এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > রাজ্যে সরকারি কর্মী নিয়োগের জন্য মুখ্যসচিবদের নিয়ে উচ্চপর্যায়ের কমিটি গড়ল সরকার

রাজ্যে সরকারি কর্মী নিয়োগের জন্য মুখ্যসচিবদের নিয়ে উচ্চপর্যায়ের কমিটি গড়ল সরকার



এ রাজ্যে সরকারি নিয়োগের ব্যাপারে এতদিন কোনো একটি দপ্তর বা সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত সংস্থাই অর্থদপ্তরের কাছে প্রস্তাব পাঠালে রাজ্য অর্থমন্ত্রখ সেই প্রস্তাবে সায় দিলেই শুরু হত নিয়োগ প্রক্রিয়া। সূত্রের খবর, এবার সেই নিয়মে বদল আসতে চলেছে। সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রীর সচিবালয় থেকে এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে,  রাজ্য সরকার ও সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত সমস্ত দপ্তরে নিয়োগের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে মুখ্যসচিবের নেতৃত্বে গঠিত আট সদস্যের এক বিশেষ কমিটি। কিন্তু ঠিক কারা কারা রয়েছে এই কমিটিতে? সূত্রের খবর, এই কমিটিতে রাজ্য পুলিশের ডিজি, অর্থ, স্বরাষ্ট্র, উচ্চশিক্ষা, স্বাস্থ্য, কর্মীবর্গ, প্রশাসনিক সংস্কার ও ভূমি দপ্তরের সচিবরাই থাকছেন। নিয়োগ প্রক্রিয়ায় এহেন বদল নিয়ে অনেকে মনে করছেন,  এর ফলে অর্থদপ্তরের হাতে থাকা ক্ষমতা কিছুটা হলেও খর্ব হল। আর নিয়োগের ক্ষেত্রে এতদিন অর্থদপ্তরের ভরসায় থাকতে হত। এমনকী দপ্তরগুলো যত সংখ্যক পদে নিয়োগ চাইত, তা তাদের দেওয়াই হত না।

আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

——————————————————————————————-

 এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

জানা গেছে, এখন ই- অফিস চালু হওয়ায় সরকারি কর্মীদের চাপ অনেকটাই কমেছে। তাই নতুন পদ সৃষ্ট বা পুরোনো পদ অবলুপ্তি সব ব্যাপারেই সিদ্ধান্ত নেবে এই কমিটি। এখানেই নবান্নের দাবি, কর্মী নিয়োগের ব্যাপারে এখন সমস্ত সিদ্ধান্তই নেবে এই কমিটি। সূত্রের খবর, কম্পিউটারের প্রচলন হওয়ায় যেমন নতুন কাজে আর টাইপিষ্ট দের প্রয়োজন না থাকায় সেই পদগুলো যেমন পড়ে রয়েছে,ঠিক তেমনি নতুন পদ সৃষ্টির প্রয়োজন। তাই বিভিন্ন দপ্তর ও জেলাশাসকদের কাছ থেকে ঠিক কত শূন্যপদ রয়েছে এ ব্যাপারে জানতে চেয়েছে নবান্ন। এদিকে এ ধরনের কমিটি হওয়ায় খুশি তৃনমূল প্রভাবিত সংগঠন। তবে নিয়োগের ক্ষেত্রে স্বাস্থ দপ্তরের পরেই কৃষি দপ্তর হওয়ায় এবংকৃষি প্রযুক্তি সহায়কে 4758 টি পদের মধ্যে যেখানে আছেন মোটে 462 জন, তাই এই কমিটিতে কৃষি দপ্তর থেকে কোনো প্রতিনিধি রাখলে ভালো হত বলে মনে করেন তৃনমূল সরকারি সংগঠনের কোর কমিটির সদস্য পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!