এখন পড়ছেন
হোম > জাতীয় > সরকারি মেলায় উদ্বোধনে ব্রাত্য সাংসদ, উঠছে প্রশ্ন

সরকারি মেলায় উদ্বোধনে ব্রাত্য সাংসদ, উঠছে প্রশ্ন



 

2011 সালে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার ক্ষমতায় আসার পর জেলায় জেলায় গিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রশাসনিক বৈঠক করেন। কিন্তু অনেক জেলাতে বিরোধী দলের বিধায়ক থাকা সত্ত্বেও, তাদের সেই বৈঠকে আমন্ত্রণ না জানানোর অভিযোগ উঠেছিল সেই রাজ্য প্রশাসনের বিরুদ্ধে। যার কারণে রাজ্য সরকারের বিমাতৃসুলভ আচারণ তীব্র থেকে তীব্রতর হয়ে উঠেছিল। কিন্তু লোকসভা ভোটে সাধারণের ভোটে জয়ী সাংসদ বিরোধীদলের হলেও, তাকে সরকারি অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হবে বলে মনে করেছিল একাংশ।

তবে তা না করে যেভাবে রাজনৈতিক বৈরিতার সাক্ষী থাকল দক্ষিণ দিনাজপুর, তাতে রীতিমত নানা মহলে প্রশ্ন উঠতে শুরু করল। সূত্রের খবর, রাজ্য সরকারের শ্রম দফতরের উদ্যোগে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বালুরঘাট শহরে সোমবার থেকে শুরু হয়েছে শ্রমিক মেলা।

এদিন শহরের ফ্রেন্ডস ইউনিয়ন ময়দানের অডিটোরিয়ামে এই মেলার উদ্বোধন করেন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের শ্রম দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী গোলাম রব্বানী। যেখানে উপস্থিত ছিলেন জেলাশাসক নিখিল নির্মল, জেলা পুলিশ সুপার দেবর্ষি দত্ত, উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন পর্ষদের ভাইস চেয়ারম্যান অর্পিতা ঘোষ সহ অন্যান্যরা। কিন্তু এই অনুষ্ঠানে কেন বালুরঘাটের বিজেপি সাংসদ সুকান্ত মজুমদারকে আমন্ত্রণ জানানো হল না! তা নিয়েই এখন নানা মহলে উঠতে শুরু করেছে প্রশ্ন।


ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অনেকেরই প্রশ্ন, বিজেপি সাংসদ হওয়ার জন্যই সুকান্তবাবুকে এই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হল না! কিন্তু তিনি তো সাধারণের ভোটে নির্বাচিত। সেক্ষেত্রে রাজ্য সরকার এই জনপ্রতিনিধিকে আমন্ত্রণ না করে সাধারণের মতকেই কি অমান্য করল না! জানা গেছে, এদিন বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদারকে এই শ্রমিক মেলায় আমন্ত্রণ না করার জন্য ভারতীয় মজদুর সংঘের প্রায় 500 জন শ্রমিক এই মেলা বয়কট করেন।

এদিন এই প্রসঙ্গে ভারতীয় মজদুর সংঘের সম্পাদক দেবব্রত সরকার বলেন, “মেলা নিয়ে বৈঠকে আমি সংসদ সদস্যকে আমন্ত্রণ জানানোর কথা বলেছিলাম। তবুও তাকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। তাই আমাদের 500 জন শ্রমিক মেলা বয়কট করেছেন।”

এদিকে শ্রমিক মেলায় আমন্ত্রণ না পাওয়া প্রসঙ্গে বালুরঘাটের বিজেপি সাংসদ সুকান্ত মজুমদার বলেন, “সরকারি অনুষ্ঠান এখন তৃণমূলের দলীয় অনুষ্ঠানে পরিনত হয়েছে। এই অনুষ্ঠানে একজন সাংসদকে আমন্ত্রণ না জানানো নোংরামি। আমি জেলা প্রশাসনকে এর বিরুদ্ধে অভিযোগ জানাব।”

সত্যিই তো তাই, যেখানে জনপ্রতিনিধি না হওয়া সত্ত্বেও অর্পিতা ঘোষকে আমন্ত্রণ জানানো হল, সেখানে কেন জনপ্রতিনিধি হওয়া সত্ত্বেও সুকান্ত মজুমদার শ্রমিক মেলায় আমন্ত্রণ পেলেন না! তাহলে কি তিনি বিজেপি সাংসদ জন্যই তাকে অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হল না? রাজ্য সরকারের দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে এখন কিন্তু নানা মহলে এই প্রশ্নই উঠতে শুরু করেছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!