এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > উত্তরবঙ্গ > “গত দুটি দফায় তৃণমূলের বিদায় নিশ্চিত হয়ে গিয়েছে। বাংলায় বিজেপির ঝড় চলছে।” – আত্মবিশ্বাসী বক্তব্য প্রধানমন্ত্রীর

“গত দুটি দফায় তৃণমূলের বিদায় নিশ্চিত হয়ে গিয়েছে। বাংলায় বিজেপির ঝড় চলছে।” – আত্মবিশ্বাসী বক্তব্য প্রধানমন্ত্রীর



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – আজ দুটি জনসভায় যোগদান করতে রাজ্যে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সম্প্রতি কোচবিহারের রাস মেলার মাঠে জনসভা করছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাঁর পরবর্তী জনসভা রয়েছে হাওড়ার ডুমুরজলাতে। কোচবিহারের জনসভা থেকে বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির জয় লাভের ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী মন্তব্য করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রধানমন্ত্রী জানালেন যে, গত ২ দফায় তৃণমূলের বিদায় নিশ্চিত হয়ে গেছে। বাংলায় চলছে বিজেপির ঝড়।

মুখ্যমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে তিনি জানালেন যে, তাঁরা তো হলেন সাধারণ মানুষ। নির্বাচনের ফল কিভাবে জানা যাবে? তিনি জানালেন, মুখ্যমন্ত্রীর ক্রোধ, তাঁর ব্যবহার, তাঁর বক্তব্য এই সমস্ত কিছু দেখে একটা বাচ্চাও বলে দিতে পারে যে, নির্বাচনে হেরে গেছেন মুখ্যমন্ত্রী, ময়দান ছেড়ে দিয়েছেন তিনি। তাঁকে বলতে হচ্ছে যে, নন্দীগ্রামে তিনি জিতবেন। প্রধানমন্ত্রী জানালেন, নন্দীগ্রামে পোলিং বুথে যে খেলা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী, যে কথা বলেছেন তিনি, সেদিনই গোটা দেশ জেনে গেছে যে, নির্বাচনে তিনি হারছেন।

প্রধানমন্ত্রী জানালেন, এ ব্যাপারে ভগবানকে জিজ্ঞাসা করার কোন প্রয়োজন নেই। মুখ্যমন্ত্রীর দলই ঘোষণা করে দিয়েছে যে, বারাণসীতে ভোটে লড়াই করবেন মুখ্যমন্ত্রী। যা থেকে যে কোন মানুষ বুঝে নেবেন যে, বাংলায় তৃণমূল উৎখাত হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রীকে রাজনীতি করতে গেলে যেতে হচ্ছে বাংলার বাইরে। যা বলে দিচ্ছে তাঁর দলই।

ফেসবুকে আমাদের নতুন ঠিকানা, লেটেস্ট আপডেট পেতে আজই লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী জানালেন যে, মুখ্যমন্ত্রী প্রশ্ন করেছেন যে, বিজেপি কি ভগবান? যে প্রথম দুদফায় তারা বড় জয় পেতে চলেছেন? এর উত্তরে মুখ্যমন্ত্রীকে ‘আদরণীয় দিদি’ বলে সম্মোধন করে প্রধানমন্ত্রী জানালেন যে, তাঁরা হলেন সাধারণ মানুষ। ঈশ্বরের আশীর্বাদে তাঁরা দেশ সেবায় নিয়োজিত হয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী জানালেন, এখানে আসার সময় তিনি দেখেছেন যে, মানুষের দেয়াল তৈরি করা হয়েছে। মা-বোনেরা আশীর্বাদ দেবার জন্য দাঁড়িয়ে আছেন। আগামী ২ রা মে বিজেপি সরকার ক্ষমতায় এলে পশ্চিমবঙ্গ উন্নয়ন ও প্রগতি লাভ করবে। গত দু দফায় তৃণমূলের বিদায় নিশ্চিত হয়ে গেছে। বাংলায় চলছে বিজেপির ঝড়। তৃণমূলের গুন্ডাদের কোণঠাসা করে দিয়েছেন রাজ্যের মানুষ।

প্রধানমন্ত্রী জানালেন, গত লোকসভা নির্বাচনের আগেও তিনি কোচবিহারে এসেছিলেন, সে সময় একটা মঞ্চ করে তাঁদেরকে বাধা দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছিল। সেসময় তিনি জানিয়েছেন যে, এই মঞ্চই তৃণমূলের পতনের স্মারক হবে। প্রধানমন্ত্রী প্রশ্ন করেছেন, আজ কি কোথাও মঞ্চ দেখা যাচ্ছে? আজ কি কোথাও দেখা যাচ্ছে তৃণমূলকে?

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!