এখন পড়ছেন
হোম > খেলা > করোনা আবহে বড়সড় পরিবর্তন ফুটবলের নিয়মে? এবার মাঠে কেশেও লালকার্ড দেখতে পারেন ফুটবলার?

করোনা আবহে বড়সড় পরিবর্তন ফুটবলের নিয়মে? এবার মাঠে কেশেও লালকার্ড দেখতে পারেন ফুটবলার?



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – বিশ্বজুড়ে ইতিমধ্যেই করোনার দাপট দেখা গিয়েছে প্রবলভাবে। আতংক ছড়িয়েছে সর্বত্র। বিশ্বজুড়ে লকডাউনের প্রভাব দেখা দিয়েছে আগেই। বাদ নেই খেলার মাঠও। দীর্ঘদিন ধরে বিশ্বের বুকে ফুটবল বন্ধ ছিল করনা আবহে। অবশেষে বেশ কিছুদিন আগে থেকে শুরু হয়েছে ক্লোজডোর ফুটবল খেলা। কিন্তু এবার সংক্রমণ রোধে আরো কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে ইংল্যান্ডের ফুটবল নিয়ামক সংস্থা এফ এ। এবার থেকে আর প্রতিপক্ষের সামনে বা রেফারির সামনে গিয়ে কোন অখেলোয়ারোচিত মনোভাব দেখানো যাবেনা বলে জানা গেছে।

কোন প্লেয়ার যদি এরকম কাজ করে, যাতে প্রতিপক্ষ অসুবিধায় পড়বে, তাহলে তার জন্য অপেক্ষা করবে কড়া শাস্তি। দীর্ঘদিন ফুটবল খেলা বন্ধ থাকার পর সম্প্রতি ক্লোজ ডোর অবস্থায় ফুটবল খেলা শুরু হয়েছে অর্থাৎ মাঠে নিয়ম মেনে খেলা চললেও গ্যালারিতে থাকবে না কোনো দর্শক। এছাড়াও করোনা সতর্কতা মানতে কড়া স্বাস্থ্যবিধি মেনে খেলা চলছে। যেমন খেলা শুরুর আগে কেউ কারোর সঙ্গে হাত মেলাতে পারবে না আর বর্তমানে। এমনকি শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।


WhatsApp-এ প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার খবর পেতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া গ্রূপের লিঙ্ক – টেলিগ্রামফেসবুক গ্রূপ, ট্যুইটার, ইউটিউব, ফেসবুক পেজ

আমাদের Subscribe করতে নীচের বেল আইকনে ক্লিক করে ‘Allow‘ করুন।

এবার থেকে আমাদের খবর পড়ুন DailyHunt-এও। এই লিঙ্কে ক্লিক করুন ও ‘Follow‘ করুন।



আপনার মতামত জানান -

এই অবস্থায় এবার ইংল্যান্ড ফুটবলে নতুন নিয়ম জারি হচ্ছে কাশির ওপর। এবার থেকে যদি কেউ ইচ্ছাকৃতভাবে বিপক্ষের কোন ফুটবলার বা ম্যাচ পরিচালনার দায়িত্বে থাকা রেফারি, লাইন্সম্যান বা চতুর্থ রেফারির মুখের সামনে গিয়ে কাশে, তাহলে তাঁকে কড়া শাস্তির মুখে পড়তে হতে পারে। এমনকি লাল কার্ড বা হলুদ কার্ডও দেখতে হতে পারে মাঠে। ইংল্যান্ড এফ এর তরফ থেকে স্পষ্ট করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, মাঠের মধ্যে যদি কেউ ইচ্ছাকৃতভাবে কারোর মুখের সামনে এগিয়ে আসেন তাহলে তা শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসেবে গৃহীত হবে।

যদি কেউ মাঠে আক্রমণাত্মক মেজাজ দেখান কিংবা অপমানজনক মন্তব্য বা আচরণ করেন, তাহলে তাঁকে অবাঞ্ছিত মনোভাবের জন্য লাল কার্ড বা হলুদ কার্ড দেখতে হতে পারে। তবে সমস্ত সিদ্ধান্ত নেবে মাঠে থাকা রেফারি। খেলোয়ারের অপরাধের প্রমাণ যদি না পাওয়া যায়, তাহলে খেলোয়ারকে সতর্ক করে দেওয়া হবে। শুধুমাত্র পাশেই নয়, এবার থেকে মাঠে যেখানে সেখানে থুথু ফেলাও নিষেধ।

সেক্ষেত্রেও রেফারি দায়িত্ব নিচ্ছেন খেলোয়াড়দের সতর্ক করার। সারা বিশ্বজুড়ে করোনা সতর্কতা হেতু মানতে বিশেষ কিছু নির্দেশিকা মেনে চলা হচ্ছে। সেই নির্দেশবিধির সূত্র ধরেই এবার ইংল্যান্ডের ফুটবল নিয়ামক সংস্থা নতুন নিয়ম প্রচলন করলেন বলে মনে করা হচ্ছে। তবে এক্ষেত্রে যেরকম করোনা বিধি মেনে চলা হবে, ঠিক সেভাবেই খেলার ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা বজায় রাখা যাবে বলে মনে করা হচ্ছে।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!