এখন পড়ছেন
হোম > অন্যান্য > ভক্তদের কাঁদিয়ে ক্রিকেটকে বিদায় মাহির! কিন্তু এখনও মুকুটে জ্বলজ্বল করছে এই পাঁচ বিশ্বরেকর্ড

ভক্তদের কাঁদিয়ে ক্রিকেটকে বিদায় মাহির! কিন্তু এখনও মুকুটে জ্বলজ্বল করছে এই পাঁচ বিশ্বরেকর্ড



প্রিয় বন্ধু মিডিয়া রিপোর্ট – কিছুদিন আগেই ভারতীয় ক্রিকেট দলের এক খেলোয়াড়ের সাক্ষাৎকারে জানা গিয়েছিল যে ধোনির হয়ত জাতীয় দলের হয়ে শেষ খেলা হয়ে গেছে। শুধু তাই নয় তিনি জানান যে তিনি আইপিএল খেললেও ভারতীয় দলে খেলার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। গতকাল সন্ধ্যায় সারা দেশ যখন স্বাধীনতা দিবসের আনন্দে মেতে রয়েছে, তখন সেই সম্ভাবনাকে সত্যি করে আন্তর্জাতিক খেলা থেকে অবসর নিলেন ক্যাপ্টেন কুল।

তবে ভারতীয় এই প্রাক্তন অধিনায়ক নিজের যোগ্যতায় অর্জন করে নিয়েছেন অনেক খ্যাতি। ব্যাটসম্যান থেকে শুরু করে ফিনিশার হিসেবে তিনি অপ্রতিরোধ্য। ভারতবর্ষের নীল জার্সিতে, মাঠে ব্যাট হাতে দাঁড়িয়ে থাকা এই স্বনামধন্য খেলোয়াড়কে দেখে প্রতিবারই ক্রিকেট অনুরাগীদের মনে জেগেছে আশার আলো। তবে বিদায়ের শেষ লগ্নে তাঁর ঝুলিতে রয়েছে এমন কিছু বিশ্বরেকর্ড যা হয়ত আপনাকে আর একবার মনে করিয়ে দেবে এত বছরে মাহি থেকে মহেন্দ্র সিং ধোনি হয়ে ওঠার সেই পথ। আসুন দেখে নিই –

* সবচেয়ে বেশি ম্যাচে নেতৃত্ব দেবার রেকর্ড রয়েছে তাঁর নামে। যার মধ্যে রয়েছে ৩৩২ টি ম্যাচ, যেগুলোতে তিনি অধিনায়কত্ব করেছিলেন।
* ভারতের অধিনায়ক হিসেবে ওয়ানডে বিশ্বকাপ, টি-টোয়েন্টি এবং চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জেতার খেতাব রয়েছে তাঁর কাছে। যা কিনা বিশ্বের একমাত্র অধিনায়ক হিসেবে তিনি করে দেখিয়েছেন।

 

আমাদের নতুন ফেসবুক পেজ (Bloggers Park) লাইক ও ফলো করুন – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের টেলিগ্রাম গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে

আমাদের সিগন্যাল গ্রূপে জয়েন করতে – ক্লিক করুন এখানে



আপনার মতামত জানান -

* ওয়ানডেতে তিনি সবচেয়ে বেশি নটআউট থাকার রেকর্ড করেছেন। মোট ৭২ টি ম্যাচে আছে তিনি নট আউট ছিলেন।
* আন্তর্জাতিক খেলার জগতে তিনি সবচেয়ে বেশি স্টাম্পিং করেছেন। মোট ১২৩ টি স্টাম্পিংয়ের রেকর্ড রয়েছে তাঁর নামে।
* একজন অধিনায়ক হিসাবে সবচেয়ে বেশিবার দলকে ফাইনালে তুলে দেওয়ার রেকর্ড রয়েছে মহেন্দ্র সিং ধোনির। এরমধ্যে ৬টি ওয়ানডে টুর্নামেন্টের ৪ টি তেই জয় হয়েছে ভারতের।

ভারতের এই প্রাক্তন অধিনায়ককে শেষবার মাঠে খেলতে দেখা গিয়েছিল আগের বছর বিশ্বকাপে খেলায়। তারপর থেকে তিনি হয় সীমান্তে সেনাদের সঙ্গে সময় কাটিয়েছেন নয়তো নিজের পরিবারের সঙ্গে সময় কাটিয়েছেন। তবে অনুরাগীদের মনে আশা ছিল যে তাঁকে নিশ্চয়ই দেখা যাবে নীল জার্সিতে। কিন্তু অনুরাগীদের আশা যে পূরণ হবে না তা আর কে জানত। তিনি যে সত্যিই আনপ্রেডিক্টেবল সেটা প্রমাণ করে দিলেন।

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!