এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > বড়সড় চিন্তার ভাজ রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের, জেনে নিন

বড়সড় চিন্তার ভাজ রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের, জেনে নিন



ষষ্ঠ বেতন কমিশনের সুপারিশ এবং তাকে কেন্দ্র করে বর্ধিত বেতনের খবর অনেক আগেই পেয়েছেন রাজ্যের সরকারি কর্মচারীরা। কিন্তু এবার একটি ঘটনায় তাদের দুশ্চিন্তা আরও বৃদ্ধি পেল। জানা গেছে, নতুন পে স্লিপে ডিএ না থাকায় ইতিমধ্যেই নানা মহলে নানা গুঞ্জন শুরু হয়েছে। আর এবার বাড়ি ভাড়া ভাতা 15 শতাংশ থেকে কমিয়ে 12 শতাংশ করা নিয়ে ক্ষোভে ফুঁসছেন সরকারি কর্মচারীরা। ইতিমধ্যেই এই বিষয়টি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন রাজ্য সরকারি কর্মচারী ফেডারেশন।

অনেকেরই প্রশ্ন, তাহলে কি আর মহার্ঘভাতা মিলবে না! ইতিমধ্যেই সর্বভারতীয় রাজ্য সরকারি কর্মচারী ফেডারেশন এই ব্যাপারে মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি দিয়ে জানিয়েছেন যে, “পয়লা জানুয়ারি 2016 থেকে 2019 সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়তি বেতন বকেয়া রয়েছে। বাড়ি ভাড়া ভাতা 15 শতাংশ থেকে কমিয়ে 12 শতাংশ করা হয়েছে। এর পাশাপাশি দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতিতে ডিএ নিয়ে অন্ধকারে রাজ্য সরকারি কর্মীরা।”

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

তবে ডিএ নিয়ে নিজেদের অবস্থান অবশ্য অনেক আগেই জানিয়ে দিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যেখানে রাজস্বের কথা ভাবনা-চিন্তা করে, যতটুকু করা হয়েছে, ততটুকুতেই শান্ত থাকুন বলে সকলকে জানিয়েছেন তিনি। কিন্তু মহার্ঘ ভাতা নিয়ে সরকারের এমন চিন্তা ভাবনার পর গোদের উপর বিষফোঁড়া হিসেবে বাড়ি ভাড়া ভাতা কমিয়ে দেওয়ায় সরকারি কর্মচারীদের ক্ষোভ দিনকে দিন বাড়ছে।

বিশেষজ্ঞদের একাংশ বলছেন, গত লোকসভা নির্বাচনে এর ফলে সরকারি কর্মচারীদের ভোট তৃণমূলের দিকে যায়নি। আর এবার মহার্ঘ ভাতা নিয়ে টালবাহানার পর বাড়ি ভাড়া ভাতা কমিয়ে দেওয়ায় সামনের পৌরসভা এবং তারপরের বিধানসভায় সেই সরকারি কর্মচারীদের ভোট কতটা শাসকদলের দিকে পড়বে, তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে। এখন গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!