাঁকে নিজেদের হেফাজতে চেয়েছিল তাঁরা। শেষপর্যন্ত অবশ্য আদালত পুলিশের সেই দাবি মানেনি বলেই জানা গেছে।

সেইসঙ্গে সাংবাদিকের জামিনের আবেদন খারিজ করা হয়েছে বলেও জানা গেছে। সেইসঙ্গে তাঁকে আপাতত ১৪ দিন বিচারবিভাগীয় হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলেও জানা গেছে। এদিকে, অর্ণব গোস্বামী যে অভিযোগ করেছিলেন যে পুলিশ তাঁকে এবং তাঁর পরিবারকে হেনস্তা করেছে, ডাক্তারি রিপোর্টে সেই অভিযোগের স্বপক্ষে কোনও প্রমান মেলেনি বলেও এদিন আদালতে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!