এখন পড়ছেন
হোম > রাজ্য > কলকাতা > দুর্নীতিতে যুক্ত ভুয়ো কর্মী চিহ্নিত চাকরির ৩২ বছর পর, কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে শোরগোল

দুর্নীতিতে যুক্ত ভুয়ো কর্মী চিহ্নিত চাকরির ৩২ বছর পর, কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে শোরগোল



অষ্টম শ্রেণি পাশের ভুয়ো শংসাপত্র দেখিয়ে দীর্ঘ ৩২ বছর কোলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি কো অপারেটিভ সোসাইটিতে চাকরি করে গিয়েছেন তিনি। অথচ প্রশাসনের নজরেই আসেনি! শুধু তাই নয়,রয়েছে আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগও। তবে সম্প্রতি কোলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের কো-অপারেটিভ সোসাইটির টাকা গরমিলের তদন্তে নেমে ধরা পড়লেন অভিযুক্ত ব্যক্তিটি। সঙ্গে হদিশ পাওয়া গেলো দোষী আরো দুজনের।

স্থায়ী চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হলেও মানবিকতার কারণে তাঁদের অস্থায়ী পদে বহাল রাখা হয়েছে। তবে তাঁদের অবসরকালীন প্রাপ্ত টাকা আটকে দেওয়া হয়েছে। কোলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক,অফিসার এবং সাধারণ কর্মী মিলিয়ে প্রায় সাড়ে পাঁচশো জন সদস্য কাজ করছে কো-অপারেটিভ সোসাইটিতে। এমনটাই জানা গেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সূত্র থেকে।

গত জুন মাসে প্রকাশিত তদন্তকারীদের রিপোর্ট থেকে জানা গিয়েছে,২০০১-২০১৬ সাল অব্দি কো-অপারেটিভ ক্রেডিট সোসাইটি লিমিটেডে কয়েক কোটি টাকা দুর্নীতি হয়েছে। লক্ষাধিক টাকা ফিক্সড ডিপোজিট করে রাখা হলেও মেয়াদ শেষের পরেও সেগুলো অ্যাকাউন্টে জমা পড়েনি। সেসব টাকা কোথায় গিয়েছে তার কোনো হদিশও নেই কারো কাছে। কো-অপারেটিভ থেকে পেনশাম নেওয়ার কোনো নিয়ম অগ্রাহ্য করে প্রতি বছর নিয়ম করে ৬ লক্ষ টাকা পেনশন তোলা হয়েছে। কোনো অনুষ্ঠানে প্রায় চার লক্ষ টাকা উপহার কেনা হলেও তার কোনো টাকা হিসাব দেখানো হয়নি। এই আর্থিক দুর্নীতিতেই নাম জড়িয়েছে সোসাইটির প্রাক্তন সম্পাদক তথা কোলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত কর্মচারী দিলীপ ঘোষের।

উল্লেখ্য, এর কয়েকবছর আগেও তৎকালীন ফিনান্স অফিসারের বিরুদ্ধে আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছিল। ফের আরো একবার এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত এক কর্মীর বিরুদ্ধে আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগ ওঠায় তীব্র বিতর্ক ছড়িয়েছে।

তবে তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করলেন দিলীপ বাবু। জানালেন, ষড়যন্ত্র করে তাকে ফাঁসানো হয়েছে। রাজ্য সরকারের রিপোর্টে কোথাও তাঁর দোষের কথা উল্লেখ নেই,তবুও তাঁর পেনশানের টাকা আটকে দেওয়া হয়েছে বলে নিজের খারাপ অবস্থার কথা জানালেন এদিন।

ফেসবুকের কিছু টেকনিকাল প্রবলেমের জন্য সব খবর আপনাদের কাছে পৌঁছেছে না। তাই আরো খবর পেতে চোখ রাখুন প্রিয়বন্ধু মিডিয়া-তে

এবার থেকে প্রিয় বন্ধুর খবর পড়া আরো সহজ, আমাদের সব খবর সারাদিন হাতের মুঠোয় পেতে যোগ দিন আমাদের হোয়াটস্যাপ গ্রূপে – ক্লিক করুন এই লিঙ্কে

 এ প্রসঙ্গে সংবাদমাধ্যমকে বেশি কিছু বলতে চাইলেন না সোসাইটির সম্পাদক শুভেন্দু মুখোপাধ্যায়। তবে জানালেন,তদন্তে দুর্নীতির প্রমাণ মিলেছে। তদন্ত করার জন্য তাকে খুনের হুমকি দেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে পুলিশের কাছে অভিযোগও জানিয়েছেন তিনি,এমনটাই বললেন।

 

আপনার মতামত জানান -

Top
error: Content is protected !!