এখন পড়ছেন
হোম > রাজনীতি > তৃণমূল > ফের কলেজে ভর্তির টোপ দিয়ে টাকা নিয়ে ছাত্রকে মারধরের অভিযোগ তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে,

ফের কলেজে ভর্তির টোপ দিয়ে টাকা নিয়ে ছাত্রকে মারধরের অভিযোগ তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে,



আপনাদের সুবিধার্থে খবরের শেষে বিধানসভা ২০২১ উপলক্ষে আমাদের করা সর্বশেষ সমীক্ষার প্রতিটির লিঙ্ক দেওয়া আছে।

আপনার মতামত জানান -

প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – বিভিন্ন কলেজে ছাত্র ভর্তিতে অর্থ নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে শাসক দলের ছাত্র সংগঠনের বিভিন্ন নেতার বিরুদ্ধে। এদিকে পরিস্থিতি যখন ক্রমাগত হাতের বাইরে বেরিয়ে যায়, তখন বেশ কিছু বছর আগে ময়দানে নেমেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আশা করা হয়েছিল, এবার হয়ত ছাত্র ভর্তিতে দুর্নীতি কমবে। কিন্তু আবার এই ঘটনায় নাম জড়িয়ে পড়ল তৃণমূল কংগ্রেসের।

জানা গেছে, কলেজে ভর্তি করিয়ে দেওয়ার নাম করে এবার তৃণমূলের এক ছাত্র নেতা টাকা নিয়েও ভর্তি করাতে পারেননি। তবে ভর্তি না হওয়ার পর সেই ছাত্র তার টাকা চাইতে গেলে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নেতার হাতে তাকে বেধড়ক মার খেতে হয় বলে জানা যাচ্ছে। স্বাভাবিক এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

বস্তুত, কিছুদিন আগেই বিএসসি প্রথম বর্ষের ছাত্র রবিউল বাবর তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নেতাদের কাছে দেওয়া টাকা ফেরত চাইতে যান। আর এরপরই তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নেতাদের সঙ্গে তার বিবাদ শুরু হলে সেই রবিউল বাবর কংগ্রেসের পার্টি অফিসে আশ্রয় নেন। এরপর কংগ্রেসের ছাত্র সংগঠনের কর্মীরা তার পাশে দাঁড়ান।

এদিকে এই ঘটনার পরেই এদিন সংখ্যালঘুদের জন্য ফর্ম জমা দিতে রবিউলবাবু কলেজে যান। কিন্তু সেখানেও তাকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে। শুধু তাই নয়, তৃণমূল ছাত্র পরিষদের জেলা সাধারণ সম্পাদক বাবু সরকার দলবল নিয়ে সেই রবিউল বাবরকে মারধর করেছেন বলে অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে। স্বাভাবিক ভাবেই এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। ইতিমধ্যেই সেই রবিউল বাবরকে আক্রান্ত অবস্থায় চাচল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর প্রাথমিকভাবে ছেড়ে দেওয়া হয়।


দেশে যে কোনো দিন ব্যান হয়ে যেতে পারে হোয়াটস্যাপ। তাই এখন থেকে আমরা শুধুমাত্র টেলিগ্রাম ও সিগন্যাল অ্যাপে। প্রিয় বন্ধু মিডিয়ার নিউজ নিয়মিতভাবে পেতে যোগ দিন –

টেলিগ্রাম গ্রূপটাচ করুন এখানে

সিগন্যাল গ্রূপটাচ করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

এদিন এই প্রসঙ্গে রবিউল বাবর বলেন, “উন্নয়নের ছুটে না আসলে ওরা আমাকে মেরে ফেলত। পুলিশকে সব জানিয়েছি।” এদিকে এই ব্যাপারে ছাত্রপরিষদের আচরণের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে কংগ্রেসের ছাত্র সংগঠন ছাত্র পরিষদ। এদিন এই প্রসঙ্গে ছাত্র পরিষদের সভাপতি মহম্মদ হাসান বলেন, “ছাত্রদের সাহায্য করা ছাত্র সংগঠনের কাজ। কিন্তু এদিন টিএমসিপি যা করল, তা লজ্জার।” সত্যিই তো তাই! কেন এক নিরীহ ছাত্রদের উপর তারা এভাবে আঘাত করল?

এদিন এই প্রসঙ্গে তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তৃণমূল ছাত্র পরিষদের বাবু সরকার। তিনি বলেন, “লাইন ভেঙ্গে ঢোকার চেষ্টা করায় অন্যরা ওকে সরিয়ে দেয়। ওকে কেউ মারধর করেনি। সামনেই নির্বাচন। তাই ছাত্র পরিষদ বদনাম করতে এসব করছে। ভর্তির জন্য ওর কাছ থেকে কেউ কোনো টাকা নেয়নি।” সব মিলিয়ে গোটা পরিস্থিতি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়, যেভাবে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ উঠল, তাতে শাসকদল কতটা চাপে পড়ে, সেদিকেই নজর থাকবে সকলের।

একনজরে দেখে নিন আমাদের সর্বশেষ বিধানসভা ২০২১ ওপিনিয়ন পোল –

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – দ্বিতীয় পর্ব – 

# মুর্শিদাবাদ জেলার ওপিনিয়ন পোল – প্রথম পর্ব – 

# মালদহ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# উত্তর দিনাজপুরে জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# জলপাইগুড়ি ও কালিম্পঙ জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# আলিপুরদুয়ার ও দার্জিলিং জেলার ওপিনিয়ন পোল –

# কুচবিহার জেলার ওপিনিয়ন পোল –

আপনার মতামত জানান -
আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!