এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > গোয়া দখলেও কর্ণাটক মডেল করতে পারে কংগ্রেস, অস্বস্তি গেরুয়া শিবিরে

গোয়া দখলেও কর্ণাটক মডেল করতে পারে কংগ্রেস, অস্বস্তি গেরুয়া শিবিরে



বেশ কিছুদিন আগে কর্নাটকে জেডিএসের সঙ্গে জোট গড়ে বিজেপিকে চাপে রেখে সেখানে ক্ষমতায় বসেছে কংগ্রেস। এবার সেই কর্ণাটকের পদ্ধতিকেই গোয়া দখলে কাজে লাগাতে চাইছেন কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধী। এখন কংগ্রেসের কাছে সব থেকে বড় চ্যালেঞ্জ, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে কেন্দ্রের বর্তমান মোদি সরকারের বিরুদ্ধে নানা দুর্নীতির ইস্যু টেনে এনে গোটা ভারতের মানুষের কাছে নিজেদের সংগঠনকে চাঙ্গা করা এবং বিভিন্ন রাজ্যের ক্ষমতা দখল করা।

কিছুদিন আগেই দেশের পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা উপনির্বাচনে প্রায় তিন রাজ্যেই ক্ষমতা দখল করেছে হাত শিবির। যা নিয়ে কিছুটা বসে যাওয়া দেশের হাত শিবিরের কর্মী-সমর্থকরা অনেকটাই উদ্দীপনা ফিরে পেয়েছেন। আর তাই এবার গোয়ার দুটি বিধানসভা আসন শিরোদ ও ম্যানড্রোমে জোর লড়াই দিয়ে সেখানে যাতে জয় পাওয়া যায় তার জন্য এই দুটি আসনকে পাখির চোখ করেছে কংগ্রেস। আর তারপরই ধীরে ধীরে লোকসভা নির্বাচনের আগে এই গোয়া রাজ্যকে নিজেদের দখলে আনতে চাইছে হাত শিবির।

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সর্ববৃহৎ দল হয়েও 3 টি আসনের জন্য সংখ্যাগরিষ্ঠতা না হওয়ায় এই গোয়ায় সরকার গড়তে ব্যর্থ হয় কংগ্রেস। অন্যদিকে বিভিন্ন আঞ্চলিক দলের সমর্থন নিয়ে এখানে সরকার গড়ে বিজেপি। কিন্তু এবার এই গোয়ার দুটি বিধানসভা আসনের উপনির্বাচনে লড়াই দিয়ে কংগ্রেস প্রমাণ করে দিতে চাইছে যে, এইখানে নির্ণায়ক শক্তি একমাত্র তাঁরাই হতে পারে। কিন্তু আদৌ কি কংগ্রেস এই গোয়া দখলে সমর্থ হবে?

এদিন এই প্রসঙ্গে এই রাজ্যের একাংশ কংগ্রেস নেতারা বলেন, “ইতিমধ্যেই বিজেপির 5 বিধায়ক তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে শুরু করেছেন। তাঁরা খুব শিগগিরই কংগ্রেসে যোগ দেবেন। আর তারপরই গোয়া দখলের জন্য ঝাঁপ দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হবে।” সব মিলিয়ে এবার আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে গোয়া রাজ্যটি দখল করে কংগ্রেসের রাহুল গান্ধী আদৌ চমক দিতে পারেন কিনা এখন সেদিকেই তাকিয়ে সকলে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!