এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > মেদিনীপুর > ঘাটালে কি ক্রমশ শক্তি বাড়াচ্ছে বিজেপি? তৃণমূলের সঙ্গে সংঘর্ষে জখম ৪, পুলিশে রিপোর্ট

ঘাটালে কি ক্রমশ শক্তি বাড়াচ্ছে বিজেপি? তৃণমূলের সঙ্গে সংঘর্ষে জখম ৪, পুলিশে রিপোর্ট



ধীরে ধীরে বাংলার বিভিন্ন জায়গায় নিজেদের রাজনৈতিক জাল বিস্তার করছে গেরুয়া শিবির। ব্যাতিক্রম নয় ঘাটাল ব্লকও। গত মার্চ মাস থেকেই এই ঘাটালের ইড়পালা ও সুলতানপুর পঞ্চায়েতের রাজনৈতিক পরিবেশ উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। ভাঙচুর করা হয় বেশ কিছু ভাঙচুরও।

সূত্রের খবর, এই শাসক বনাম বিরোধীদের গন্ডগোলে ফের উত্তপ্ত হল ঘাটাল। জানা যায়, গত শুক্রবার সন্ধ্যায় এই ঘাটালের গোবিন্দপুরের মহাপ্রভুতলা এবং লক্ষনপুরে দলীয় পতাকা তুলে একটি সভা করে বিজেপি। অভিযোগ, সভা শেষের দিকে এখানকার তৃনমূল বিধায়ক শঙ্কর দোলই এবং শাসকদলেরই ব্লক সভাপতি দিলীপ মাঝির নেতৃত্বে একদল দুস্কৃতী তাদের কর্মীদের মারধর এবং প্রাক্তন প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ীর ছবিও ছিড়ে দেয়।

সূত্রের খবর, এই ঘটনায় চারজন জখমও হয়েছেন। পাশাপাশি  তৃনমূল ও বিজেপি দুই পক্ষই থানায় নিজেদের অভিযোগ দায়ের করেছে। এদিন এই প্রসঙ্গে বিজেপির স্থানীয় নেতা তথা ঘাটাল সাংগঠনিক জেলার সদস্য অসিত সাঁতরা এবং বিজেপির ঘাটাল লোকসভার সাংগঠনিক জেলার সভাপতি রতন দত্ত বলেন, “তৃনমূলের আক্রমনেই আমাদের সাত কর্মী জখম হয়েছেন। এই ঘটনার মূলেই ছিলেন তৃনমূলের শঙ্কর দোলই এবং দিলীপ মাঝি।”

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

তবে এই ব্যাপারে তাঁদের বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ঘাটালের তৃনমূল বিধায়ক শঙ্কর দোলই। তিনি বলেন, “শান্ত ঘাটালকে অশান্ত করতে বিজেপিই সন্ত্রাসের ছক কষছে। বহিরাগতদের নিয়ে এসে ওরাই আমাদের কর্মীদের ওপর চড়াও হয়েছে।” একই কথা বলেছেন ঘাটাল ব্লক তৃনমূলের সভাপতি দিলীপ মাঝিও। তিনি বলেন, “বিজেপির হামলায় আমাদের চারজন হাসপাতালে ভর্তি আছেন। আমরা বিজেপির এহেন হামলার প্রতিবাদও করেছি। সব মিলিয়ে এখন শাসক বিরোধী রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত ঘাটাল।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!